Pink Lady Bandit: গোলাপি হাতব্যাগে বহু ব্যাঙ্ক লুটে গ্রেফতার ডাকাত রানি!

হাতে একটা গোলাপি রঙের ব্যাগ। তার মধ্যেই চোখের পলকে ভরে নিতেন ব্যাঙ্কের লক্ষ লক্ষ টাকা। এভাবেই দিনের পর দিন একের পর এক ব্যঙ্ক লুটেছেন।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
Pink Lady Bandit: গোলাপি হাতব্যাগে বহু ব্যাঙ্ক লুটে গ্রেফতার ডাকাত রানি!

পুলিশ অবশেষ গ্রেফতার করেছে পিঙ্ক লেডি ব্যান্ডিড আর তার শাগরেদকে


হাতে একটা গোলাপি রঙের ব্যাগ (pink handbag)। তার মধ্যেই চোখের পলকে ভরে নিতেন ব্যাঙ্কের লক্ষ লক্ষ টাকা। এভাবেই দিনের পর দিন বিভিন্ন রাজ্যে একের পর এক ব্যঙ্ক লুটেছেন (robbed multiple banks)। কেউ তাঁর টিকিটিও ছুঁতে পারেনি। অবশেষে দস্যুরানি ফুলনদেবীর নয়া সংস্করণ বছর পঁয়ত্রিশের সার্স বায়েজ (Circe Baez) রবিবার ধরা পড়লেন নর্থ ক্যারোলিনার সার্লোটি পুলিশের জালে। তবে একা নন, সাগরেদ সমেত।প্রশাসনের দাবি, পূর্ব উপকূলের রাজ্যগুলির হেন ব্যাঙ্ক নেই যার থেকে সে আর তার সঙ্গী অ্যালেঙ্কিস মোরালেস (Alexis Morales) ডাকাতি করেনি। 

খবর, ডাকাতির পর তারা নাকি গা ঢাকা দিয়েছিল সার্লোটি স্পিডওয়ে ইন অ্যান্ড স্যুইটের গোপন আস্তানায়। হ্যামলেট থেকে যে জায়গা প্রায় ১০০ কিমি দূরে। সেখান থেকে গ্রেফতার করা হয় তাদের।  এখানেই নাকি শেষ জাকাতি সেরেছিল ডাকাত রানি।

ভয়ানক! ক্রেতার প্লেটে চলন্ত মাংসের টুকরো! তারপর যা হল...

মাত্র এক সপ্তাহে পরপর ৪টি ব্যাঙ্ক ডাকাতি পরেই বায়েজের এই দুঃসাহসিক অভিযান বন্ধ করতে ইতিমধ্যেই সে দেশের সরকার তার নামে দশ হাজার ডলার পুরস্কার ঘোষণা করেছিল। যে তাকে ধরে দিতে পারবে তাকেই দেওয়া হবে এই পুরস্কার। সমস্ত রাজ্যে ছয়লাপ তার  পোস্টার ছবিতে। 

উত্তর ক্যারোলিনার গ্রিনভিলের পিট কাউন্টি ডিটেনশন সেন্টারে আপাতত ৪০ মিলিয়ন ডলার বন্ডের বিনিময়ে রাখা হয়েছে বায়েজ ও মোরালেসকে। তাদের বিরুদ্ধে রয়েছে বিপজ্জনক অস্ত্র নিয়ে অকাধিক ব্যাঙ্ক লুঠের অভিযোগ। জানিয়েছে এফবিআই।

pm5nncb8

এফবিআই জানিয়েছে, রাজ্যের ব্যাঙ্কগুলি থেকে সম্ভবত আরও অভিযোগ জানান হবে দুই ডাকাতের বিরুদ্ধে। শুধু এরা নয়, এদের সঙ্গে ডাকাতিতে যুক্ত থাকা সবার বিরুদ্ধেই চার্জশিট গঠিত হবে। এখন সন্দেহভাজনদের খুঁজে পেতে চিরুনি তল্লাসি চলছে। 

পিট কাউন্টি শেরিফের অফিসিয়াল ফেসবুক থেকে বায়েজকে গ্রেফতারের জন্য ধন্যবাদ জানানো হয়েছে প্রশাসনকে। একই সঙ্গে তাদের বার্তা, গা-ঢাকা দিতে গোলাপি ছেড়ে কমলা রঙের জাম্পশ্যুট পরেছে ডাকাত রানি। পোস্টারে দেখানো গোলাপি হাতব্যাগও তার হাতে নেই। হ্যআমলেটে ব্যআঙ্ক ডাকাতির সময় তার পরনে ছিল পোলকা ডট দেওয়া টুপি। চোখে সানগ্লাস।

রেকর্ড গড়তে টানা ৫দিন বাথরুমে কমোডে বসেই কাটালেন ইনি!

সূত্রের খবর, ২০ জুলাই পেনসেলভেনিয়ার সার্লোটির অরস্টাউন ব্যাঙ্ক দিয়ে ডাকাতি শুরু গোলাপি লেডি ডাকাতের। এর তিনদিন পরে, লুঠ করে রেহবোথ বিচের এমএন্ডটি ব্যাঙ্ক। পরের দিনই লুঠ করেন উত্তর ক্যারোলাইনের আইডেনের একটি সাউদার্ন ব্যাঙ্ক। শেষ ডাকাতি হ্যামলেটে।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................