ভারতীয় ভূখণ্ডকে মানচিত্রে ঠাঁই! সংশোধন পাশ নেপাল সংসদে

এই অধিবেশনে ভারতীয় ভূখণ্ডকে নিজেদের মানচিত্রে ঠাঁই দিতে আনা সংশোধনের ওপর ভোটাভুটি হবে

ভারতীয় ভূখণ্ডকে মানচিত্রে ঠাঁই! সংশোধন পাশ নেপাল সংসদে

সেই সংশোধনীর পক্ষে ভোট দিতে সম্মতি জানিয়েছে নেপালের বিরোধী দল। (ফাইল ছবি)

হাইলাইটস

  • নেপাল সংসদে সংবিধান সংশোধনী বিলে ভোটাভুটি শীঘ্র
  • ভারতীয় ভূখণ্ডকে নিজের দাবি করে মানচিত্রে সংশোধন এনেছে নেপাল সরকার
  • সীমান্ত সমস্যা নিয়ে উত্তেজনা বেড়েছে ইন্দো-নেপাল কূটনৈতিক সম্পর্কে
কাঠমাণ্ডু/নয়াদিল্লি:

দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে নেপাল সংসদে (Nepal Parliament) পাশ হল সংবিধান সংশোধনী বিল। যে বিলে ভারতীয় ভূখণ্ডকে মানচিত্রে ঠাঁই দিয়েছে কাঠমাণ্ডু। ২৭৫ আসন বিশিষ্ট নেপাল সংসদে এই বিলের পক্ষে ভোট পড়ে ২৫৮টি। সংবাদসংস্থাগুলো সূত্রে খবর, সংবিধান সংশোধনী এই বিল (Constitutional amendment bill in Nepal) পাশ করতে বিশেষ অধিবেশন ডেকেছে নেপাল সংসদ। এই অধিবেশনে ভারতীয় ভূখণ্ডকে নিজেদের মানচিত্রে (Map with Indian Territory) ঠাঁই দিতে আনা সংশোধনের ওপর ভোটাভুটি হবে। এমনটাই সূত্রের খবর ছিল। জানা গিয়েছে, সেই বিল পাশ করাতে খুব একটা কাঠখড় পোড়াতে হয়নি হল সরকার পক্ষকে। কারণ বিরোধী নেপাল কংগ্রেস (Nepal Congress) সেই বিল সমর্থনে সম্মতি দিয়েছিল। এই বিল পাশ হওয়ায় আরও বাড়বে ইন্দো-নেপাল কূটনৈতিক উত্তেজনা। এমনটাই উদ্বেগ কূটনীতিবিদদের। 

শুক্রবারেও সীতামারীতে নেপাল সীমান্ত পুলিশের গুলিতে নিহত এক ভারতীয়। গুলিবিদ্ধ দুই। এই ঘটনায় তীব্র প্রতিক্রিয়া দিয়েছে নয়াদিল্লি। এই নেপাল সংসদের নিম্নকক্ষ এই বিলের ওপর বিতর্কসভা চালু করেছে। সেই বিতর্ক শেষ হলেই সম্ভবত আগামি সপ্তাহে ভোটাভুটি হবে সেই বিলে। সংবাদসংস্থা পিটিআই সূত্রে এমনটাই খবর।

গত মাসেই দেশের সরকার সেই সংশোধিত মানচিত্রে সিলমোহর বসিয়েছে। যে সিদ্ধান্ত ঘিরে ইতিমধ্যে উষ্মা প্রকাশ করেছে নয়াদিল্লি। ইতিমধ্যে সেই মানচিত্র সংশোধনী আকারে সংসদে এলে; সমর্থন থাকবে বিরোধীদের। এমন বার্তা দিয়েছে নেপাল কংগ্রেস। মূলত কালি নদীর উত্তর-পূর্ব এলাকা বিতর্কিত। ভারতের দাবি; ওই এলাকার লিপুলেখ পাস উত্তরাখণ্ডের। পাশাপাশি লিম্পিয়াধুরা আর কালাপানি এলাকা সেই ১৯৬২ থেকে ভারতের সীমানার অংশ। বরাবর দাবি করেছে ভারত। কিন্তু সংশোধিত মানচিত্রে এই এলাকাগুলি নিজের বলে দাবি করছে নেপাল।