This Article is From Apr 05, 2019

দলের ‘সিদ্ধান্ত নিতে সমস্যা’ হওয়ায়’ প্রার্থী হবেন না সুমিত্রা

Lok Sabha Elections 2019 : এবারের নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া নিয়ে দলের প্রবীনদের সঙ্গে সংঘাতে জড়িয়েছে বিজেপি।

দলের ‘সিদ্ধান্ত নিতে সমস্যা’ হওয়ায়’  প্রার্থী হবেন না সুমিত্রা

নাম ঘোষণা না হওয়ায় শেষমেশ তিনি প্রার্থী হবেন কি না তা নিয়ে সন্দেহ দেখা গিয়েছিল।

হাইলাইটস

  • লোকসভা নির্বাচনে দাঁড়াচ্ছেন না বলে জানিয়ে দিলেন লোকসভার অধ্যক্ষ
  • বয়স ৭৫ বা তার বেশি হলে কাউকে প্রার্থী না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজেপি
  • ইন্দোর আসনের জন্য কারও নাম ঘোষণা করেনি বিজেপি
নিউ দিল্লি:

লোকসভা নির্বাচনে (Lok Sabha Elections 2019)  দাঁড়াচ্ছেন না বলে জানিয়ে দিলেন লোকসভার অধ্যক্ষ (Speaker Of Lok Sabha  ) সুমিত্রা মহজন। এবারের নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া নিয়ে দলের প্রবীনদের সঙ্গে সংঘাতে জড়িয়েছে বিজেপি। বয়স ৭৫ বা তার বেশি হলে কাউকে প্রার্থী না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পদ্ম শিবির। এই নিয়ম অনুযায়ী দলের বেশ কয়েকজন প্রবীণ নেতা এবার নির্বাচনের লড়াইতে থাকতে পারছেন না। এ নিয়ে কিছুটা অসন্তোষ ও দেখা দিয়েছে। এরই মধ্যে সুমিত্রা জানালেন তিনি ভোটে লড়ছেন না। তাঁর দপ্তর থেকে প্রকাশ হওয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে দলকে কঠিন পরীক্ষার হাত থেকে মুক্তি দিয়ে দিলেন সুমিত্রা। মধ্যপ্রদেশের প্রার্থী তালিকা ঘোষণার সময় ইন্দোর আসনের জন্য কারও  নাম ঘোষণা করেনি বিজেপি। এই আসন থেকেই লোকসভায় নির্বাচিত হয়ে আসছেন সুমিত্রা মহজন।

এনআরসি আর নাগরিকত্ব আইনকে ললিপপের মতো ব্যবহার করছেন মোদীঃ মমতা

সুমিত্রা নাম ঘোষণা না হওয়ায় শেষমেশ তিনি প্রার্থী হবেন কি না তা নিয়ে সন্দেহ দেখা গিয়েছিল। এবার সেই জল্পনার অবসান করলেন তিনি নিজেই। ওই বিবৃতিতে তিনি লিখেছেন বিজেপি জানায়নি ইন্দোর থেকে কে প্রার্থী হচ্ছে। সিদ্ধান্ত নিতে এত সমস্যা হচ্ছে কেন বুঝতে পারছি না।  আমার মনে হয় দল দ্বিধা করছে। এ নিয়ে দলের সঙ্গে আমি কথা বলেছিলাম। আর সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভার দলের  নেতাদের উপরেই ছেড়েছিলাম। এখন মনে হচ্ছে এরপরও বিজেপির নেতাদের মধ্যে সংশয় রয়ে গিয়েছে তাই আমি নিজেই জানালাম নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দিতা করছি না।

এখনই দিল্লির দপ্তর ছাড়তে হবে না ন্যাশনাল হেরাল্ডকেঃ সুপ্রিম কোর্ট

এ মাসেই ৭৬ বছর পূর্ণ করছেন বিজেপির এই আট বারের সাংসদ। এ সপ্তাহের শুরুতে তিনি বলেছিলেন,১৯৮৯ সালে যখন প্রথমবার প্রার্থী হই, তখন কোন আসন থেকে লড়ব সেকথা দলকে জানায়নি। দলই আমায় ইন্দোর থেকে লড়তে বলে। আমি কোনওদিন নিজের মনোনয়ন নিয়ে কোনও কথা বলিনি। আমার মনে  হয় দলের নেতারা কিছু ভাবনা চিন্তা করছেন। এ ধরনের কথা নিয়ে আলোচনা করার রীতি আমাদের দলে  নেই। কে প্রার্থী হবেন তা বিজেপির সংগঠন ঠিক করবে।        



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)