Chandrayaan 2: আগামী ১৪ দিন ধরে আমরা বিক্রম ল্যান্ডার খুঁজব, জানালেন ইসরো প্রধান

কে শিভান জানিয়েছেন, যখন বিক্রম ল্যান্ডার চাঁদের পৃষ্ঠ থেকে মাত্র ২.১ কিলোমিটার উপরে ছিল তখনই ত্রুটিযুক্ত পরিকল্পনার ফলে চূড়ান্ত যোগাযোগ শেষ হয়ে যায়।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
Chandrayaan 2: আগামী ১৪ দিন ধরে আমরা বিক্রম ল্যান্ডার খুঁজব, জানালেন ইসরো প্রধান

ISRO প্রধান কে শিভান জানিয়েছেন আগামী ১৪ দিন Chandrayaan 2 ল্যান্ডারকে খোঁজা হবে


নয়াদিল্লি: 

হাল ছেড়ো না বন্ধু! বেঙ্গালুরু নিবাসী বাঙালি বিজ্ঞানীদের হয়ত এখন মূল মন্ত্র সুমনের এই গানই। শেষ মুহূর্তে ল্যান্ডার বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ হারিয়ে যাওয়ায় এখনও অধরা চাঁদের নরম মাটিতে ভারতের পা দেওয়ার স্বপ্ন। তবে, স্বপ্ন সত্যি করার দৌড় অব্যহতই রইছে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। ল্যান্ডার ‘বিক্রম' (Vikram lander)-এর সঙ্গে আগামী ১৪ দিন ধরে যোগাযোগের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থার (Indian Space Research Organisation) চেয়ারম্যান কে শিভান 9chairman K Sivan)। শনিবার গভীর রাতে চাঁদের ল্যান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগ ছিন্ন হয়ে যাওয়ার পরে স্বাভাবিকভাবেই ভেঙে পড়েছিলেন এই বিজ্ঞানী।

গত ৬ দশকে মাত্র ৬০ শতাংশ চন্দ্রাভিযান সফল হয়েছে, জানাল নাসা

দূরদর্শনের সঙ্গে আলাপচারিতায় কে শিভান জানিয়েছেন, যখন বিক্রম ল্যান্ডার (Vikram lander) চাঁদের পৃষ্ঠ থেকে মাত্র ২.১ কিলোমিটার উপরে ছিল তখনই ত্রুটিযুক্ত পরিকল্পনার ফলে চূড়ান্ত যোগাযোগ শেষ হয়ে যায়। “শেষ অংশটি সঠিকভাবে কার্যকর করা হয়নি। সেই পর্যায়েই ল্যান্ডারের সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় এবং পরে আর আমরা যোগাযোগ স্থাপন করতে পারিনি,” বলেন শিভান।

গভীর রাতে ১.৫৫ নাগাদ ল্যান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগ ছিহ্ন যাওয়ার কয়েক মিনিট পরে এই বিজ্ঞানী ঘোষণা করেন, “বিক্রম ল্যান্ডারের উত্থান পরিকল্পনা অনুযায়ীই হয়েছে এবং ২.১ কিলোমিটার উচ্চতা পর্যন্ত স্বাভাবিকভাবেই কাজ করছিল ল্যান্ডার। পরবর্তীতে ল্যান্ডার থেকে গ্রাউন্ড স্টেশনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। তথ্য বিশ্লেষণ করা হচ্ছে।” রাত তখন ২.১৬, বেঙ্গালুরুর কেন্দ্রে (ISRO) উৎসুক চোখে অপেক্ষা করে থাকা সমস্ত কর্মী ও বিজ্ঞানীদের সামনে এই ঘোষণা করেন শিভান। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Prime Minister Narendra Modi) অবশ্য আস্থা হারাননি। বেশ কয়েকবার বিজ্ঞানীর পিঠে চাপড় দেন মোদি। 

শেষ পর্যন্ত আর আবেগ ধরে রাখা গেল না, আলিঙ্গনের সাথে সাথে চোখে এল জল

দূরদর্শনের সঙ্গে শনিবার কথোপকথনের সময় কে শিভান প্রধানমন্ত্রী মোদিকে ‘অনুপ্রেরণা ও সমর্থনের উত্স' হিসাবে বর্ণনা করে বলেন, “তাঁর ভাষণটি আমাদের অনুপ্রেরণা দিয়েছিল। তাঁর বক্তৃতায়, আমি যে বিশেষ অংশটি লক্ষ্য করেছি তা হ'ল: বিজ্ঞান ফলাফলের জন্য নয় বরং পরীক্ষা করার জন্যই এবং পরীক্ষাগুলিই চূড়ান্ত ফলাফলের দিকে পরিচালিত করবে।”



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................