কর্তারপুর করিডর চালু করতে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত

পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এর উদ্বোধন‌ করবেন ৯ নভেম্বর। গুরু নানকের ৫৫০তম জন্মবার্ষিকীর তিন দিন আগে।

কর্তারপুর করিডর চালু করতে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত

এই চুক্তি অনুযায়ী, তীর্থযাত্রীদের সকালে গুরুদ্বার দরবার সাহিব দর্শন করে সন্ধ্যায় ফিরে যেতে হবে।

গুরদাসপুর:

পাকিস্তানের (Pakistan) সঙ্গে মৌ চুক্তি স্বাক্ষর করল ভারত। কর্তারপুর করিডর (Kartarpur Corridor) দিয়ে ভারতীয় শিখদের (Indian Sikh Pilgrims) পাকিস্তানে শিখ তীর্থক্ষেত্র দরবার সাহিবে যাওয়ার জন্য এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হল ‘জিরো পয়েন্ট'-এ। আন্তর্জাতিক সীমান্তরেখা থেকে মাত্র চার কিমি দূরে রয়েছে দরবার সাহিব। কর্তারপুর করিডরের মাধ্যমে পাঞ্জাবে অবস্থিত দেরা বাবা নানক শিরিনের দরবার সাহিবকে সংযুক্ত করা হয়েছে। পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশে নরোয়াল জেলায় অবস্থিত এই শিখ ধর্মক্ষেত্র। বিশ্বাস অনুযায়ী, এখানেই শিখ ধর্মের প্রবর্তক গুরু নানক দেব জীবনের শেষ ১৮ বছর কাটিয়েছিলেন। মৌ চুক্তি স্বাক্ষরের পরে যুগ্ম সচিব সিএল দাস বলেন, ‘‘ভারতীয় বংশোদ্ভূত সমস্ত ভারতীয় তীর্থযাত্রীরা এই কর্তারপুর করিডর ব্যবহার করতে পারবেন। এই ভ্রমণ হবে ভিসা ছাড়াই। কেবল বৈধ পাসপোর্ট থাকলেই হবে।''

ছাত্রীকে জ্যান্ত পুড়িয়ে মারার নারকীয় ঘটনায় ১৬ জনের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিল বাংলাদেশ

শীর্ষ আধিকারিক আরও বলেন, ভারতের তরফে সমস্ত পরিকাঠামো যাক মধ্যে যাত্রীদের যাওয়াক টার্মিনাল ও হাইওয়েও রয়েছে, সেগুলিও প্রায় তৈরি হয়ে গিয়েছে। এবং উদ্বোধনের আগেই সম্পূর্ণ হয়ে যাবে।

তিনি আরও জানান, ভোর থেকে সন্ধে পর্যন্ত ওই করিডর খোলা থাকবে। যাঁরা সকালে আসবেন তাঁদের একই দিনে ফিরে যেতে হবে। সারা বছরই এই করিডর খোলা থাকবে। তবে কয়েকটি বিশেষ দিনে এটি বন্ধ থাকবে। তবে সেগুলি আগে জানিয়ে দেওয়া হবে।

"দুর্দান্ত উদ্যোগ": কেন্দ্রের স্বাস্থ্য প্রকল্পের প্রশংসায় সলমন খুরশিদ

এর আগে ২৩ অক্টোবর স্বাক্ষরের দিন ঠিক করা হয় দুই দেশের মধ্যে। ৯ নভেম্বর থেকে ওই তীর্থক্ষেত্র খুলে দেওয়া হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

এই চুক্তি অনুযায়ী, তীর্থযাত্রীদের সকালে গুরুদ্বার দরবার সাহিব দর্শন করে সন্ধ্যায় ফিরে যেতে হবে। প্রতিদিন অন্তত ৫,০০০ তীর্থযাত্রীকে এখানে আসার অনুমতি দেওয়া হবে।

তবে চুক্তির একটি বিষয়ে ভারত একমত হয়নি। তীর্থযাত্রীদের থেকে ২০ মার্কিন ডলার করে পরিষেবা কর ধার্য করেছে পাকিস্তান। ভারত এতে সায় দেয়নি। এই মতের বিভিন্নতার জন্য শেষ পর্যন্ত চুক্তি স্বাক্ষরিত হতে সামান্য বিলম্ব হল।

পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি জানিয়েছেন, পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এর উদ্বোধন‌ করবেন ৯ নভেম্বর। গুরু নানকের ৫৫০তম জন্মবার্ষিকীর তিন দিন আগে।

More News