This Article is From Feb 25, 2020

উত্তর-পূর্ব দিল্লিতে কীভাবে ছড়াল হিংসা, জেনে নিন ভিতরের গল্প

Delhi: উত্তেজনা ছড়ায় উত্তর-পূর্ব দিল্লির মৌজপুর, ভজনপুরা এবং চাঁদবাগ অঞ্চলে, কয়েক ডজন গাড়ি, পেট্রোল পাম্প এবং কয়েকটি বাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়

CAA Clashes: সোমবার থেকেই ব্যাপক হিংসা ছড়ায় উত্তর পূর্ব দিল্লিতে

হাইলাইটস

  • উত্তর-পূর্ব দিল্লির মৌজপুরে সিএএ নিয়ে ব্যাপক হিংসা ছড়ায়
  • রবিবার থেকে ছড়ায় হিংসা, সোমবারও চলে হানাহানি, মঙ্গলবারও থমথমে এলাকা
  • জাফরাবাদ মেট্রো স্টেশনের সামনে অবস্থান বিক্ষোভে সিএএ বিরোধীরা
নয়া দিল্লি:

অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি উত্তর-পূর্ব দিল্লিতে। গত দুদিন ধরে সেখানে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের (CAA) বিরোধিতায় বিক্ষোভকে কেন্দ্র করে চরম উত্তেজনাকর পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। পাথর ছোঁড়া, যানবাহনে অগ্নিসংযোগ, এবং দোকানে দোকানে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার ঘটনায় রীতিমতো রণক্ষেত্রে পরিণত হয় রাজধানীর (Delhi) বিস্তীর্ণ এলাকা। সোমবারের ওই ভয়ঙ্কর হিংসার (CAA Clashes) ঘটনায় নিহত হন ১ পুলিশকর্মী সহ মোট ৭ জন এবং আহত হন বহু মানুষ। মঙ্গলবারও উত্তর-পূর্ব দিল্লিতে উত্তেজনা বজায় রয়েছে, চলছে অবাধে লুটপাট। গত শনিবার রাত থেকেই এই ঘটনার সূত্রপাত। জাফরাবাদ মেট্রো স্টেশনের কাছে শাহিনবাগের আদলে কয়েকশো মহিলা সেই দিন সিএএর বিরুদ্ধে ধরনায় বসেন। ওই অবস্থান বিক্ষোভের কারণে অবরুদ্ধ হয়ে পড়ে ওই রাস্তা। পুলিশ বিক্ষোভকারীদের কাছে আন্দোলন প্রত্যাহার করার জন্য আবেদন করা সত্ত্বেও তাতে কোনও ফল মেলেনি।

ওই বিক্ষোভ চলাকালীন বিজেপি নেতা কপিল মিশ্র পথ অবরোধের বিরুদ্ধে একটি ভিডিও পোস্ট করে সিএএ সমর্থকদের রবিবার বিকেল ৩টে নাগাদ মৌজপুর চৌকে আসতে বলেন। এরপরেই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। বিকেল সাড়ে ৪টে নাগাদ জাফরাবাদ এলাকায় সিএএ বিরোধী এবং সিএএ সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। দু'পক্ষের থেকেই একে অপরকে লক্ষ্য করে শুরু হয় পাথর ছোঁড়া। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বাধ্য হয়ে কাঁদানে গ্যাস ছুঁড়তে হয় পুলিশকে।

উত্তর-পূর্ব দিল্লিতে সিএএ সংঘর্ষে ৭ জনের মৃত্যু, ফের বৈঠকে অমিত শাহ: ১০ তথ্য

রবিবার সন্ধে নাগাদ কপিল মিশ্র আরও একটি ভিডিও টুইট করেন, যেখানে তাঁকে উত্তর-পূর্ব দিল্লির ডিসিপি ভিসি প্রকাশের সঙ্গে দেখা যায়। কপিল হুমকি দিয়ে বলেন যে তিনি এবং তাঁর সমর্থকরা ডোনাল্ড ট্রাম্পের সফর পর্যন্ত অপেক্ষা করছেন এবং তিনি চলে যাওয়ার পরেও দিল্লি পুলিশের কোনও বারণ শুনবেন না তাঁরা। সিএএ বিরোধীরা যে রাস্তা আটকে রেখেছেন তা যেন-তেন-প্রকারেণ খোলার ব্যবস্থা করবেন তিনি। 

70tdtjc

একটি ছবিতে দেখা যাচ্ছে দিল্লির মৌজপুরে পুলিশের সামনেই বন্দুক হাতে গুলি চালাচ্ছে এই ব্যক্তি

এরপর রবিবার রাতে প্রকাশিত আরেকটি ভিডিওতে দেখা যায়, বেশ কিছু লোক 'জয় শ্রী রাম' স্লোগান দিয়ে একটি ট্রাকে করে ইট বয়ে নিয়ে চলেছে। সোমবার সকাল থেকেই ওই অঞ্চলগুলির পরিস্থিতি উত্তেজনাপ্রবণ হয়ে ওঠে এবং দেখতে দেখতে ছড়িয়ে পড়ে মারাত্মক হিংসা। মৌজপুরে এক ব্যক্তিকে পুলিশের সামনেই গুলি চালাতে দেখা যায়। তাঁর ছবি ও ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল। ওই ব্যক্তির নাম শাহরুখ, জানিয়েছে পুলিশ। তাঁকে গ্রেফতার করে পুলিশি হেফাজতে নেওয়া হয়েছে বলে খবর।

"বাবার কী দোষ ছিল?" প্রশ্ন দিল্লির সিএএ হিংসার বলি পুলিশ কর্মীর সন্তানদের

এই ঘটনার পর থেকেই ব্যাপক হিংসা শুরু হয় গোটা এলাকা জুড়ে। যার জেরে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে উত্তর দিল্লির জনজীবন। দু'পক্ষের কেউ কাউকে ছেড়ে কথা বলবে না, তাই এখনও থমথমে ওই এলাকাগুলি। তবে এখনও মৌজপুর সহ উত্তর-পূর্ব দিল্লির বিভিন্ন অঞ্চল থেকে পাথর ছোঁড়ার খবর মিলেছে, দমকল বিভাগ এখনও আপদকালীন বার্তা বা এসওএস কল পাচ্ছে। সংঘর্ষ চলাকালীন দমকলের ইঞ্জিনে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় এবং বিক্ষোভকারীদের ছোঁড়া পাথরে আহত হন ৩ দমকলকর্মী । মৌজপুরে, মঙ্গলবার সকালে একটি ই-রিকশায় চলা যাত্রীদের পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে এবং তাদের মূল্যবান জিনিসপত্রও লুট করা হয়েছে বলে অভিযোগ। দিল্লি পুলিশ এক বিবৃতিতে বলেছে, "পরিস্থিতি অত্যন্ত উত্তেজনাপূর্ণ। আমরা উত্তর-পূর্ব দিল্লি থেকে ক্রমাগত সহিংসতার খবর পাচ্ছি।"