This Article is From May 09, 2020

পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে পর্যাপ্ত ট্রেনের ব্যবস্থা না করে "অবিচার" করছেন মমতা: অমিত শাহ

Coronavirus: লকডাউনের মাঝে দুই লক্ষাধিক আটকে পড়া পরিযায়ী শ্রমিকদের তাঁদের নিজেদের রাজ্যে ফিরতে সহায়তা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার, দাবি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে পর্যাপ্ত ট্রেনের ব্যবস্থা না করে

West Bengal: পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানোর জন্যে ট্রেনের ব্যবস্থা করা নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি লিখলেন অমিত শাহ

হাইলাইটস

  • শ্রমিকদের বাংলায় ফেরানো নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি অমিত শাহের
  • পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে মাত্র দুটি ট্রেনের ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার
  • পর্যাপ্ত ট্রেনের ব্যবস্থা না করলে বাংলার শ্রমিকদের দুর্দশা চরমে পৌঁছবে
নয়া দিল্লি:

করোনা ভাইরাসের (Coronavirus) সংক্রমণকে ঠেকিয়ে রাখতে দেশ জুড়ে লকডাউন জারি করেছে কেন্দ্র। আর এই লকডাউনে সমস্ত গণপরিবহণ বন্ধ হয়ে যাওয়ার ফলে অসংখ্য পরিযায়ী শ্রমিক ও ভিনরাজ্যের বাসিন্দারা বিভিন্ন জায়গায় আটকে পড়েছেন। ওই দুর্দশাগ্রস্তদের ফেরাতেই গত ১ মে থেকে শ্রমিক ট্রেন চালু করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। ওই বিশেষ ট্রেন চালিয়ে বিভিন্ন রাজ্যে আটকে পড়া মানুষজনকে তাঁদের নিজেদের রাজ্যে ফেরানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এক্ষেত্রে কেন্দ্র জানিয়েছে, রাজ্য সরকারগুলির সঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারের পারস্পরিক সহযোগিতায় ওই আয়োজন করা হয়েছে। পরিযায়ী শ্রমিকদের পরিবহণের জন্য পরিচালিত বিশেষ ট্রেনের ক্ষেত্রে রেলের ভাড়া বাবদ ৮৫ শতাংশ ভর্তুকি দেবে কেন্দ্র এবং বাকি ১৫ শতাংশ রাজ্য সরকারগুলোকে দিতে হবে, দেওয়া হয় এই প্রস্তাব। সেই প্রস্তাবে সায় দিয়েই বিভিন্ন রাজ্যের সরকার তাঁদের বাসিন্দাদের ফিরিয়ে নেওয়ার উদ্যোগ নিলেও পশ্চিমবঙ্গ (West Bengal) সরকারের তরফে মাত্র দুটো ট্রেনের ব্যবস্থা করা ছাড়া আর তেমন কোনও উদ্যোগ নেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ কেন্দ্রের। শনিবার এই বিষয় নিয়েই কেন্দ্রীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) চিঠি লিখলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah)।

ওই চিঠিতে অমিত শাহ বলেছেন, কেন্দ্র আটকে পড়া পরিযায়ী শ্রমিকদের নিজেদের রাজ্যে ফেরানোর বিষয়ে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের থেকে প্রত্যাশিত পর্যায়ে সমর্থন পাচ্ছে না। রাজ্য সরকারের কারণেই ভারতীয় রেল পরিচালিত বিশেষ "শ্রমিক ট্রেন" সে রাজ্যে পৌঁছতে পারছে না, এমন অভিযোগও তোলেন তিনি। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের মতে এরকম করে আসলে রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকদের সঙ্গে "অবিচার" করছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।

রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে আরও ৯ জনের মৃত্যু, মোট মৃতের সংখ্যা ৮৮

লকডাউনের মাঝে বিভিন্ন রাজ্যে আটকে পড়া শ্রমিকদের মধ্যে এখনও পর্যন্ত দুই লক্ষাধিক পরিযায়ী শ্রমিককে তাঁদের নিজেদের রাজ্যে ফিরতে সহায়তা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার, দাবি করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

অমিত শাহ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠিতে লিখেছেন, "... আমরা পশ্চিমবঙ্গ থেকে প্রত্যাশিত সমর্থন পাচ্ছি না। রাজ্য সরকার ট্রেনগুলোকে পৌঁছতে দিচ্ছে না। এটা পশ্চিমবঙ্গের পরিযায়ী শ্রমিকদের প্রতি অবিচার করা হচ্ছে। এর ফলে আরও দুর্দশার মধ্যে পড়তে হচ্ছে বাংলার শ্রমিকদের"।

দেশে ৬০,০০০ এর কাছাকাছি মানুষ করোনা আক্রান্ত, ১,৯৮১ জনের মৃত্যু

এর আগে কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরীও অভিযোগ করেছিলেন যে রাজ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরাতে মাত্র দুটি ট্রেনের ব্যবস্থা করার বরাত দিয়েছে ভারতীয় রেলকে। 

চলতি সপ্তাহেই রাজস্থানের আজমির থেকে বাংলার শ্রমিরদের নিয়ে একটি ট্রেন ছেড়ে আসানসোল হয়ে দুর্গাপুরের উদ্দেশে যাত্রা করে, ট্রেনটিতে মোট ১,২০০ জন শ্রমিক রয়েছেন।

কিছুদিন আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইট করে জানান যে দ্বিতীয় আরেকটি ট্রেন কেরলে আটকে পড়া বাংলার শ্রমিকদের ঘরে ফিরিয়ে আনবে।