''মোটা'' বলে বিয়ে ভেঙেছিল, সেই পাত্রীই সেরা সুন্দরী!

প্রত্যাখ্যান বিঁধেছিল তাঁকে। তিন বছর ধরে তিলে তিলে তিলোত্তমা হয়ে অবশেষে অপমানের জবাব দিলেন Jen Atkin।

''মোটা'' বলে বিয়ে ভেঙেছিল, সেই পাত্রীই সেরা সুন্দরী!

২ বছরের পরিশ্রম সার্থক জেনের

হাইলাইটস

  • বিয়ে ভেঙেছে মোটা হলে
  • তিন বছর পরে তিনিই জিতলেন সেরা সুন্দরীর খেতাব!
  • জেন এটকিনের ছবি সোশ্যালে ভাইরাল
নয়া দিল্লি:

তিনি বড্ড মোটা! এই দোষে তিন বছর আগে গিয়ে ভেঙে দিয়েছিলেন প্রেমিক। সেই প্রত্যাখ্যান বিঁধেছিল তাঁকে। তিন বছর ধরে তিলে তিলে তিলোত্তমা হয়ে অবশেষে অপমানের জবাব দিলেন Jen Atkin। সম্প্রতি, তিনিই জিতে নিলেন Great Britain সুন্দরীর শিরোপা। তিন বছর আগে নাকি প্রচণ্ড জাঙ্ক ফুড খেতে ভালোবাসতেন জেন। সুযোগ পেলেই গপগপিয়ে খেতেনও। ফলাফল, স্বাভাবিকের থেকে অনেক বেশি ওজন। যা অবশ্যই দৃষ্টিকটু এবং সুস্থতারও লক্ষ্মণ নয়। তিন বছর আগে নাকি প্রচণ্ড জাঙ্ক ফুড খেতে ভালোবাসতেন জেন। সুযোগ পেলেই গপগপিয়ে খেতেনও। ফলাফল, স্বাভাবিকের থেকে অনেব বেশি ওজন। যা অবশ্যই দৃষ্টিকটু এবং সুস্থতারও লক্ষ্মণ নয়। যার ফলে সম্পর্ক এবং বিয়ে--দুটোই ভাঙে তাঁর।

এবছর বাড়বে গরমের দাপট, আগাম সতর্কবার্তা হাওয়া অফিসের

এই আঘাত বিচলিত করেছিল জেন আটকিনকে। সেই শুরু। ওজন ঝরাতে জিমে ভর্তি হন। ডায়েট মেনে শুরু করেন খাওয়াদাওয়া। ২ বছরের অক্লান্ত পরিশ্রমের পর আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে নিজেই চিনতে পারেননি জেন। তারপর নাম দেন গ্রেট ব্রিটেন সৌন্দর্য প্রতিযোগিতায়। ছিনিয়ে নেন সেরার সেরা মুকুট।

Google Doodle: 'অ্যালিস ইন ওয়ান্ডারল্যান্ড' খ্যাত স্যার টেনিয়েলের জন্মবার্ষিকী

ইংলন্ডের লেস্টার শহরে অনুষ্ঠিত এই প্রতিযোগিতায় জিতে জেনার উচ্ছ্বসিত মন্তব্য, "আমি এখনও আমার জয় নিয়ে অবাক হই। ভাষায় বোঝাতে পারছি না আমি কত খুশি। আজ যেন সব অপমানের জবাব দেওয়া হল।'' জেন আরও বলেন, "মিস গ্রেট ব্রিটেন শিরোপা জয়ের সঙ্গে সঙ্গে আমার জীবন অনেকটাই বদলেছে। যদিও আমি ভেতরে ভেতরে একই আছি। আমার জেদই আমাকে আজ এই জায়গায় পৌঁছে দিয়েছে।" 

Click for more trending news