ফেসবুক ও ঘৃণামূলক মন্তব্য, এই বিতর্কে উত্তপ্ত জাতীয় রাজনীতি, দেখুন ১০ তথ্য

নাম প্রকাশ না করে ফেসবুকের এক কর্মী ওই সংবাদপত্রকে বলেছে, তেলেঙ্গানার এক বিজেপি বিধায়কের করা ক্রমাগত দ্বেষমূলক মন্তব্যকে সমর্থন করে গিয়েছে ফেসবুক ইন্ডিয়ার এক আধিকারিক

ফেসবুক ও ঘৃণামূলক মন্তব্য, এই বিতর্কে উত্তপ্ত জাতীয় রাজনীতি, দেখুন ১০ তথ্য

বিজেপির প্রতি পক্ষপাতদুষ্ট ফেসবুক। এমন দাবি সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে করেছ ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল

হাইলাইটস

  • ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের খবর ঘিরে বিজেপি-কংগ্রেস তরজা তুঙ্গে
  • গত সপ্তাহে বিজেপির প্রতি ফেসবুক ইন্ডিয়ার পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ তোলা হয়েছিল
  • অভিযোগের তির সংস্থার এক আধিকারিকের দিকে
নয়াদিল্লি: প্রাণ সংশয়ের আশঙ্কায় দিল্লিতে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করলেন এক ফেসবুক আধিকারিক। সেই অভিযোগের অন্তত পাঁচ জনের নাম উল্লেখ আছে।  সম্প্রতি ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে ফেসবুকে বিজেপির প্রতি পক্ষপাত দুষ্টের অভিযোগে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছিল। সেই প্রতিবেদনে এই আধিকারিকের নাম উল্লেখ রয়েছে। সেই থেকে মৃত্যুভয় গ্রাস করেছে ফেসবুক ইন্ডিয়ার ওই মহিলা আধিকারিককে। এমনটাই পুলিশ সূত্রে খবর।  এদিকে, সোমবার দায়ের করা ওই অভিযোগে অভিযুক্ত পাঁচজনের গ্রেফতারের দাবিতে সরব হয়েছেন ওই মহিলা আধিকারিক

১০ তথ্যে দেখুন এই বিতর্ক:

  1.  ঘৃণামূলক মন্তব্য ও বিষয় যেগুলো হিংসায় মদত দেয়, সেগুলোকে আমরা নিষিদ্ধ ঘোষণা করি। সেখানে কোনও রাজনৈতিক অবস্থান বা দলের স্বীকৃতি দেখা হয় না। এমন বিবৃতি দিয়েছে ফেসবুকের এক মুখপাত্র 
     

  2. ফেসবুকের এক মহিলা আধিকারিক আঁখি দাস প্রাণ সংশয়ের আশঙ্কায় দিল্লি পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেছেন
     

  3.  মার্কিন ওই পত্রিকার সাম্প্রতিক প্রতিবেদন ঘিরে বিজেপি ও কংগ্রেসের বাকযুদ্ধ তুঙ্গে
     

  4. রাহুল গান্ধি টুইটে লিখেছেন, "ভারতে ফেসবুক ও হোয়্যাটসঅ্যাপ নিয়ন্ত্রণ করে বিজেপি এবং আরএসএস। সেই নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে ভুল খবর ও বিদ্বেষ ছড়িয়ে ভোটারদের অনুপ্রাণিত করে তারা। অবশেষে মার্কিন সংবাদমাধ্যম এর বিরুদ্ধে সরব হয়েছে।"
     

  5.   কংগ্রেসকে হেরো আখ্যা দিয়ে অন্যের দিকে আঙুল না তোলার পরামর্শ দিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশংকর প্রসাদ। এনেছেন কেমব্রিজ অ্যানালিটিকা প্রসঙ্গও 
     

  6. ২০১৬ সালে মার্কিন ফেসবুক ব্যবহারকারীদের তথ্য খতিয়ে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে নির্বাচনে জিততে সাহায্য করেছিল কেমব্রিজ অ্যানালিটিকার বিরুদ্ধে। একই ভাবে  লন্ডনস্থিত ওই সংস্থার সঙ্গে যোগসাজশ করে তথ্য খতিয়ে দেখার অভিযোগে কংগ্রেসকে ২০১৯ সালে কাঠগছড়ায় তুলেছিল বিজেপি
     

  7.  তবে, ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের সাম্প্রতিক প্রতিবেদনের ওপর তদন্তের দাবি তুলেছে কংগ্রেস। যৌথ সংসদীয় কমিটির তদারকিতে এই তদন্ত চেয়েছেলের তারা>
     

  8. এই বিষয়ে বিজেপি সাংসদ তেজস্বী সূর্যর টুইট, "অনেক জাতীয়তাবাদী, হিন্দুত্ববাদীদের কণ্ঠরোধ করছে ফেসবুক। তথ্য-প্রযুক্তি সংক্রান্ত সংসদীয় কমিটির সদস্য হিসেবে আমি বিষয়টা তুলবো।"
     

  9.  মার্কিন ওই পত্রিকার সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে দাবি, ক্রমাগত বিজেপি কর্মীদের ফেসবুকে ছড়ানো বিদ্বেষ ও ঘৃণা সংস্থা উপেক্ষা করছে। একটা অদ্ভূত পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করছে। সংস্থার ভারতীয় শাখার প্রধানের বক্তব্য, এই ধরনের মন্তব্যর বিরুদ্ধাচরণ সংস্থার বাণিজ্যিক অগ্রগতির প্রতিবন্ধক।
     

  10.  নাম প্রকাশ না করে ফেসবুকের এক কর্মী ওই সংবাদপত্রকে বলেছে, তেলেঙ্গানার এক বিজেপি বিধায়কের করা ক্রমাগত দ্বেষমূলক মন্তব্যকে সমর্থন করে গিয়েছে ফেসবুক ইন্ডিয়ার এক আধিকারিক


Newsbeep