ব্যাগে ভরে চিতাবাঘের ছানা পাচার! উদ্ধার করে শাবককে দুধ খাওয়ালেন কাস্টমস কর্মীরা

ব্যাগ থেকে একটা মৃদু কুঁই কুঁই শব্দ পেয়েই তাঁদের সন্দেহ হয়। জিজ্ঞাসা করলে থতমত খেয়ে যান ওই ব্যক্তি, তারপরেই তাঁর ট্রলি ব্যাগটি খোলা হয়। দেখা যায় একটি গোলাপী ঝুড়ির মধ্যে রয়েছে চিতাবাঘের ছানাটি।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

চিতা শাবকটিকে চেন্নাইয়ের আরিগনার আন্না জুওলজিকাল পার্কে স্থানান্তরিত করা হয়


চেন্নাই: 

বিমানের মধ্যে ব্যাগে ভরে চিতাবাঘের বাচ্চা পাচার করতে চলেছিলেন এক ব্যক্তি। চেন্নাই বিমানবন্দরে কাস্টমস কর্তারা ওই ব্যাংকক যাত্রীর চেক-ইনের সময় তাঁর ব্যাগের ভেতর থেকে এক মাসের একটি চিতাবাঘের বাচ্চা উদ্ধার করেন।

কাস্টমস কমিশনার রাজন চৌধুরী বলেন, "কুয়ালালামপুরে কাজ করেন বছর ৪৫ এর এই ব্যক্তি আদতে চেন্নাই নিবাসী, নাম কাজা মোঈদিনকে। তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এবং তদন্ত চলছে।" পশু চিকিত্সকদের পরীক্ষার শেষে, চিতা শাবকটিকে চেন্নাইয়ের আরিগনার আন্না জুওলজিকাল পার্কে স্থানান্তরিত করা হয়।

কংগ্রেসের ‘আপনি বাত রাহুলকে সাথ', নৈশভোজে পড়ুয়াদের সঙ্গে আলোচনায় রাহুল

কাস্টমস কর্তাদের প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, ফিডিং বোতলে করে ক্লান্ত চিতার বাচ্চাটিকে দুধ খাওয়ানো হচ্ছে। আরেকটি ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে সোফা উপর দিব্বি খেলে বেড়াচ্ছে এই ছানাটি।

বিমানের গোয়েন্দা কর্মকর্তারা বলছেন, লাগেজ সংগ্রহের পরেই ওই জায়গা ছেড়ে দ্রুত পালিয়ে যাচ্ছিল লোকটি। তাঁর ব্যাগ থেকে একটা মৃদু কুঁই কুঁই শব্দ পেয়েই তাঁদের সন্দেহ হয়। জিজ্ঞাসা করলে থতমত খেয়ে যান ওই ব্যক্তি, তারপরেই তাঁর ট্রলি ব্যাগটি খোলা হয়। দেখা যায় একটি গোলাপী ঝুড়ির মধ্যে রয়েছে চিতাবাঘের ছানাটি।

বিহারে বেলাইন সীমাঞ্চল এক্সপ্রেস, ঘুমের মধ্যেই প্রাণ হারালেন ৭, আহত কমপক্ষে ১৪

কর্মকর্তারা জানান যে, এই ব্যক্তি থাই এয়ারওয়েজের ফ্লাইটে এসেছিলেন এবং তাঁদের সন্দেহ অন্যের হয়ে পশু পাচার করেন তিনি। এক কর্তা বলেন, “ওই ব্যক্তি জানান, চেন্নাই বিমানবন্দরে কাউকে শাবকটি তাঁকে তুলে দিতে হবে। আমরা অপেক্ষাও করেছিলাম, কিন্তু কেউ আসেনি।” ওই ব্যক্তিকে পরবর্তী তদন্তের জন্য বন দফতরের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................