চিনের বাধায় গ্লোবাল টেররিস্ট হল না মাসুদ, গোটা ঘটনায় হতাশ ভারত, দশটি তথ্য

জইশ –ই – মহম্মদের প্রধান মাসুদ আজাহারকে গ্লোবাল টেররিস্ট ঘোষণার ক্ষেত্রে আবার বাধা হয়ে দাঁড়াল চিন।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

জইশ-ই-মহম্মদের প্রধান মাসুদ আজহার। (ফাইল)

নিউ দিল্লি:  জইশ –ই – মহম্মদের (Jaish-e-Mohammad ) প্রধান মাসুদ আজাহারকে(Masood Azahar) গ্লোবাল টেররিস্ট (Global Terrorist) ঘোষণার ক্ষেত্রে আবার বাধা হয়ে দাঁড়াল চিন। এ নিয়ে পর পর চার বার বাধা দিল বেজিং। কাশ্মীরে জঙ্গি হানার(Pulwama Terror attack) পর আমেরিকা ব্রিটেন এবং ফ্রান্স মাসুদকে এই তকমা দিতে চেয়েছিল। কিন্ত এবারও ভেটো দিন চিন। গোটা ঘটনাটিকে দুর্ভাগ্যজনক হিসেবে দেখছে ভারত।
জেনে নিন ১০টি তথ্যঃ
  1.  হাতে ছিল আর মাত্র এক ঘণ্টা। ওই টুকু সময় কেটে গেলেই মাসুদ গ্লোবাল টেররিস্ট তকমা পেয়ে যেত।  কিন্তু চিন  রাষ্ট্রসঙ্ঘে জানাল সিদ্ধান্ত নিতে সময় লাগবে। আর তাই এবারও পার পেয়ে গেল জইশ প্রধান। 
  2.  গত ২৭ ফেব্রুয়ারি রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদে তিন দেশের আবেদন জমা পড়ে। তা নিয়ে চর্চার পর বুধবার সিদ্ধান্ত  নেওয়ার  কথা ছিল পরিষদের।
  3. এই তকমা পেয়ে গেলে  সন্ত্রাসবাদী কাজ কর্ম চালাতে সমস্যা হত মাসুদের। কোথাও যাওয়াত করতে সমস্যা হত,  বিভিন্ন ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে  রাখা টাকা থেকে  শুরু করে  অন্য সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত হয়ে যেত। 
  4. ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রক জানিয়েছে একটি সদস্য সময় নেওয়ায় এবারও মাসুদকে  গ্লোবাল টেররিস্ট  ঘোষণা করা যায়নি। 
  5.  মন্ত্রক বলেছে গোটা ঘটনায় আমরা হতাশ। এর ফলে পুলওয়ামার  জঙ্গি  হানার দায় নেওয়া  জইশ প্রধান মাসুদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা করা গেল না। 
  6. ২০০১ সালে  জইশ-ই- মহম্মদকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে রাষ্ট্রসঙ্ঘ। তবে  ২০০৮ সালে মুম্বই হামলার পর থেকে  ভারত মাসুদকে গ্লোবাল টেররিস্ট হিসেবে চিহ্নিত করতে চায়। 
  7. নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচটি সদস্য দেশ ভেটো দিতে পারে। সেই তালিকায় আছে চিন। এর আগে আরও তিন বার ভেটো দিয়েছে তারা। ২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে একই কাজ  করে বেজিং। সেবার  পাঠানকোট বায়ুসেনা ঘাঁটিতে হানা  দেয় জইশ। তারপর ফের নিজেদের দাবি নিয়ে সরব হয়  দিল্লি। কিন্তু সেবারও  চিন বাধা দেয়। বছর তিনেক বাদে ঘটল সেই ঘটনাই।  
  8. ভেটো দেওয়ার আগে  নিজেদের অবস্থান সম্পর্কে ইঙ্গিত দিয়েই রেখেছিল চিন।
  9.  জইশ ভারতে একাধিক জঙ্গি হামলা করেছে। সংসদ ভবনে আঘাত হানা থেকে শুরু করে পাঠানকোট- তালিকাটা বেশ বড়। এই সংগঠনের মাথা মাসুদ আজাহার।  
  10. ঠিক এক মাস আগে কাশ্মীরে হামলা হয়। সেই জঙ্গি হামলার দায় স্বীকার করে জইশ     

 





পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

অধুনা

Highlights

1
আজাহারকে গ্লোবাল টেররিস্ট ঘোষণার ক্ষেত্রে আবার বাধা হয়ে দাঁড়াল চিন
2
তকমা পেয়ে গেলে সন্ত্রাসবাদী কাজ কর্ম চালাতে সমস্যা হত মাসুদের
3
২০০১ সালে জইশ-ই- মহম্মদকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে রাষ্ট্রসঙ্ঘ

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................