চার শহরে রেকর্ড তাপমাত্রা, সবচেয়ে ভয়ানক তাপপ্রবাহের সাক্ষী দেশ

সবথেকে ভয়ানক তাপপ্রবাহের সাক্ষী দেশ। উত্তর ভারতের চারটি শহরের তাপমাত্রা রেকর্ড ছুঁয়েছে।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
চার শহরে রেকর্ড তাপমাত্রা, সবচেয়ে ভয়ানক তাপপ্রবাহের সাক্ষী দেশ

বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, বিশ্বব্যাপী পরিবেশের পরিবর্তনের চিহ্ন এটা। ফাইল চিত্র।


নয়াদিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. সবথেকে ভয়ানক তাপপ্রবাহের সাক্ষী দেশ।
  2. উত্তর ভারতের চারটি শহরের তাপমাত্রা রেকর্ড ছুঁয়েছে।
  3. গত কয়েক বছরে ঘনঘন তাপপ্রবাহের দেখা মিলেছে।

দেশজুড়ে (India) গরমের দাপট। সবথেকে ভয়ানক তাপপ্রবাহের (Heat wave) সাক্ষী দেশ। উত্তর ভারতের (North India) চারটি শহরের তাপমাত্রা রেকর্ড ছুঁয়েছে। এই চারটি শহর হল নয়াদিল্লি, রাজস্থানের চুরু, উত্তরপ্রদেশের বান্দা ও এলাহাবাদ। এই শহরগুলিতে পারদ চড়েছে ৪৮ ডিগ্রি বা তারও উপরে। চুরুর তাপমাত্রা গত সপ্তাহেই ৫০ ডিগ্রি ছাড়িয়েছিল। বছরের এই সময়ে তাদের স্বাভাবিক তাপমাত্রার থেকে যা ৮ ডিগ্রি বেশি। সোমবারের হিসেব বলছে বান্দায় তাপমাত্রা ৪৯.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এলাহাবাদে ৪৮.৯ ডিগ্রি। নয়াদিল্লি ৪৮ ডিগ্রি। জুনের হিসেবে যা সর্বোচ্চ। প্রসঙ্গত, তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রি বা তার বেশি হলে এবং সেই পরিস্থিতি দু'দিন চললে তাক তাপপ্রবাহ বলা হয়। আর ৪৭ ডিগ্রির উপরে তাপমাত্রা হলে তাকে ‘তীব্র' আখ্যা দেওয়া হয়।

গত কয়েক বছরে ঘনঘন তাপপ্রবাহের দেখা মিলেছে। ২০০৪ সাল থেকে ১৫টি উষ্ণতম বছরের মধ্যে ১১টির দেখা মিলেছে। গত বছর ছিল ১৯০১-এর পর থেকে ষষ্ঠ উষ্ণতম বছর। প্রসঙ্গত, ১৯০১ সাল থেকেই আবহাওয়ার রেকর্ড রাখা শুরু হয়।

বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, পরিবেশের পরিবর্তনের চিহ্ন এটা। বিশ্বব্যাপী জলবায়ুর এহেন আচরণ লক্ষ করা যাচ্ছে। পরিবেশবিদরা ভারতকে পরামর্শ দিচ্ছেন, একটি নির্দিষ্ট পরিকল্পনা করে এই তাপপ্রবাহের সঙ্গে লড়াই করার জন্য। প্রতি বছর শয়ে শয়ে মানুষ মারা যান এর প্রকোপে।

এদেশে ২০১০ সাল থেকে ৬০০০-এরও বেশি মানুষ মারা গিয়েছেন গরমের কবলে পড়ে। গত বছর লোকসভায় কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী  এই তথ্য জানিয়েছিল‌েন।

আজ চারজন ব্যক্তি কেরল এক্সপ্রেসে উঠে ঝাঁসির কাছে এসে ঢলে পড়েছেন মৃত্যুর কোলে। রেলওয়ের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, অত্যধিক গরম এই ব্যক্তিদের মৃত্যুর অন্যতম কারণ।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................