ল্যান্ডার বিক্রম কেন সিগন্যাল গ্রহণ বন্ধ করে দেয়, বোঝালেন চন্দ্রযান-১ এর নির্দেশক

ISRO chairman K Sivan এএনআইকে বলেন যে মহাকাশ সংস্থাটি অরবিটারের দ্বারা ক্লিক করা একটি থার্মাল ইমেজের মাধ্যমে ল্যান্ডারের অবস্থানের সন্ধান পেয়েছে।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
ল্যান্ডার বিক্রম কেন সিগন্যাল গ্রহণ বন্ধ করে দেয়, বোঝালেন চন্দ্রযান-১ এর নির্দেশক

Chandrayaan 2: পৃথিবীর কক্ষপথে প্রদক্ষিণ করার পর, মহাকাশযানটি ১৪ অগাস্ট চাঁদের দিকে যাত্রা শুরু করে।


চেন্নাই: 

হাইলাইটস

  1. ল্যান্ডারটির চলাচলের জন্যে উপযুক্ত ক্ষেত্র নাও থাকতে পারে:এম আন্নাদুরাই
  2. চন্দ্রপৃষ্ঠেই অবস্থান করছে চন্দ্রযানের ল্যান্ডারটি,জানালেন ইসরো প্রধান
  3. শনিবার চন্দ্রযান ২ এর ল্যান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগ হারিয়ে ফেলেছিল ইসরো

চন্দ্র পৃষ্ঠের অন্তরায়গুলিই ল্যান্ডার বিক্রমকে সংকেত পেতে বাধা দিচ্ছিল, এমনটাই মনে করেন চন্দ্রযান ১-এর নির্দেশক মাইলস্বামী আন্নাদুরাই। "যেহেতু আমরা চাঁদের পিঠে ল্যান্ডারটির (lander Vikram) অবস্থান জানতে পেরেছি, এখন আমাদের এটির সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করতে হবে। ল্যান্ডার যেখানে অবতরণ করেছিল তা অবতরণের জমি হিসাবে তার কাছে যথেষ্ট উপযুক্ত নয় বলে মনে করা হচ্ছে। তাছাড়া এমন কিছু বাধাও থাকতে পারে, যা তার সঙ্গে "সংযোগ স্থাপন থেকে আমাদের আটকাতে চেষ্টা করছিল," বলেন তিনি। ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো (ISRO) এর আগে শনিবার ভোরের দিকে চন্দ্র পৃষ্ঠে অবতরণের কয়েক মিনিট আগে চন্দ্রযান ২ (Chandrayaan 2)-এর তিনটি উপাদানের মধ্যে একটি, বিক্রম ল্যান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগ হারিয়ে ফেলে।

যে কক্ষপথে ল্যান্ডারের অবস্থান রয়েছে সেখানে একটি যোগাযোগের চ্যানেল সরবরাহ করা হয়, যা এই জাতীয় ঘটনাকে অনুমান করতে পারে, তিনি আরও বলেন, ল্যান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপনের জন্য সাইড-চ্যানেলের একই লাইন ব্যবহার করা যেতে পারে।

চন্দ্রপৃষ্ঠে অবস্থান করছে চন্দ্রযানের ল্যান্ডার,জানালেন ইসরো প্রধান: রিপোর্ট

চন্দ্রযান ১-এর নির্দেশক আরও বলেন যে, "অতীতে, চন্দ্রযানের কক্ষপথে সংকেত স্থাপনের জন্য ল্যান্ডারের দিকে সংকেত পাঠানো হয়েছিল, তবে বর্তমান ক্ষেত্রে এটি প্রাথমিক ভাবে সফল না হলেও পরে সেটি সংকেত গ্রহণ করে কিনা তাও দেখতে হবে"।

"অরবিটার এবং ল্যান্ডারের মধ্যে সর্বদা দ্বি-মুখী যোগাযোগ থাকে তাই আমরা আর একটি উপায়ে যোগাযোগ করার চেষ্টা করতে পারি।" তবে তিনি অবশ্য একথাও জোর দিয়ে বলেন যে যোগাযোগটি ৫-১০ মিনিটের বেশি হবে না।

"এটি একটি জটিল পরিস্থিতি তবে আমাদের বিজ্ঞানীরা এটিকে ভালভাবেই পরিচালনা করতে সক্ষম," তিনি আরও যোগ করেন।

শনিবার ভোররাতে চাঁদের দক্ষিণ মেরুর পৃষ্ঠে ধীরে ধীরে অবতরণের সময়, চন্দ্রযান-২ এর তিনটির মধ্যে অন্যতম অংশ ল্যান্ডার বিক্রমের সঙ্গে কন্ট্রোলরুমের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। চাঁদের পৃষ্ঠ থেকে মাত্র ২.১ কিলোমিটার দূরে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয় ল্যান্ডারের। ইসরো প্রধান কে শিভান বলেন, “হ্যাঁ, চন্দ্রপৃষ্ঠে ল্যান্ডারকে আমরা বসাতে পেরেছি। এটা খুবই কঠিন অবতরণ”, পাশাপাশি তিনি জানান, এই পরিস্থিতিতে ল্যান্ডারটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কিনা, তা স্পষ্ট নয়।

Chandrayaan 2: আমেরিকা জানাল চন্দ্রাভিযান ‘ভারতের জন্য এক বিরাট পদক্ষেপ'

কে সিভান অবশ্য একথাও বলেন যে ল্যান্ডারের সঙ্গে কোনও যোগাযোগ স্থাপন করা না গেলেও পরবর্তী ১৪ দিনের মধ্যে এই যোগাযোগ স্থাপনের চেষ্টা করবে ইসরো।

২২ জুলাই অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীহরিকোটা থেকে GSLV Mark III rocket চেপে রওনা হয় চন্দ্রযান-২। প্রথমে ১৫ জুলাই সেটির উৎক্ষেপণের দিন ধার্য করা হয়, তবে প্রযুক্তিগত ত্রুটির কারণে, সেদিন একঘন্টারও কম সময়ের ব্যবধানে তা বাতিল করা হয়।

২০ অগস্ট সোমবার বেলা ১.৫৫-এ সফলভাবে চাঁদের কক্ষপথে প্রবেশ করে যানটি। অরবিটার থেকে আলাদা হয়ে যায় বিক্রম। কিন্তু শেষ পর্যন্ত চাঁদের মাটিতে অবতরণের আগে ইসরোর সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় ল্যান্ডারের।

তবে এই ঘটনার পর ভারতীয় মহাকাশ সংস্থা ইসরো এবং এর বিজ্ঞানীদের প্রতি সমর্থন জানাতে ঐক্যবদ্ধ হয়ে পাশে দাঁড়ায় ভারত, অনেকেই বলেন যে ল্যান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়া সত্ত্বেও চন্দ্র অভিযানের লক্ষ্যগুলির মধ্যে কমপক্ষে ৯০ থেকে ৯৫% অর্জন করেছে।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)


পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................