বেসরকারি সংস্থাগুলোও এবার মহাকাশ অভিযানের জন্যে রকেট বানাতে পারবে

Private Sector Participation in Space: বুধবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা ভারতের মহাকাশ অভিযান কর্মকাণ্ডের সঙ্গে বেসরকারি সংস্থার যোগদানের বিষয়ে অনুমতি দেয়

India's Space Programme: রকেটের পাশাপাশি স্যাটেলাইটও তৈরি করতে পারবে বেসরকারি সংস্থাগুলো (ফাইল চিত্র)

হাইলাইটস

  • বেসরকারি সংস্থার যোগদানে ইসরোর কার্যক্ষমতা কমবে না, বললেন কে সিভান
  • রকেট তৈরিতে অনুমতি পাবে বেসরকারি সংস্থা, একথাও জানান ইসরো প্রধান
  • বুধবারই ভারতীয় মহাকাশ গবেষণায় বেসরকারি যোগদানে সম্মতি দেয় কেন্দ্র
নয়া দিল্লি:

ভারতের মহাকাশ অভিযানের অংশীদার হতে পারবে বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থাও (Private Sector Participation in Space)। এখন থেকে মহাকাশ (India's Space Programme) অভিযানের জন্যে রকেট তৈরি, স্যাটেলাইট এবং উৎক্ষেপণ সহযোগী অন্যান্য যন্ত্র তৈরিতেও যোগ দিতে পারবে বেসরকারি সংস্থাগুলো। আমাদের দেশের বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা যাতে মহাকাশ গবেষণা ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখতে পারে তা ভেবেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ভারত সরকারের আর্থ সামাজিক সংস্কারের ধারা বজায় রাখতেই এই সিদ্ধান্ত, বৃহস্পতিবার একথাই জানান ইসরোর প্রধান কে সিভান (ISRO chief K Sivan)।

"একটা পরিবারের সবসময়ই ক্ষমতার লোভ রয়েছে", তোপ দাগলেন অমিত শাহ

তবে এর ফলে ইসরোর গবেষণামূলক কাজ কমে যাবে এরকম ভাবার কোনো কারণই নেই, একথাও স্পষ্টভাবে জানিয়ে দেন ইসরো প্রধান। ভারতের মহাকাশ গবেষণা সংস্থাটি আগের মতোই নিজেদের গবেষণামূলক কাজ চালিয়ে যাবে।

সন্ত্রাসবাদীদের মদত জোগানো বন্ধ করেনি পাকিস্তান, রইলো ধূসর তালিকাতেই

বুধবারই সরকারি ভাবে উপগ্রহ ও মহাকাশ নির্ভর পরিষেবার ক্ষেত্রে বেসরকারি সংস্থার অংশগ্রহণে ছাড়পত্র দিয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। এর ফলে পরিষেবার উন্নতির জন্যে সরকারি নিয়মকানুন মেনে প্রয়োজনে ইসরোর পরিকাঠামো ব্যবহার করতে পারবে বেসরকারি সংস্থা। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের ফলে একদিকে যেমন মহাকাশের বিভিন্ন প্রকল্পে বেসরকারি সংস্থাগুলি অংশ নিতে পারবে, তেমনই ইসরো-ও পারবে গবেষণা ও উন্নয়নমূলক কাজে আরও বেশি করে নতুন প্রযুক্তির উদ্ভাবন এবং নভোশ্চর পাঠানো সহ বিভিন্ন মহাকাশ অভিযানে মনোযোগ দিতে। 



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)