'ক্রাইস্টচার্চের বদলা' নিতেই কলোম্বোয় হামলা হয়েছিল, সংসদে দাবি শ্রীলঙ্কা সরকারের

Sri Lanka Attacks: গত রবিবার একের পর এক বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে শ্রীলঙ্কার  রাজধানী কলম্বো। প্রাণ গিয়েছে প্রায় তিনশো জন মানুষের।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
'ক্রাইস্টচার্চের বদলা'  নিতেই কলোম্বোয় হামলা হয়েছিল, সংসদে দাবি শ্রীলঙ্কা সরকারের
কলোম্ব, শ্রীলঙ্কা: 

হাইলাইটস

  1. ক্রাইস্টচার্চের ঘটনার বদলা নিতেই শ্রীলঙ্কায় হামলা হয়েছিল
  2. নিউজিল্যান্ডের মসজিদে যে হামলা হয়েছিল তার বদলা নিতেই এই হামলা
  3. প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের রাষ্ট্র মন্ত্রী রুয়ান বিজয়বর্ধনে এ কথা জানিয়েছেন

ক্রাইস্টচার্চের (Christchurch) ঘটনার বদলা নিতেই শ্রীলঙ্কায় হামলা (Sri Lanka Attacks) হয়েছিল বলে জানা গিয়েছে। গত রবিবার একের পর এক বিস্ফোরণে (Blast) কেঁপে ওঠে শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বো।প্রাণ গিয়েছে প্রায় তিনশো জন মানুষের। সেই ঘটনার তদন্তে নেমে জানা গেল কয়েক মাস আগে নিউজিল্যান্ডের মসজিদে যে হামলা হয়েছিল তার বদলা নিতেই এই হামলা হয়েছে। শ্রীলঙ্কার সংসদে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রুয়ান বিজয়বর্ধনে এই খবর জানান। শ্রীলঙ্কায় হামলা হয় রবিবার। এরপর মঙ্গলবার জাতীয় শোক দিবস পালন করে  ভারত মহাসাগরের এই দ্বীপরাষ্ট্র।  তিন মিনিটের জন্য নীরবতা পালন করে গোটা দেশ। গত রবিবার সকাল সাড়ে আটটার সময়ে হামলা হয়েছিল। নীরবতা পালনের পাশাপাশি বিভিন্ন সরকারি দপ্তরেও জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত অবস্থায় রাখা হয়।

 World Book Day 2019: বইয়ের জন্য একটা দিন, একটা জীবন, এবং অনেক লড়াইয়ের ইতিহাস 

  নীরবতা পালনের কিছুটা পরেই শ্রীলঙ্কা পুলিশের মুখপাত্র বলেন, মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে  ৩১০ জন। বিস্ফোরণে আহত হওয়ার অনেকেই হাসপাতালে ভর্তি হন। পরে তাঁদের মধ্যে কয়েকজনের মৃত্যু হয়েছে।হামলায় শহিদ কয়েকজন বিদেশি নাগরিকের শেষকৃত্য আজ সম্পন্ন হয়েছে।  পাশাপাশি  সোমবার রাত থেকেই গোটা দেশে জরুরি অবস্থা  জারি হয়েছে। হামলার কারণের পাশাপাশি প্রশাসনের অনুমান জঙ্গি সংগঠন আইএসআইএস- এর একটি সহযোগী সংগঠন এই হামলা  চালিয়েছে। হামলার পর থেকেই গ্রেফতারি শুরু করেছে  প্রশাসন। এখনও পর্যন্ত ৪০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানা  গিয়েছে। আরও কয়েকজনের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে  প্রশাসন। ঘটনার পর থেকে এনটিজে নামে  একটি সংগঠনের নাম উঠে  এসেছে। তাদের ভূমিকা কতটা আছে তা  নিয়ে  তদন্তকারীদের মনে  সন্দেহও আছে। তারা বলছেন একটি ছোট সংগঠন এতবড় একটা হামলা সংগঠিত করতে  পারে না। অন্য কোনও সংগঠন  নিশ্চয় তাদের সাহায্য করেছে। কয়েক দশক আগে  শ্রীলঙ্কায় গৃহযুদ্ধের পরিস্থিতি তৈরি হয়। তারপর থেকে এতবড় ঘটনা আর কখনও ঘটেনি।                                                    



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................