ক্ষমতাসীন দলকে দেশের সব মানুষের কথা বিবেচনা করতে হবে: প্রণব মুখোপাধ্যায়

বৃহস্পতিবার রাজস্থান বিধানসভায় একটি অনুষ্ঠানে ভাষণ দেন  তিনি (Pranab Mukherjee)

ক্ষমতাসীন দলকে দেশের সব মানুষের কথা বিবেচনা করতে হবে: প্রণব মুখোপাধ্যায়

জয়পুরে রাজস্থান বিধানসভায় একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছিলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। (File photo)

জয়পুর:

কেন্দ্র বা বিভিন্ন রাজ্যে ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলগুলির কাছে ‘সহনশীল'তার বার্তা পেশ করলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় (Pranab Mukherjee)।  বৃহস্পতিবার রাজস্থান বিধানসভায় একটি অনুষ্ঠানে ভাষণ দেন  তিনি। সেখানেই স্মরণ করিয়ে দেন, একটি নির্বাচনে কোনও রাজনৈতিক দল বিপুল আসন ( huge mandate) জিতলেও শতাংশের  (percentage) বিচারে তাদের ভোটপ্রাপ্তি পঞ্চাশ শতাংশ পেরোয় না। এই অঙ্ক থেকেই মাথায় রাখা উচিত বিরাট সংখ্যায় মানুষ তাদের পক্ষে ভোট দেয়নি। প্রাক্তণ রাষ্ট্রপতি (Pranab Mukherjee) বলেন, ‘অতীত বা বর্তমান, আশ্চর্যজনকভাবে ভোটে একটা দল বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেলেও অঙ্কের বিচারে দেখা যায় অর্ধেক ভারতীও সেই দলকে সমর্থন করেননি। এর আগে কংগ্রেসের (Congress ) ক্ষেত্রেও এটা যেমন সত্য, তেমনই বিজেপি (BJP) সহ অন্যান্য দলের ক্ষেত্রেও।' 

শুধু এটুকু বলেই থেমে থাকেননি দেশের প্রাক্তণ রাষ্ট্রপতি। প্রণব মুখোপাধ্যায়ের (Pranab Mukherjee) সংযোজন, ‘ভারতীয় ভোটারদের এহেন রায় যেন শাসক দলের উদ্দেশ্যে একটা বার্তা।' তাঁর উপলব্ধি, ‘ভোটারা যেন রাজনৈতিক দলগুলিকে বার্তা দেন, সরকার চালাতে আমরা তোমাদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা দিয়েছি। কিন্তু, মনে রাখতে হবে দেশের মোট ভোটারের যা অর্ধেকও নয়। অর্থাৎ, অর্ধেকের বেশি দেশবাসী সাসক দলের উপর আস্থা দেখাননি। তাই যারা ভোট দিলেন না তাদের বিষয়টিও শাসক দলকে গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করতে হবে। মাথায় রাখতে হবে তারাও গণতান্ত্রিক, প্রজাতন্ত্রী, সার্বভৌম ভারতের নাগরিক।'

মাস দু'য়ের আগেই বিপুল জনাদেশ নিয়ে দেশ পরিচালনার দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করেছেন নরেন্দ্র মোদী। বিজেপি একাই পেয়েছে ৩০৩ আসন। এনডিএ পার করেছে সাড়ে তিনশো আসনের গন্ডি। দেশজুড়ে গেরুয়া ঝড়। খড়কুটোর মতো উড়ে গিয়েছে কংগ্রেস সহ বিরোধী শিবির। তবে, আসন বাড়লেও শতাংশের বিচারে বিজেপি পেয়েছে মাত্র ৪০ শতাংশ ভোট। 

কিন্তু, ক্ষমতায় ফিরেও বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না মোদী সরকারের। দেশজুড়ে ধর্মীয় মেরুকরণের জন্য দায়ী করা হচ্ছে গেরুয়া দলটিকে। বিরোধীদের তোপে ইভিএম থেকে গণপ্রহারকাণ্ড। বিরোধীপক্ষের অভিযোগ, সংসদে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিল সংখ্যাধিক্যের জোরেই আইনে পরিণত করছে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার। এই পরিস্থিতিতে ‘কংগ্রেস ম্যান' বলে পরিচিত দেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির মন্তব্য বিশেষ গুরুত্ববাহী বলে মনে করা হচ্ছে। 

রাজস্থানের স্পিকার সিপি যোশীর কথায়, ভোটেই প্রমাণ দেশে আঞ্চলিক দলের ক্ষমতা খর্ব হচ্ছে। ভোট বাড়ছে সর্ববারতীয় রাজনৈতিক দলগুলির। যা বারতীয় গণতন্ত্রের পক্ষে অত্যন্ত উল্লেখযোগ্য।



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)