আমেরিকার সতর্কবানী সত্ত্বেও S-400 মিসাইল সিস্টেম কিনতে রাশিয়ার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হল ভারত

অবশেষে ভারতের হাতে আসবে S-400 মিসাইল সিস্টেম।আমেরিকার সতর্কবানী সত্ত্বেও রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতীনের চুক্তি করল ভারত।

আমেরিকার সতর্কবানী সত্ত্বেও S-400 মিসাইল সিস্টেম কিনতে রাশিয়ার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হল ভারত

2014 সালেএই অত্যাধুনিক মিসাইল প্রথম কেনে চিন।

হাইলাইটস

  • বেশ কয়েকটি বিষয় আলোচনা হওয়ার কথা
  • তার মধ্যে S-400 মিসাইল সিস্টেম কেনার প্রসঙ্গটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ
  • সিস্টেম কিনলে আমেরিকা ভারতের উপর আর্থিক নিষেধাজ্ঞা চাপাতে পারে
নিউ দিল্লি: আজই হবে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। এর আগে বৃহস্পতিবার বিমান বন্দরে রাতে তাঁকে স্বাগত জানান বিদেশ মন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। পরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দেখা হয় পুতীনের। নৈশভোজের পাশাপাশি দুজনে একান্তে বেশ কিছুটা সময় কথাও বলেছেন দু’জন। দেখা হতেই পুতীনকে জড়িয়ে ধরেন মোদী।

জানুন 10টি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

  1. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির সঙ্গে এসেছেন ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী ইউরি বরিসভ, বিদেশ মন্ত্রী সারগে লাভরভ এবং বাণিজ্য মন্ত্রী ডেনিস মান্তুরভ। 
     

  2. 2014 সালেএই অত্যাধুনিক মিসাইল প্রথম কেনে চিন। রাশিয়া  এখন তাদের মিসাইল দিতে শুরু করে দিয়েছে।
     

  3. আগেই এই মিসাইল সিস্টেম কিনতে আগ্রহ দেখিয়েছে দিল্লি। ভারতের বায়ু সেনা  প্রধান বি এস ধানোয়া জানিয়েছেন সরকারের অনুমতি পাওয়ার পর মিসাইল সিস্টেম হাতে পেতে বছর দুয়েক সময় লাগবে। 
     

  4. ইরান নর্থ কোরিয়া এবং রাশিয়ার সঙ্গে কোনও বড় আকারের লেনদেন করলে আর্থিক নিষেধাজ্ঞা জারি করে আমেরিকা। তার জন্য একটি আইনও তৈরি হয়েছে। সেটির নাম সিএএটিএসএ। 
     

  5. মোদী-পুতীন বৈঠকে উঠে আসতে  পারে এই নিষেধাজ্ঞা জারির প্রসঙ্গও।  এদিকে আজ ভারতের রাষ্ট্রপতি  রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গেও দেখা হবে পুতীনের। 
     

  6. সেদেশের ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী রাশিয়ার সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন S-400 মিসাইল সহ  20 টি বিষয় দুদেশের মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে।
     

  7.  এছাড়া চারটি যুদ্ধ জাহাজ কেনারও পরিকল্পনা রয়েছে।
     

  8. ভারত রাশিয়া  ছাড়া জাপানের সঙ্গে প্রতি বছর এ ধরনের সম্মেলন করে। 
     

  9. এটি এবছর মোদী- পুতীনের তৃতীয় বৈঠক। এর আগে মে  মাসে  রাশিয়ার সোচি শহরে দুজনের বৈঠক হয়। পরে ব্রিকস  সম্মেলনেও আলোচনায় বসেন দুজন। 
     

  10. আমেরিকা আর্থিক নিষেধাজ্ঞা জারি করতে পারে বলে আশঙ্কা  তৈরি হয়েছে। এ প্রসঙ্গে  সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ জানান,ভারত  বিভিন্ন  দেশের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রেখে এসেছে। আগামী দিনেও রাখবে।