"ভারত তাঁর জন্যে গর্বিত", নোবেল জয়ীয় সঙ্গে সাক্ষাতের পর বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

নোবেল জয়ী Abhijit Banerjee এনডিটিভিকে বলেন, "আমি কোনও পক্ষপাতদুষ্ট হয়ে অর্থনৈতিক চিন্তা করি না"

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ Abhijit Banerjee

নয়া দিল্লি:

"ভারত তাঁর জন্যে গর্বিত", নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে সাক্ষাতের পর বললেন  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ২০১৯ সালে অর্থনীতিতে নোবেল জয়ী (Nobel Prize) অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় আজ (মঙ্গলবার) প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। এর আগে এই অর্থনীতিবিদের (Abhijit Banerjee) নীতিনির্ধারণ সংক্রান্ত নানা বিষয়ে তীব্র সমালোচনা করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের মতো বিজেপি নেতারা। প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদের প্রতি এই সমালোচনা এবং বিতর্কের মাঝেই প্রধানমন্ত্রীর (Narendra Modi) সঙ্গে সাক্ষাৎ হল ওই নোবেল জয়ীর। "নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ  অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দুর্দান্ত সাক্ষাৎ হল। মানব ক্ষমতায়নের প্রতি তাঁর অনুরাগ স্পষ্টভাবে বোঝা গেছে। বিভিন্ন বিষয়ে আমাদের একটি স্বাস্থ্যকর ও বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। ভারত তাঁর কৃতিত্বের জন্য গর্বিত। তাঁর ভবিষ্যতের প্রচেষ্টার জন্য তাঁকে শুভেচ্ছা জানাই," বৈঠকের পর টুইট করেন প্রধানমন্ত্রী মোদি।

এর আগে দারিদ্র্য দূরীকরণে তাঁর কাজের অবদান স্বরূপ অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্মিলিত ভাবে ওই পুরস্কার জেতার পর নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদকে  অভিনন্দনও জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

এনডিটিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন যে, প্রধানমন্ত্রী মোদি যখন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন এবং তখন তিনি গুজরাটে কিছুদিন কাজ করেছিলেন। সেই সময়ে সেখানে তাঁর কাজের 'চমৎকার অভিজ্ঞতা' হয়।

অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়কে অভিনন্দন জানিয়েছি, কিন্তু তাঁর তত্ত্বকে ভারতের মানুষ প্রত্যাখ্যান করেছে: পীযূষ গয়াল

"আমি কোনও পক্ষপাতদুষ্ট হয়ে অর্থনৈতিক চিন্তা করি না। আমরা যে যে রাজ্য সরকারের সঙ্গে কাজ করেছি, তার মধ্যে বেশিরভাগই বিজেপি সরকার। আমরা গুজরাট দূষণ (নিয়ন্ত্রণ) বোর্ডের সঙ্গে কাজ করেছি । সেই সময় গুজরাট (নরেন্দ্র) মোদির অধীনে ছিল, এবং আমাদের চমৎকার অভিজ্ঞতা হয় সেই সময়। আমি তো বলব যে সেই সময় তাঁরা আমাদের তৈরি নীতিমালাই বাস্তবায়িত করেছিল", এনডিটিভিকে এক সাক্ষাৎকারে বলেন অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়। এর আগে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গয়াল এই নোবেল জয়ীকে একজন "বামপন্থী" হিসাবে অভিহিত করার প্রতিক্রিয়া স্বরূপ ওই কথা বলেন অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়।

এক সাংবাদিক সম্মেলনে পীযূষ গয়াল জানান, ‘‘অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় নোবেল পুরস্কার জিতেছেন। আমি তাঁকে অভিনন্দন জা‌নিয়েছি। কিন্তু আপনারা সকলেই জানেন তাঁর ভাবনাচিন্তা কেমন। তাঁর ভাবনাচিন্তা সম্পূর্ণ বামপন্থী। তিনি অকপটে NYAY প্রকল্পের প্রশংসা করেছেন। কিন্তু ভারতের মানুষ তাঁর চিন্তাভাবনাকে সম্পূর্ণ প্রত্যাখ্যান করেছেন।''

ওঁর সমালোচনা করে নিজেদের দৃষ্টিভঙ্গি প্রমাণ অসম্ভব: বললেন নোবেল জয়ী অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মা

NYAY অথবা ন্যূনতম আয় যোজনা হল পরিবারগুলির বছরে ন্যূনতম আয় নিশ্চিত করার প্রকল্প, যা কংগ্রেস এবারের লোকসভা নির্বাচনের আগে ক্ষমতায় এলে কার্যকর করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। এই NYAY প্রকল্পে দেশের ২০ শতাংশ দরিদ্র থেকে অতি দরিদ্র পরিবারের বার্ষিক রোজগার ৭২,০০০ টাকা করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল।

ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজির ভারতীয়-আমেরিকান অধ্যাপক অভিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়, তাঁর স্ত্রী এস্থার ডুফ্লো এবং আরেক অর্থনীতিবিদ মাইকেল ক্রেমারের সঙ্গে মিলিতভাবে ‘বিশ্বজুড়ে দারিদ্র্য বিমোচনে পরীক্ষামূলক পদ্ধতির জন্য' ২০১৯ সালের নোবেল অর্থনীতি পুরস্কার (2019 Nobel Economics Prize) পান।

More News