আইনে পরিণত হওয়ার আগেই এবার সুপ্রিম কোর্টে চ্যালেঞ্জের মুখে নাগরিকত্ব বিল

Citizenship Amendment Bill: বিলটি ভারতীয় সংবিধানের মূল কাঠামোর পরিপন্থী, দাবি করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হচ্ছে মুসলিম সংস্থা জামায়েত-উলেমা-ই-হিন্দ

আইনে পরিণত হওয়ার আগেই এবার সুপ্রিম কোর্টে চ্যালেঞ্জের মুখে নাগরিকত্ব বিল

Supreme Court: নাগরিকত্ব বিলের বিষয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারে দেশের বিচার বিভাগ, মনে করছে জামায়েত-উলেমা-ই-হিন্দ

হাইলাইটস

  • নাগরিকত্ব বিলকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে যাচ্ছে মুসলিম সংস্থা
  • বিচার বিভাগই এই বিল সম্পর্কে সঠিক নির্ণয় দিতে পারবে, মত তাঁদের
  • সোমবার লোকসভায় পাসের পর বুধবার রাজ্যসভাতেও পাস হয় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল
নয়া দিল্লি:

সবেমাত্র বুধবার রাজ্যসভায় পাস হয়েছে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল, আর তার মধ্যেই সেটি যেতে চলেছে সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court)। এই বিলের (Citizenship Amendment Bill) বিষয়ে তীব্র আপত্তি জানিয়ে দেশের শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মুসলিম সংগঠন জামায়েত-উলেমা-ই-হিন্দ (Jamiat Ulema-e-Hind)। এর আগে চলতি সপ্তাহেরই সোমবার লোকসভাতেও পাস হয়ে যায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল,২০১৯। রাজ্যসভা ও লোকসভা, সংসদের দুই কক্ষেই এই বিলটি পাস হওয়ার ঘটনাকে একটি "ট্র্যাজেডি" হিসাবে উল্লেখ করে জামায়েত-উলেমা-ই-হিন্দের সভাপতি মওলানা আরশাদ মাদানি বলেন যে বিলটি ভারতীয় সংবিধানের মূল কাঠামোর পরিপন্থী এবং জামায়েত দেশের শীর্ষ আদালতে এটিকে চ্যালেঞ্জ জানাবে । মাদানি আরও বলেন যে জামায়েত এই বিলটিকে আদালতে চ্যালেঞ্জ জানাবে কারণ আইনসভা সততার সঙ্গে নিজের কাজ করেনি।

"বিচার বিভাগ এই বিলের সম্পর্কে আরও ভাল সিদ্ধান্ত নিতে পারে। এ বিষয়ে আইনজীবীদের সঙ্গে পরামর্শ করা হয়েছে এবং আদালতে আবেদনের একটি খসড়া তৈরি করা হচ্ছে", জানান জামায়েত-উলেমা-ই-হিন্দের সভাপতি মওলানা আরশাদ মাদানি।

"মুসলিমদের দুশ্চিন্তার কারণ নেই": নাগরিকত্ব বিল প্রসঙ্গে রাজ্যসভায় অমিত শাহ

মাদানি আরও বলেন যে লোকসভায় বিলটি পাসের পরেই, এই বিলের ক্ষতিকারক প্রভাব সম্পর্কে বিভিন্ন দলের সদস্যদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাঁদের বোঝানোর চেষ্টা করেছিল জামায়েত, কিন্তু তা সত্ত্বেও বিলটি রাজ্যসভায় পাস হয়ে যায়।

"এটা খুবই দুঃখজনক যে, কিছু তথাকথিত ধর্মনিরপেক্ষ দল এই বিলের বিষয়ে তাদের দায়িত্বহীন আচরণ দেখিয়েছে এবং যার ফলে এই বিলটি রাজ্যসভায় পাস হয়েছে", বলেন তিনি।

মাদানি আরও বলেন যে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটি সংবিধানের ১৪ ও ১৫ অনুচ্ছেদের লঙ্ঘন করেছে, কারণ ওই দুই অনুচ্ছেদে স্পষ্টভাবে বলা হয়েছে যে দেশের কোনও নাগরিককে ধর্মের ভিত্তিতে বৈষম্য করা হবে না এবং প্রতিটি নাগরিকের সঙ্গে সমান আচরণ করা হবে। তিনি বলেন, এই বিলটি দেশের নিরাপত্তা ও সুরক্ষা বিঘ্নিত করতে পারে।

“ভারতের উল্লেখযোগ্য দিন”, নাগরিকত্ব বিল পাস নিয়ে বললেন প্রধানমন্ত্রী মোদি

এই বিলের প্রভাবগুলি এখনই দেখা না গেলেও, সারা দেশে এনআরসি চালু হলে, এই আইনের ফলে বিপাকে পড়বেন লক্ষ লক্ষ মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষ, এমনটাই মনে করেন মাদানি। "এটি মোটেই আর শুধু হিন্দু-মুসলিমের বিষয় নয়, এটি একজন মানুষ তথা নাগরিকের মৌলিক অধিকারের বিষয়", বলেন তিনি ।

নজর রাখুন এই খবরগুলোতেও:

More News