‘‘তবে তাই হোক’’: মায়াবতীর জোট থেকে সরে আসা নিয়ে অখিলেশের প্রতিক্রিয়া

মায়াবতী বলেন, ‘‘নিজেদের ভোট হারানো আমাদের উচিত নয়। এমনকী, শক্তিশালী প্রার্থীরাও হেরেছে।’’

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

মায়াবতী জানিয়েছেন তাঁদের জোট ভেঙে দেওয়াটা স্থায়ী সিদ্ধান্ত নয়


নয়াদিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. মায়াবতী জানিয়ে দিলেন, উত্তরপ্রদেশের উপ বিএসপি একাই লড়বে।
  2. তিনি জানিয়েছেন, সমাজবাদী পার্টির থেকে তিনি ‘ব্রেক’ নিচ্ছেন।
  3. দিল্লিতে দলীয় বৈঠকের পরে আজ একথা জানালেন তিনি।

অবশেষে সরকারি ভাবে মায়াবতী (Mayawati) জানিয়ে দিলেন, অখিলেশ যাদবের (Akhilesh Yadav) সঙ্গে তাঁর জোট জাতীয় নির্বাচনে ব্যর্থ হওয়ায় উত্তরপ্রদেশের উপ নির্বাচনে ১১টি আসন থেকে তাঁর দল বহুজন সমাজ পার্টি বা বিএসপি (BSP) একাই লড়বে। মায়াবতী (Mayawati) জানিয়েছেন, ‘‘আমরা রাজনৈতিক বাস্তবকে অস্বীকার করতে পারি না।'' তিনি জানিয়েছেন, আপাতত অখিলেশ যাদবের (Akhilesh Yadav) সমাজবাদী পার্টির (SP) থেকে তিনি একটি ‘ব্রেক' নিচ্ছেন। ‘‘এটা কোনও স্থায়ী বিচ্ছেদ নয়।'' জানিয়ে তিনি বলেন, সমাজবাদী পার্টি তাদের ক্যাডারদের ব্যাপারে একটু উন্নতি করুক। ৬৩ বছরের নেত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ‘‘উত্তরপ্রদেশে জমি ফিরে পেতেই আমরা সমাজবাদী পার্টির সঙ্গে জোট গড়েছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত সেটা কাজ করেনি। আমরা অনেকটাই পিছিয়ে পড়লাম।'' কাল দিল্লিতে নির্বাচনী বিপর্যয় নিয়ে দলীয় বৈঠকে আলোচনার পরে আজ একথা জানালেন তিনি।

জোট শেষ? মায়াবতী জানালেন উপ নির্বাচনে বিএসপি একাই লড়বে: সূত্র

প্রথম প্রতিক্রিয়ায় অখিলেশ যাদব জানান, তাঁর দলও ১১টি আসনের উপ নির্বাচনে লড়বে। তিনি বলেন, ‘‘আমরা মায়াবতীর উদ্দেশে বিবেচিত প্রতিক্রিয়া দেব। যদি জোট ভেঙে যায়, তাহলে আমরা একাই লড়ব। যদি আলাদাই লড়তে হয়, তাহলে তাই সই।''

বিপর্যয়ের ব্যাপারে মায়াবতীর স্পষ্ট অভিযোগ সমাজবাদী পার্টির দিকে। জানাচ্ছেন, এখানে বিজেপি কখনওই ভোটের সময় সুবিধা পায়নি। মায়াবতী বলেন, ‘‘নিজেদের ভোট হারানো আমাদের উচিত নয়। এমনকী, শক্তিশালী প্রার্থীরাও হেরেছে। কনৌজে ডিম্পল যাদব (অখিলেশ যাদবের স্ত্রী) হেরে গেল। এ ব্যাপারে আমাদের ভাবনাচিন্তা করতে হবে।''

উনি তো ডিম্পল যাদবকেও জেতাতে পারেননি: অখিলেশের সঙ্গ ত্যাগের পর মায়াবতী

তিনি বলেন, সমাজবাদী পার্টির ক্যাডাররা ততটা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ বা লক্ষ্যের প্রতি মনোযোগী নয়, যতটা বিএসপির ক্যাডাররা নিবেদিতপ্রাণ। তিনি বলেন জোট নিয়ে তিনি ভাবনাচিন্তা করবেন। শর্ত হিসেবে তিনি জানান, ‘‘যদি আমাদের মনে হয় সমাজবাদী পার্টি তাদের কর্মীদের মধ্যে পরিবর্তন আনতে পারবে তবেই।'' আর না পারলে, ‘‘আমাদের সেক্ষেত্রে একলা লড়াই ভালো। এই ধরনের পরিবর্তন আনতে সময় লাগবে।''

মায়াবতী বলেন, অখিলেশের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক রাজনীতির থেকে আরও এগিয়ে। কিন্তু রাজনৈতিক পরিস্থিতিকে এড়িয়ে চলা কঠিন।

তিনি বলেন, ‘‘অখিলেশ-ডিম্পল আমাকে শ্রদ্ধা করে। এবং আমিও অতীতের সব ভুলে গিয়ে ওদের নিজেদের পরিবারের মতোই ভেবেছি। রাজনৈতিক লাভবান হওয়ার জন্য এই সম্পর্ক তৈরি হয়নি।''

দুই দলের মধ্যে বহু দশকেরও বেশি পুরনো বিবাদ থাকলেও মায়াবতী-অখিলেশ যাদব জুটি নতুন করে এগিয়ে এসেছিলেন সাফল্যমণ্ডিত যুগ্ম প্রচার করে। বিজেপির দখলে থাকা তিনটি লোকসভা এলাকায় গত তারা এই প্রচার চালিয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তারা ব্যর্থ হয়। ৮০টি লোকসভা আসনের মধ্যে মাত্র ১৫টিতে জিততে পারে তাদের জোট।

তবে দু'দলের মধ্যে অখিলেশের সমাজবাদী পার্টিই বেশি হেরেছে। মায়াবতী গতবারের শূন্য পদ থেকে এবার দশে পৌঁছলেও সমাজবাদী পার্টিতে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে ৫টি আসনেই।

বিএসপি-এসপি জুটি তৈরির পিছনে মূল উদ্দেশ্য ছিল মায়াবতীর প্রধানমন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হলে অখিলেশ তাঁকে সমর্থন দেবেন। অন্যদিকে মায়াবতী বিধানসভা নির্বাচনে ২০১৭-এ ক্ষমতা হারানো অখিলেশের ২০২২ সালে মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনায় সমর্থন দেবেন।

সূত্রানুসারে মায়াবতীর জোট ছেড়ে দ্রুত বেরিয়ে যাওয়ার পিছনে অন্যতম কারণ দরাদরিতে নিজের অবস্থান ধরে রাখতে আপত্তি এবং রাজ্য স্তরেও হেরে যেতে আপত্তি।

বিএসপি প্রধানের পক্ষে এই ১১টি আসনের উপ নির্বাচন একটা নতুন শুরু। উপ নির্বাচনে না লড়ার তাঁর এতদিনে নিয়ম ভেঙেও সেই পথেই পা বাড়ালেন নেত্রী।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................