মহারাষ্ট্রে ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ল লকডাউন! ৮ জুনের মধ্যে রাজ্যকে করা হবে আনলক

জানা গিয়েছে, ৩ জুন-৮ জুন পর্যন্ত ধাপে ধাপে লকডাউন বিধি শিথিল করা হবে। তিন ধাপে এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হবে

মহারাষ্ট্রে ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ল লকডাউন! ৮ জুনের মধ্যে রাজ্যকে করা হবে আনলক

সংক্রমণের তালিকায় এখনও প্রথম স্থানে মহারাষ্ট্র।

হাইলাইটস

  • মহারাষ্ট্রে ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ল লকডাউন। তবে শিথিল হবে লকডাউন বিধি
  • নন-কন্টেইনমেন্ট জোনে একাধিক ছাড়! চালু করা যাবে স্বনির্ভর বাণিজ্য
  • ৩-৮ জুনের মধ্যে ধাপে ধাপে আনলক করা হবে রাজ্য
মুম্বই:

আনলক মিশন (Mission Unlock in Maharastra) শুরু করতে পয়লা জুন থেকে উদ্যোগ হবে মহারাষ্ট্র সরকার। পঞ্চম দফার লকডাউনকে, আনলক ১.০ আখ্যা দিয়েছে কেন্দ্র। সেই পথে হাঁটতে এই দফার লকডাউনের কিছু বিধি (relaxation in lockdown) শিথিল করতে তৎপর হল রাজ্যের জোট সরকার। ৩০ জুন পর্যন্ত আরও একদফা (Lockdown 5.0) লকডাউন লাগু রাখলেও, ধীরে ধীরে রাজ্যকে স্বাভাবিক করতে পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। উদ্ধব ঠাকরে সরকার সূত্রে এমনটাই দাবি। জানা গিয়েছে, ৩ জুন-৮ জুন পর্যন্ত ধাপে ধাপে লকডাউন বিধি শিথিল করা হবে। তিন ধাপে এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হবে। তবে, সেই শিথিলতা শুধু মাত্র নন-কন্টেইনমেন্ট জোনে লাগু থাকবে। নাইট কার্ফু রাত ৯টা-ভোর ৫টা অবধি গোটা রাজ্যে লাগু থাকবে। স্বাভাবিক কাজকর্ম সারতে হবে সকাল ৬টা থেকে রাত ৯টার মধ্যে, এমনটাই সূত্রের খবর। 

কর্মীদের বেতন দিতে কেন্দ্রের দ্বারস্থ দিল্লি সরকার! ৫ হাজার কোটি টাকার আর্জি

রাজ্য সরকারের জারি করা বিবৃতিতে বলা হয়েছে, "বাইরের বাইরে শরীরচর্চার স্বার্থে বেরোতে পারবেন নাগরিকরা। প্রাতর্ভ্রমণ বা সান্ধ্যভ্রমণ, জগিং, সাইক্লিং কিংবা দৌড়; পয়লা জুন থেকে বজায় রাখা যাবে। তবে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে জমায়েত করতে হবে। গণজমায়েতে কোনও ছাড় নেই।" স্বনির্ভর বাণিজ্যের সঙ্গে যারা যুক্ত; যেমন প্লাম্বার, ইলেক্ট্রিশিয়ান, টেকনিসিয়ান, তাঁরা নিজেদের ব্যবসা চালু করতে পারবেন। ১৫% কর্মী নিয়ে খোলা যাবে সরকারি দফতর। ৩ জুন থেকে প্রথম ধাপের আনলক মিশনের আওতাভুক্ত এই নির্দেশ। এমনটাই স্পষ্ট করেছে ওই সরকারি নির্দেশিকা। 

পঞ্চম দফার লকডাউনেও কী কী খুলছে না দেখে নিন তালিকা

এদিকে, রবিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাঁর মাসিক রেডিও অনুষ্ঠান ‘মন কি বাত'-এ জোর দিলেন সতর্ক থাকার বিষয়ে। তিনি জানালেন, যেহেতু অর্থনীতির বিরাট অংশ উন্মুক্ত করা হয়েছে, তাই আরও সতর্ক হতে হবে সকলকে। শনিবার কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জানানো হয় লকডাউনের মেয়াদ ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। এটি লকডাউন আনলক করার ফেজ-১ বলেও বর্ণনা করা হয়। সমস্ত দোকান খুলে দেওয়া হয়েছে। রেল, সড়ক ও বিমান পরিষেবাও শুরু হয়েছে। মল, হোটেল, রেস্তোরাঁ, ধর্মীয় স্থান ৮ জুন থেকে খুলে দেওয়া হবে। সমস্ত নিষেধাজ্ঞাই এভাবে ধাপে ধাপে তুলে দেওয়া হবে বলেও সরকারি বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

Newsbeep

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘শেষবার যখন আমি কথা বলেছি‌লাম তখনও যাত্রীবাহী বিমান পরিষেবা বন্ধ ছিল। কিন্তু এখন সব নিষেধাজ্ঞা তুলে দেওয়া হয়েছে। করোনা ভাইরাসের সঙ্গে লড়াইয়ের বিষয়ে আমাদের অমনোযোগী হওয়া উচিত নয়। সামাজিক দূরত্ব ও অন্যান্য প্রোটোকলকে একই ভাবে মেনে চলতে হবে আমাদের।''

অর্থনীতির বিরাট অংশ উন্মুক্ত করা হল, আরও সতর্ক হতে হবে এই সময়ে: ‘মন কি বাত'-এ প্রধানমন্ত্রী

তিনি জানান, ভারত এই সংক্রান্ত বিষয়ে বহু চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছে। তিনি বলেন, ‘‘হ্যাঁ, আমরা বহু কম জনসংক্যার দেশের তুলনায় আমাদের দেশে করোনাকে নিয়ন্ত্রণ করতে অনেকাংশেই সফল হয়েছি।''