৬ মাস ধরে ১৬ বছরের নাবালিকাকে ৬ জন মিলে ধর্ষণের অভিযোগ

এরপর যে ব্যক্তি এই কথা জানতে পারে, সেই নিজের দাঁত-নখ বার করতে শুরু করে, একের পর এক আঁচড় লাগে মেয়েটির গায়ে

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
৬ মাস ধরে ১৬ বছরের নাবালিকাকে ৬ জন মিলে ধর্ষণের অভিযোগ

এই ছয় জন অভিযুক্তকেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ (ছবি: প্রতীকাত্মক)


ভোপাল: 

হাইলাইটস

  1. প্রথম ধর্ষণ করে ৫০ বছরের এক পুরুষ
  2. তারপর তার ছেলে ও ভাইপো সহ আরও পাঁচজন
  3. ছয়জনকেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

১৬ মাসের এক নাবালিকার গায়ে সবার প্রথম থাবাটা বসিয়েছিল ৫০ বছরের এক পুরুষ, উঠে এসেছে এমনি এক অভিযোগ। এরপর যে ব্যক্তি এই কথা জানতে পারে, সেই নিজের দাঁত-নখ বার করতে শুরু করে, একের পর এক আঁচড় লাগে মেয়েটির গায়ে। এমনতর কঠিন অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে, শেষ পর্যন্ত পুলিশের দ্বারস্থ হয় এই নাবালিকা। এই নাবালিকার কথা অনুসারে, ছয়জন ধর্ষণ করেছে তাকে। ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে। পীড়িতা জানিয়েছে, ২০১৫ সালে তার মা এই পৃথিবী ছেড়ে চলে যায়।তখন সে নবম শ্রেণীর ছাত্রী, নিজের পড়াশোনা শেষ করে, বাবা ও ছোট বোনের সাথে বাড়িতে এসে থাকতে শুরু করে। মায়ের মৃত্যুর আগে সে হোস্টেলে থেকে পড়াশোনা করত। একটি বহুজাতিক সংস্থার গার্ডের কাজ করে তার বাবা। কিছু দিন আগে এলাকার এক ক্যাটারিং ব্যবসায়ী তার বাচ্চাদের দেখাশোনা করার দায়িত্ব দেওয়ার জন্য পীড়িতাকে বহাল করে।  

এই সময় পঞ্চাশ বছরের এই অভিযুক্ত, তাকে একটি অশ্লীল ভিডিও দেখায় এবং শারীরিক সম্পর্ক গড়তে বাধ্য করে। অভিযুক্তের ছেলে নিহার ওকালতির ছাত্র, সে এই ঘটনার কথা জানতে পারে, সেও পীড়িতাকে ধর্ষণ করে। এর কয়েক সপ্তাহ বাদে এই অসহায় মেয়েটি, অভিযুক্তের ভাইপোর কাছ থেকে একটি ছেলের সাথে কথা বলার জন্য একটা মোবাইল ধার নেয়। জানা গেছে ছেলেটি ছিল তার স্কুলের বন্ধু। এই ছেলেটি পরে তাকে ব্ল্যাকমেল করতে শুরু করে, তার বাবাকে জানিয়ে দেবে, এমন ভয় দেখিয়ে সেও তাকে ধর্ষণ করতে ছাড়ে না।  

ছেলেটির ভাইও কয়েক সপ্তাহ ধরে, মেয়েটিকে ধর্ষণ করে, তার বয়স ষোলো বছর। গত শুক্রবার রাতে, পাড়ার এক ছেলে তাকে এই বলে ভয় দেখায় যে, তার কোনো কথাই অজানা নয়, সে যদি তার সাথে শারীরিক সম্পর্ক না গড়ে তাহলে সবাইকে এই কথা জানিয়ে দেওয়ার ভয় দেখায়। এই রকম অসহায়  অবস্থার সুযোগ নিয়ে সে ও তার বন্ধু মিলে ধর্ষণ করে পীড়িতাকে। শেষ পর্যন্ত অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে, মেয়েটি সব কথা তার বাবাকে জানাতে বাধ্য হয়, তখন বাবা ও মেয়ে মিলে পুলিশের দ্বারস্থ হয়। সমস্ত অভিযোগ দায়ের হওয়ার পর, এই ছয় জন অভিযুক্তকেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।পুলিশের তরফ থেকে জানানো হয়েছে,  ক্যাটারিং ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে তার ছেলে, তার ১৬ ও ১৮ বছরের ভাইপো, সবাইকেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................