কাশ্মীরে মুর্শিদাবাদের পাঁচ শ্রমিক হত্যায় ‘স্তম্ভিত’ মমতা! পরিবারকে সাহায্যের আশ্বাস

নিহত মুর্শিদাবাদের পাঁচ শ্রমিকের পরিবারকে পশ্চিমবঙ্গ সরকার প্রয়োজনী সমস্ত সহায়তা প্রদান করবে বলে মঙ্গলবার রাতেই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কাশ্মীরে মুর্শিদাবাদের পাঁচ শ্রমিক হত্যায় ‘স্তম্ভিত’ মমতা! পরিবারকে সাহায্যের আশ্বাস

Kulgam Killings: পরিবারগুলিকে সর্বাত্মক সহায়তা দেওয়া হবে জানিয়ে টুইট করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

ফের সাধারণ মানুষের রক্তে ভিজল ভূস্বর্গ! পশ্চিমবঙ্গের সাধারণ পাঁচ শ্রমিককে (Murshidabad Labourers killed)হত্যা করেছে সন্ত্রাসবাদীরা। ‘নৃশংস হত্যাকাণ্ড' (brutal killings) নিয়ে শোক প্রকাশ করেছেন এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। মঙ্গলবার জম্মু ও কাশ্মীরের কুলগাম জেলায় (Jammu and Kashmir's Kulgam) সন্ত্রাসী হামলায় নিহত মুর্শিদাবাদের পাঁচ শ্রমিকের পরিবারকে পশ্চিমবঙ্গ সরকার প্রয়োজনী সমস্ত সহায়তা প্রদান করবে বলে মঙ্গলবার রাতেই জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Chief Minister Mamata Banerjee)। “কাশ্মীরে এই বর্বর হত্যাকাণ্ডে আমরা স্তম্ভিত ও গভীরভাবে শোক প্রকাশ করেছি। মুর্শিদাবাদের পাঁচজন শ্রমিক প্রাণ হারিয়েছেন। নিহতদের পরিবারের দুঃখকে লাঘব করার কোনও ভাষা নেই আমাদের। এই মর্মান্তিক পরিস্থিতিতে পরিবারগুলিকে সর্বাত্মক সহায়তা দেওয়া হবে,” টুইট করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

জম্মু ও কাশ্মীরের কুলগামে ৫জন অ-কাশ্মীরি শ্রমিককে হত্যা করল জঙ্গিরা

সোমবারই অনন্তনাগ জেলায় সন্ত্রাসবাদীরা একজন ট্রাক চালককে গুলি করে এবং সোপোরের একটি বাস স্ট্যান্ডে অপেক্ষমান মানুষদেরও হামলার ছক করে। এই ঘটনার ঠিক একদিন পরই কুলগামে এই পাঁচ শ্রমিকের মৃত্যু ঘটল।

নির্জন রাস্তা, ডাল লেকে নৌকায় সফর ইউরোপিয় ইউনিয়নের নেতাদের

পুলিশ জানিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদের সাগরদিঘির বাসিন্দা ওই শ্রমিকরা সন্ত্রাসবাদীদের আক্রমণের সময় স্থানীয় এক বাসিন্দার বাড়িতে ছিলেন। পাঁচ শ্রমিকের মধ্যে তিনজন শ্রমিকের পরিচয় মিলেছে। তাঁরা হলেন শেখ কামরুদ্দিন, শেখ মহাম্মদ রফিক এবং শেখ মুর্নসুলিন। জহুরুদ্দিন নামে আরও একজন শ্রমিক সন্ত্রাসী হামলায় আহত হয়েছেন। তাঁকে অনন্তনাগ জেলা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়।

“অজ্ঞাতপরিচয় সন্ত্রাসবাদীরা পাঁচজন শ্রমিককে গুলি করে হত্যা করেছে এবং এই হামলায় একজন আহত। আহতকে অনন্তনাগের জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সমস্ত শ্রমিকরাই পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদের বাসিন্দা ছিলেন। ১৮ ব্যাটালিয়নের সেনাবাহিনী ও জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে এই অঞ্চলটিকে ঘিরে রেখেছে,” জানিয়েছে সিআরপিএফ।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের সংসদ সদস্যদের (European Union parliamentarians) একটি প্রতিনিধি দল জম্মু ও কাশ্মীরে সেখানে পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে গতকালই সেখানে ঘুরতে যান। আর তাঁদের সফরের মধ্যেই কাশ্মীরের আসল পরিস্থিতির একেবারে হাতেনাতে টের পেলেন তাঁরা। কেন্দ্র সরকার কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদার অবলুপ্তি ঘটিয়েছে গত ৫ অগাস্ট। সেই থেকেই এই রাজ্য কড়া বিধিনিষেধের মধ্যে রয়েছে।

এই মাসেই এ রাজ্যে পৃথক পৃথক সন্ত্রাসী হামলায় এগারো জন স্থানীয় নাগরিক নিহত হয়েছেন।

More News