This Article is From Feb 25, 2020

দিল্লি সংঘর্ষের সমালোচনায় জাভেদ আখতার, টুইট করে জানালেন ক্ষোভ

দিল্লির জাফরাবাদ, ভজনপুরা, চাঁদবাগ ও ভোজপুর এলাকার হিংসা, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। এমন ভাষাতেই টুইটে সরব হয়েছেন জাভেদ আখতার।

দিল্লি সংঘর্ষের সমালোচনায় জাভেদ আখতার, টুইট করে জানালেন ক্ষোভ

দিল্লি সংঘর্ষ নিয়ে সমালোচনায় সরব জাভেদ আখতার।

হাইলাইটস

  • দিল্লি হিংসার সমালোচনায় জাভেদ আখতার
  • এই হিংসা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, টুইটে সুর চড়িয়েছেন তিনি
  • ঘুরিয়ে বিজেপি নেতা কপিল মিশ্রকে কাঠগড়ায় তুলেছেন তিনি
নয়া দিল্লি:

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বা সিএএ (CAA) নিয়ে ফের উত্তপ্ত দিল্লি। আইন-পন্থী ও বিরোধীদের সংঘর্ষে গত ৩ দিনে ৭ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। মৃতদের মধ্যে দিল্লি পুলিশের এক কনস্টেবল রতন লালও আছেন। সেই সংঘর্ষের সমালোচনায় সোমবার সরব হলেন সাহিত্যিক তথা চিত্রনাট্যকার জাভেদ আখতার (Javed Akhtar)। সোমবার নিজের টুইটে ঘুরিয়ে বিজেপি নেতা কপিল মিশ্রকে (Kapil Mishra) কাঠগড়ায় তোলেন তিনি। দিল্লির (Delhi Violence) জাফরাবাদ, ভজনপুরা, চাঁদবাগ ও ভোজপুর এলাকার হিংসা, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। এমন ভাষাতেই টুইটে সরব হয়েছেন জাভেদ আখতার। তাঁর অভিযোগ, "ধীরে ধীরে সব কপিল মিশ্ররা ঘরের বাইরে আসছেন।" সোমবার টুইটে তিনি দিল্লি পুলিশকেও একহাত নিয়েছেন। তিনি বলেছেন, দিল্লির মানুষকে বোঝানোর চেষ্টা চলছে সিএএ-বিরোধী আন্দোলনের জন্য এই হিংসা। আর কিছুদিন পর দিল্লি পুলিশ নিজের শেষ সমাধানসূত্রে পৌঁছবে। 

দিল্লিতে সংঘর্ষে মৃত বেড়ে ৭, সেনা নামাবেনা সরকার, জানাল সূত্র

জাভেদ আখতারের করা এই টুইটের পক্ষে ও বিপক্ষে মন্তব্য করতে দেখা গিয়েছে একাধিক নেটিজেনকে। হিংসায় মদত দেওয়ার অভিযোগে যেমন বিজেপি ও তার নেতৃত্বকে কাঠগড়ায় তোলা হয়েছে, তেমন সিএএ-বিরোধী শিবিরকেও একহাত নিয়েছেন নেটিজেনরা। মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় বিজেপি সাংসদ গৌতম গম্ভীর, এই হিংসার ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন। তিনি ঘুরিয়ে কপিল মিশ্রর উস্কানিমূলক মন্তব্যকে দায়ী করেছেন। এই ঘটনার পিছনে যে-ই থাকুক, ব্যবস্থা নিক পুলিশ। এদিন দাবি করেছেন গম্ভীর। এদিকে ইন্ডিয়া গেট থেকে প্রায় ১২ কিমি দূরে জাফরাবাদ ও ভজনপুরা। তাই সেই বিক্ষোভের আঁচ নয়া দিল্লিতে এসে যাতে না পৌঁছয় সতর্ক পুলিশ।

‘‘অমিত শাহ আশ্বাস দিয়েছেন সব রকম সাহায্যের'': দিল্লি হিংসা নিয়ে অরবিন্দ কেজরিওয়াল

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এদিন এলজি'র উপস্থিতিতে  বৈঠক করেছেন। সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতে যা করার দরকার, সবই করবে দিল্লি পুলিশ। এমন আশ্বাস মুখ্যমন্ত্রীকে দিয়েছেন অমিত শাহ।