This Article is From Oct 19, 2019

সিবিআইয়ের চার্জশিটে "মার্জনা" তালিকায় পি চিদাম্বরমের বিরুদ্ধে অভিযোগকারী ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়!

INX Media Case: আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়ের রাজসাক্ষী হওয়ার আবেদনটি অনুমোদনের জন্যে গত জুলাইয়ে দিল্লির একটি আদালতে গৃহীত হয়

সিবিআইয়ের চার্জশিটে

তিনি চিদাম্বরমকে ঘুষ দিয়েছেন, এমন দাবি করেন Indrani Mukerjea

নয়া দিল্লি:

এবার কি অনেকটাই স্বস্তি পেতে চলেছেন আইএনএক্স মিডিয়া মামলার অন্যতম কেন্দ্রবিন্দু ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়? জানা গেছে, প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পি চিদাম্বরমের (P Chidambaram) বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তোলা ইন্দ্রাণীকে (Indrani Mukerjea) মামলার চার্জশিটে "মার্জনা তালিকায়" রেখেছে সিবিআই। কেন্দ্রীয়  তদন্ত সংস্থার দেওয়া চার্জশিটে প্রকাশিত সেই ১৫ জনের মধ্যে রয়েছেন ইন্দ্রাণী যাঁদের ক্ষেত্রে কোনও বিচার না করার সুপারিশ করা হয়েছে। সেখানে ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়কে "রাজসাক্ষী হিসাবে ক্ষমা করা হয়েছে" এমন একজন অভিযুক্ত হিসাবে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। পি চিদাম্বরম এবং তাঁর পুত্র কার্তি চিদাম্বরমের সঙ্গে জড়িত আইএনএক্স মিডিয়া মামলায় ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়ের রাজসাক্ষী হওয়ার আবেদনটি অনুমোদনের জন্যে গত জুলাইয়ে দিল্লির একটি আদালতে গৃহীত হয়। সিবিআইয়ের পক্ষ থেকে ইন্দ্রাণীর এই আবেদনকে সমর্থন জানিয়ে বলা হয় যে, ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়ের কাছে এই দুর্নীতি সংক্রান্ত কিছু কথোপকথন রয়েছে যা এই মামলার অন্যতম প্রমাণ হিসাবে কার্যকর হতে পারে।

ইডি হেফাজতে, তিহার জেল ত্যাগ করলেন পি চিদাম্বরম

২০০৮ সালে চিদাম্বরমকে প্রদত্ত ঘুষের বিনিময়ে তাঁর তৎকালীন স্বামী পিটার মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে প্রতিষ্ঠিত আইএনএক্স মিডিয়া বিদেশি বিনিয়োগের ছাড়পত্র পেয়েছিল বলে অভিযোগ করেন ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়। মেয়ে শীনা বোরা হত্যার মামলার বিচারের অপেক্ষায় বর্তমানে মুম্বইয়ের বাইকুলা কারাগারে রয়েছেন তিনি।

তদন্তকারীরা অভিযোগ করেছেন যে আইএনএক্স মিডিয়ার ডিরেক্টর পিটার এবং ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায় সেই সময় প্রবীণ কংগ্রেস নেতার সঙ্গে সাক্ষাত করেন যাতে তাঁদের আবেদনে কোনও বিলম্ব না হয়। পি চিদাম্বরম তখন অর্থমন্ত্রী ছিলেন।

ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায় দাবি করেন যে, অফশোর অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে চিদাম্বরমকে ঘুষ হিসাবে পাঁচ মিলিয়ন ডলার দিয়েছিলেন তাঁরা। একটি সিবিআই সূত্র এনডিটিভিকে জানিয়েছে যে  তদন্ত সংস্থাটি বিদেশি তহবিল সংক্রান্ত বিশদ বিবরণের অপেক্ষা করছে।

যদিও পি চিদাম্বরম এই সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন যে তাঁর বিরুদ্ধে রাজনৈতিক চক্রান্ত করা হচ্ছে। এমনকি ইন্দ্রাণী মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে তিনি কোনওদিন দেখা করেননি বলেও দাবি করেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী।

জেলে ৪ কেজি ওজন কমেছে, চিদাম্বরমের জামিনের আবেদন কপিল সিবালের

আইএনএক্স মিডিয়া দুর্নীতির মামলায় গত ২১ অগাস্ট সিবিআইয়ের হাতে গ্রেফতারির পর ৫ সেপ্টেম্বর থেকে তিহার জেল থেকে বিচারবিভাগীয় হেফাজতে ছিলে চিদাম্বরম। বুধবার এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টর তাঁকে অর্থ পাচার মামলায় গ্রেফতার করে এবং বর্তমানে প্রবীণ ওই কংগ্রেস নেতা শুক্রবার থেকে এক সপ্তাহের জন্য ইডি হেফাজতে রয়েছেন।

দেখুন ১৮.১০.২০১৯-এর সেরা খবর: