"প্রাণায়াম" করোনাভাইরাস মোকাবিলায় প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে পারে: যোগ দিবসে মোদি

Intertnational Yoga Day: ২১ জুন, ২০১৫ তারিখ থেকে শুরু হওয়ার পরে, এই প্রথম এই বছর যোগ দিবস ডিজিটাল হয়েছে। এবার কোনও গণ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে না।

মোদি বলেন, যোগব্যায়াম করার কারণে সারা বিশ্ব জুড়ে প্রচুর করোনাভাইরাস রোগী উপকৃত হচ্ছেন।

নয়াদিল্লি:

“প্রাণায়াম” অর্থাৎ যোগব্যায়ামে শ্বাস নিয়ন্ত্রণের অনুশীলন “প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলতে” সাহায্য করতে পারে! সারাদেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের তীব্রতার মধ্যে আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উপলক্ষে দেশকে সম্বোধন করার সময় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এ কথাই জানিয়েছেন। “কোভিড-১৯ আমাদের শ্বাসযন্ত্রের উপর আক্রমণ করে। আমাদের শ্বাসযন্ত্রকে আরও শক্তিশালী করে তোলে ‘প্রাণায়াম', এটি একটি শ্বাস প্রশ্বাসের অনুশীলন। সাধারণত অনুলোম, বিলোম পরিচিত প্রাণায়ামের রকমফের। এমন অনেক যোগ ব্যায়াম রয়েছে যা আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং বিপাককে শক্তিশালী করে,” রবিবার সকালেই দেশকে জানান প্রধানমন্ত্রী মোদি।

মোদি আরও বলেন, “যোগব্যায়াম করার কারণে সারা বিশ্ব জুড়ে প্রচুর করোনাভাইরাস রোগী উপকৃত হচ্ছেন। এটি আমাদেরকে কঠিন সংগ্রামে লড়ার এবং বিজয়ী হয়ে উঠার আত্মবিশ্বাস দেয়। যোগ আমাদের শারীরিক শক্তি এবং মানসিক শান্তি দেয়!”

গত তিন দিন ধরে করোনাভাইরাস সংক্রমণের সংখ্যায় রেকর্ড বৃদ্ধির পরে ভারত গতরাতে ৪ লাখের সীমাও ছাড়িয়েছে। দেশে এখনও পর্যন্ত ১২ হাজারেরও বেশি রোগী মারা গেছেন। বিশ্বজুড়ে ৮৬ লক্ষেরও বেশি মানুষ মহামারী আক্রান্ত।

২১ জুন, ২০১৫ তারিখ থেকে শুরু হওয়ার পরে, এই প্রথম এই বছর যোগ দিবস ডিজিটাল হয়েছে। এবার কোনও গণ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে না।

এই বছরের থিম হ'ল “বাড়িতে যোগ এবং পরিবারের সঙ্গে যোগ”। “এই বছর, আমরা আমাদের বাড়িতে যোগ দিবস উদযাপন করছি। আজকের দিনটি এমন এক দিন যেখানে আমরা আমাদের পারিবারিক বন্ধনকে আরও দৃঢ় করব”, বলেন প্রধানমন্ত্রী।

যোগব্যায়াম “এক স্বাস্থ্যকর গ্রহের জন্য আমাদের অনুসন্ধিৎসা” বৃদ্ধি করে, বলেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর কথায়, “এটি ঐক্যের শক্তি হিসাবে আবির্ভূত হয়েছে এবং মানবতার বন্ধনকে আরও গভীর করেছে। যোগ কোনও বৈষম্যমূলক আচরণ করে না। এটি বর্ণ, ধর্ম, লিঙ্গ, বিশ্বাস এবং জাতির সীমা ছাড়িয়ে ব্যপ্ত, যে কেউ যোগকে গ্রহণ করতে পারে।”

“আমরা যদি আমাদের স্বাস্থ্য ও আশ্বাসের সুরগুলিকে একত্র করতে পারি তবে সেই দিন খুব বেশি দূরে নয় যখন বিশ্ব সুস্থ ও সুখী মানবতার সাফল্যের মুখোমুখি হবে। যোগ অবশ্যই আমাদের তা করতে সহায়তা করতে পারে,” বলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। তিনি স্বামী বিবেকানন্দের কথা উদ্ধৃতও করে। যোগকে পশ্চিমী বিশ্বের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিয়েছিলেন স্বামীজি।

রবিবার সকালে আন্তর্জাতিক যোগ দিবসে টুইট করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও। “যোগব্যায়াম দেহ ও মন, চিন্তা প্রক্রিয়া ও কর্ম, মানবতা এবং প্রকৃতির মধ্যে সম্প্রীতি স্থাপনের একটি মাধ্যম ... মোদি জির প্রচেষ্টার ফলে সমগ্র মানবতার কাছে ভারতীয় সংস্কৃতির এই মূল্যবান উপহার বিশ্বব্যাপী গ্রহণযোগ্যতা পেয়েছে... বিশ্ব যোগকে গ্রহণ করেছে,” টুইট করেছেন অমিত শাহ।