This Article is From Jun 20, 2020

রাহুলের প্রশ্নের জবাবে এক সেনা জওয়ানের বাবার ভিডিও টুইট করলেন অমিত শাহ

Ladakh Clashes: শনিবার সকালে টুইট বার্তায় রাহুল গান্ধি লেখেন, "প্রধানমন্ত্রী ভারতীয় ভূখণ্ডের বিনিময়ে চিনা আগ্রাসনের কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন"

রাহুলের প্রশ্নের জবাবে এক সেনা জওয়ানের বাবার ভিডিও টুইট করলেন অমিত শাহ

India-China border: এক ভারতীয় সেনা জওয়ানের বাবার ভিডিও বার্তা শেয়ার করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ

হাইলাইটস

  • রাহুল গান্ধিকে সঙ্কটের সময় রাজনীতি না করার অনুরোধ
  • ভিডিও বার্তায় ওই অনুরোধ জানালেন এক ভারতীয় জওয়ানের বাবা
  • সেই ভিডিওটিই টুইটারে শেয়ার করে রাহুলকে কটাক্ষ করলেন অমিত শাহ
নয়া দিল্লি:

এবার রাহুল গান্ধিকে এক সেনা জওয়ানের বাবার ভিডিও পোস্ট করে পাল্টা কটাক্ষ করলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah)। লাদাখের কাছে গালওয়ান উপত্যকায় ভারতীয় সেনার সঙ্গে চিনের সেনাবাহিনীর সংঘর্ষে (Ladakh Clashes) যে ২০ জন জওয়ান আত্মবলিদান দিয়েছেন, সেই ঘটনা নিয়ে বারবার কেন্দ্রীয় সরকারকে কাঠগড়ায় তুলছেন ওই কংগ্রেস নেতা (Rahul Gandhi)। এবার রাহুলের সেই সমালোচনারই যেন জবাব দিলেন এক ভারতীয় সেনা জওয়ানের বৃদ্ধ বাবা। তিনি একটি ভিডিওতে সনিয়া পুত্রের উদ্দেশে বলেছেন, "রাজনীতি করবেন না"। সেই ভিডিও বার্তা সহ একটি টুইটে অমিত শাহ রাহুল গান্ধিকে লেখেন, "একজন বীর জওয়ানের বাবা এই কথা বলেছেন এবং তিনি রাহুল গান্ধিকে বেশ স্পষ্টভাবেই তাঁর বার্তা দিয়েছেন। এখন এমন একটা সময় যখন সমগ্র জাতিকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে, এসময় রাহুল গান্ধিরও উচিত ক্ষুদ্র রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে জাতীয় স্বার্থরক্ষায় সংহতি গড়ে তোলা"।

"খুব তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়েছিল সরকার": লাদাখ সংঘর্ষ নিয়ে ফের তোপ দাগলেন রাহুল গান্ধি

সংবাদ সংস্থা এএনআই সম্প্রতি একটি ভিডিও শেয়ার করে যেখানে দেখা যায়, হলুদ পাগড়ি এবং সাদা কুর্তা পরা একজন বৃদ্ধ মানুষ বলছেন: "ভারতীয় সেনা অত্যন্ত শক্তিশালী। চিন ও এমন আরও দেশকে পরাস্ত করার ক্ষমতা রাখে তাঁরা। রাহুল গান্ধি, আপনার এসময় রাজনীতি করা উচিত নয়। আমার ছেলে লড়াই করেছে ... প্রয়োজনে সে আবারও লড়াই করবে। আমি ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি যাতে সে দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠে"।

লাদাখে ভারত-চীন সংঘর্ষ নিয়ে আলোচনার জন্য শুক্রবার সর্বদলীয় বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সোমবার গালওয়ান উপত্যকায় যে সংঘর্ষ হয় তাতে ২০ জন ভারতীয় সেনা মারা যান। সেই প্রসঙ্গ নিয়েই প্রধানমন্ত্রীকে শনিবার ফের একবার আক্রমণ করেন রাহুল গান্ধি। কেরলের ওয়ানাড কেন্দ্রের সাংসদ টুইটে লেখেন, "প্রধানমন্ত্রী ভারতীয় ভূখণ্ডের বিনিময়ে চিনা আগ্রাসনের কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন। ওই জায়গাটি যদি চিনেরই ছিল তবে: ১. আমাদের সেনাদের কেন হত্যা করা হয়েছিল? ২. তাঁদের ঠিক কোথায় হত্যা করা হয়েছিল?" 

সর্বদল বৈঠকের ঠিক একদিন পরেই ফের মোদিকে ২টি প্রশ্ন করলেন রাহুল গান্ধি

শুক্রবার, প্রধানমন্ত্রী মোদি সর্বদলীয় বৈঠকে বলেছিলেন: "ভারতীয় সীমান্তের ভিতরে কেউ ঢুকতে পারেনি, কোনও পোস্টও দখল করতে পারেনি তারা। ভারত শান্তি ও বন্ধুত্ব বজায় রাখতে চাইলেও দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করার বিষয়টি সবচেয়ে আগে থাকবে"।

ওই দিনও ভারত-চিন সেনা সংঘর্ষ নিয়ে মোদি সরকারকে আক্রমণ করেন রাহুল গান্ধি। তিনি লেখেন, "এটা একেবারেই পরিষ্কার যে: ১. গালওয়ানে চিনা আক্রমণ পূর্বপরিকল্পিতই ছিল। ২. সমস্যার সমাধান না করেই ভারত সরকার দ্রুত ঘুমিয়ে পড়েছিল। ৩. আর সেই ভুলেরই খেসারত দিতে হয়েছে আমাদের শহিদ জওয়ানদের"।