Nirbhaya Case: ফাঁসির সাজাপ্রাপ্তদের শেষ ইচ্ছা শোনার অপেক্ষায় দেশ

Delhi Gangrape Case: আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ফাঁসির সাজা কার্যকর করা হবে দিল্লি গণধর্ষণ মামলায় মৃত্যুদণ্ডাদেশপ্রাপ্ত ৪ আসামির, তিহার জেলে চলছে প্রস্তুতি

Nirbhaya Case: ফাঁসির সাজাপ্রাপ্তদের শেষ ইচ্ছা শোনার অপেক্ষায় দেশ

Nirbhaya case: মুকেশ সিং, বিনয় কুমার, অক্ষয় সিং এবং পবন গুপ্তাকে ফাঁসির সাজা শোনায় আদালত

হাইলাইটস

  • নির্ভয়া কাণ্ডে সাজাপ্রাপ্তদের আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ফাঁসি দেওয়া হবে
  • তার আগে তাদের শেষ ইচ্ছা সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে নিরুত্তর থাকে তারা
  • ২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর নির্ভয়াকে ধর্ষণ করে ৬ জন
নয়া দিল্লি:

আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ভোর ৬টায় ফাঁসির সাজা কার্যকর করা হবে দিল্লি গণধর্ষণ মামলায় (Nirbhaya Case) মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত ৪ আসামির, প্রথা অনুযায়ী তাদের শেষ ইচ্ছা জানতে চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু জানা গেছে, এখনও পর্যন্ত শেষবারের মতো নিজেদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করা বা অন্য কোনও শেষ ইচ্ছার কথা প্রকাশ করেনি তারা। নির্ভয়া কাণ্ডে (Delhi Gangrape Case) মুকেশ সিং, বিনয় কুমার, অক্ষয় সিং এবং পবন গুপ্তাকে ফাঁসির সাজা শোনায় আদালত। তিহার জেলে (Tihar Jail) এখন তাঁদের ফাঁসির প্রস্তুতি চলছে। কিন্তু কারাগার সূত্রে খবর, এখনও পর্যন্ত নিজেদের (Nirbhaya Convicts) শেষ ইচ্ছা সম্বন্ধে কোনও কথাই প্রকাশ করেনি ওই ৪ ফাঁসির সাজাপ্রাপ্ত।

নিয়ম অনুযায়ী মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত আসামিদের কাছে তাদের সাজা কার্যকর হওয়ার আগে জানতে চাওয়া হয় যে সে নিজের পরিবারের কার সঙ্গে কোথায় শেষবারের মতো দেখা করতে চায়। নিজের সম্পত্তি পরিবারের কাউকে দিয়ে যেতে চায় কিনা, সে সম্পর্কেও জানতে চাওয়া হয় সাজাপ্রাপ্তদের কাছে। এ ক্ষেত্রেও সেই নিয়ম অনুযায়ী ৪ আসামিকে প্রশ্ন করা হলেও এখনও পর্যন্ত কোনও উত্তর মেলেনি। অনেকেই মনে করছে, এরকম করে আসলে ফাঁসির সাজা আরও পিছিয়ে দেওয়া যায় কিনা সেই ফিকিরও খুঁজছে তারা। এদিকে অধীর আগ্রহে ওই ৪ আসামির সাজা কার্যকর হওয়ার আশায় প্রহর গুণছেন নির্ভয়ার পরিবার।

'কতবার নাবালকত্ব প্রমাণ করবেন!', Nirbhaya কাণ্ডের অপরাধীকে সুপ্রিম ভর্ৎসনা

২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাতে ২৩ বছরের এক তরুণী তাঁর বন্ধুর সঙ্গে একটি সিনেমা দেখতে গিয়েছিলেন দক্ষিণ দিল্লিতে। ফেরার পথে তাঁরা বাসের জন্য দাঁড়িয়েছিলেন। এই সময় একটি ফাঁকা বেসরকারি বাসে তাঁদের তুলে নেওয়া হয়। বাসে ছিল ছ'জন ব্যক্তি। এরপর তারা ওই তরুণীকে ধর্ষণ ও লোহার রড দিয়ে নির্যাতন করে কয়েক ঘণ্টা ধরে। তারপর রাস্তায় ছুঁড়ে ফেলে দেয়। তাঁর সঙ্গীও আহত হন। ২৯ ডিসেম্বর মৃত্যু হয় ওই তরুণীর। গোটা দেশ রাগে, ক্ষোভে গর্জে উঠেছিল এমন অমানুষিক বর্বরতার বিরুদ্ধে। 

নির্ভয়া কাণ্ডের অপরাধীদের ফাঁসির জন্য জহ্লাদ পবনকে চাইল তিহার জেল: পুলিশ

গত শুক্রবার নির্ভয়া গণধর্ষণ মামলার ৪ আসামির জন্য নতুন করে মৃত্যুদণ্ড পরোয়ানা জারি করা হয়। ১ ফেব্রুয়ারি ওই ৪ আসামির ফাঁসি হবে ভোর ৬ টায়। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ গণধর্ষণের অন্যতম আসামি মুকেশ সিংয়ের দায়ের করা প্রাণভিক্ষার আবেদন প্রত্যাখ্যান করে দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরেই নতুন করে এই ফাঁসির পরোয়ানা জারি করা হয়। এর আগে বিনয় শর্মা, মুকেশ সিং, অক্ষয় কুমার সিং এবং পবন গুপ্তকে ২২ জানুয়ারি সকাল ৭ টায় দিল্লির তিহার জেলে ফাঁসিতে ঝোলানোর কথা ছিল। কিন্তু আসামি মুকেশ নতুন করে ফাঁসি মকুবের আর্জি জানিয়ে আবেদন করায় ওই নির্ঘণ্ট পিছিয়ে যায়।