Tihar Jail


'Tihar Jail' - 29 News Result(s)

  • করোনা আতঙ্কে তিহার জেল থেকে ছাড়া হবে ৩০০০ কয়েদিকে

    করোনা আতঙ্কে তিহার জেল থেকে ছাড়া হবে ৩০০০ কয়েদিকে

    এর মধ্যে ১৫০০ কয়েদি রয়েছে যারা আলাদা আলাদা অপরাধে সাজাপ্রাপ্ত। তাদের প্যারোলে ছাড়া হবে। এছাড়া ১৫০০ কয়েদি রয়েছেন বিচারাধীন।

  • টুইটারে 'হিরো' হলেন নির্ভয়ার হয়ে বিনা পারিশ্রমিকে মামলা লড়া আইনজীবী

    টুইটারে 'হিরো' হলেন নির্ভয়ার হয়ে বিনা পারিশ্রমিকে মামলা লড়া আইনজীবী

    গত সাত বছর ধরে আইনের লড়াই চালিয়ে যেতে হয়েছে নির্ভয়ার বাবা-মাকে, দিতে হয়েছে ধৈর্য্যের পরীক্ষাও। অবশেষে ন্যায়বিচার পেলেন নির্ভয়া (Nirbhaya)। ফাঁসির একদিন আগে বৃহস্পতিবারও দিল্লি হাইকোর্ট এবং সুপ্রিম কোর্টও আবেদন করে বাঁচার চেষ্টা করে অপরাধীরা। কিন্তু তাদের সেই চেষ্টা বিফলে যায়। নজিরবিহীনভাবে একসঙ্গে ৪ আসামিকে ফাঁসিতে ঝোলানো হয় দিল্লির তিহার জেলে। এদিকে, শুক্রবার সকাল থেকেই টুইটারের শীর্ষে ট্রেন্ড করছে  #SeemaKushwaha। কে এই সীমা কুশওয়াহা ? ইনি সেই মহিলা আইনজীবী (Seema Kushwaha) যিনি গত ৭ বছর ধরে ন্যায়বিচারের জন্যে আদালতে যুক্তিতর্কের লড়াই করেছেন।

  • দেশের আইন সংশোধন করা উচিত, এতদিন পর ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় বললেন নির্ভয়ার বাবা

    দেশের আইন সংশোধন করা উচিত, এতদিন পর ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় বললেন নির্ভয়ার বাবা

    এতদিন পর স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন তিনি, গত কয়েক বছর সব কাজ শিকেয় তুলে টানা আদালতে চক্কর কেটেছেন, একটাই চাহিদা ছিল, তাঁর মেয়ের (Nirbhaya) মৃত্যুর অপরাধীরা যেন চরম শাস্তি পায়, তিনি বদ্রীনাথ, নির্ভয়ার বাবা। ২০১২ সালের একটি শীতের রাত তাঁর কাছে হয়তো চিরদিন দুঃস্বপ্ন হয়েই থাকবে, তবু এটুকুই শান্তি যে, যে মানুষ রূপী দানবরা তাঁর মেয়ের উপর শারীরিক নির্যাতন চালায় ও মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়, তাঁদের ফাঁসি শেষপর্যন্ত কার্যকর হয়েছে, না শত চেষ্টার পরেও আইনের ফাঁক গলে বাঁচতে পারেনি নির্ভয়া কাণ্ডের অপরাধীরা। শুক্রবার ভোর ৫টা ৩০ মিনিটে দিল্লির তিহার জেলে নির্ভয়া গণধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের (Nirbhaya case) ৪ আসামিকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে দেন পবন জল্লাদ। এই চরম শাস্তিই তো চেয়েছিল নির্ভয়ার পরিবার। দোষীদের মৃত্যুদণ্ড (Nirbhaya Convicts Hanged) হওয়ায় খুশি নির্ভয়ার মা আশা দেবীও। বিচার বিভাগ ও সরকারকে ধন্যবাদ দিয়েছেন তিনি।

  • মৃত্যু আতঙ্কে রাতভর দু'চোখের পাতা এক করতে পারেনি নির্ভয়া কাণ্ডের সাজাপ্রাপ্তরা

    মৃত্যু আতঙ্কে রাতভর দু'চোখের পাতা এক করতে পারেনি নির্ভয়া কাণ্ডের সাজাপ্রাপ্তরা

    শুক্রবার ভোরের আলো ফুটতে না ফুটতেই যেন সমাপ্তি হল এক অন্ধকারময় অধ্যায়ের (2012 Delhi Rape Case)। ফাঁসি আটকানোর হাজার চেষ্টা সত্ত্বেও শেষ পর্যন্ত চরম সাজাই মেনে নিতে হল নির্ভয়া কাণ্ডের ৪ আসামিকে। দিল্লির এক প্যারামেডিকেল ছাত্রী, যে পরে পরিচিত হয় 'নির্ভয়া' নামে, তাঁকে গণধর্ষণ এবং তারপর নৃশংসভাবে হত্যার অভিযোগে ফাঁসিতে (Nirbhaya case) ঝোলানো হল অক্ষয় ঠাকুর (৩১), পবন গুপ্তা (২৫), বিনয় শর্মা (২৬) ও মুকেশ সিংকে।  দিল্লির তিহার জেলে এই ফাঁসি কার্যকর করা হয়। মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়ায় দীর্ঘ ৭ বছর পর হয়তো কিছুটা হলেও শান্তি পেল অসময়ে চিরঘুমে চলে যাওয়া নির্ভয়ার (Nirbhaya) আত্মা।

  • দীর্ঘ ৭ বছর পর ফাঁসিতে ঝোলানো হল নির্ভয়া কাণ্ডের ৪ আসামিকে

    দীর্ঘ ৭ বছর পর ফাঁসিতে ঝোলানো হল নির্ভয়া কাণ্ডের ৪ আসামিকে

    দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান। হয়তো শেষপর্যন্ত শান্তি পেল নির্ভয়ার আত্মা, বহুদিনের টালবাহানা, দীর্ঘ ৭ বছর ধরে চলা আইনি জটের গেরো পেরিয়ে আজ (শুক্রবার) ভোর সাড়ে ৫টায় ফাঁসি হল নির্ভয়া কাণ্ডের (Nirbhaya case) ৪ অপরাধীর। এই প্রথম দিল্লির তিহার জেলে (Tihar jail) একটি নির্দিষ্ট মামলায় একসঙ্গে ৪ অপরাধীর (Nirbhaya Convicts) ফাঁসি হল, ভারতের ইতিহাসেও এই ঘটনা নজিরবিহীন। মৃত্যুদণ্ডের সাজা কার্যকর করা হল আসামি অক্ষয় ঠাকুর (৩১), পবন গুপ্তা (২৫), বিনয় শর্মা (২৬) ও মুকেশ সিংয়ের বিরুদ্ধে। স্বস্তি পেল এত বছর ধরে আদালতে চক্কর কাটা নির্ভয়ার পরিবার। ২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাতে দিল্লির ২৩ বছর বয়সী এক প্যারা মেডিকেল ছাত্রীকে নির্মমভাবে গণধর্ষণ করে রাজপথে ছুঁড়ে ফেলে দেয় মোট ৬ দুষ্কৃতি। ওই ঘটনায় (2012 Delhi Rape Case) অভিযুক্ত ৬ জনের মধ্যে একজন নাবালক বলে সংশোধনাগার থেকে ৩ বছর পরে ছাড়া পেয়ে যায় । আরেক অভিযুক্ত রাম সিং জেলের মধ্যেই আত্মহত্যা করে। বাকি ৪ আসামিকে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত করে আদালত।

  • মানসিক রোগের চিকিৎসা চেয়ে আদালতে নির্ভয়ার অপরাধী! খারিজ হল বিনয় শর্মার আবেদন

    মানসিক রোগের চিকিৎসা চেয়ে আদালতে নির্ভয়ার অপরাধী! খারিজ হল বিনয় শর্মার আবেদন

    মানিস্ক রোগের চিকিৎসা করাতে দিল্লির এক আদালতে দ্বারস্থ হয়েছিল বিনয় শর্মা। নির্ভয়া-কাণ্ডের অন্যতম এই অপরাধীর সেই আবেদন শনিবার খারিজ করল আদালত।

  • জেলখানার দেওয়ালে মাথা ঠুকতে দেখা গেল নির্ভয়া কাণ্ডের দোষী বিনয় শর্মাকে

    জেলখানার দেওয়ালে মাথা ঠুকতে দেখা গেল নির্ভয়া কাণ্ডের দোষী বিনয় শর্মাকে

    রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা সহ সব রকমের আইনি আবেদন খারিজ হয়ে গেছে তাঁদের, এই মুহূর্তে মৃত্যুর প্রহর গোণা ছাড়া তাদের কাছে আর কাজ নেই। দিল্লি গণধর্ষণ কাণ্ডে (Delhi Gang Rape Case) দোষী সাব্যস্ত ৪ জনেরই ফাঁসি হবে আগামী ৩ মার্চ, জানিয়ে দিয়েছে দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্ট। সোমবার তাঁদের জন্যে একটি নতুন মৃত্যুর পরোয়ানাও জারি করেছে আদালত। ঠিক এই সময় ফের একবার খবরের শিরোনামে এল নির্ভয়া কাণ্ডের (Nirbhaya Case) অন্যতম আসামি বিনয় শর্মা। তিহার জেলের মধ্যে থাকাকালীন গত ১৬ ফেব্রুয়ারি দেওয়ালে মাথা ঠুকে নিজেকে গুরুতর রূপে আহত করার চেষ্টা করে সে, যদিও জেল কর্তৃপক্ষের (Tihar Jail) তৎপরতায় আটকানো হয় তাঁকে (Vinay Sharma)। সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে জেলের দেওয়ালে মাথা ঠোকায় অল্পবিস্তর আহত হলেও বিনয়ের চোট খুব একটা গুরুতর নয়।

  • Nirbhaya: অপরাধীদের নতুন মৃত্যু পরোয়ানার আর্জি খারিজ 

    Nirbhaya: অপরাধীদের নতুন মৃত্যু পরোয়ানার আর্জি খারিজ 

    নির্ভয়া মামলার (Nirbhaya Case) চার অপরাধীর নতুন মৃত্যু পরোয়ানার জন্য তিহার জেল কর্তৃপক্ষের (Tihar Jail Authorities) অনুরোধ শুক্রবার খারিজ করে দিল দিল্লির এক আদালত। ৫ ফেব্রুয়ারি দিল্লি হাইকোর্ট কেন্দ্রের আবেদনের ভিত্তিতে দিল্লি হাইকোর্ট নির্ভয়ার অপরাধীদের আইনি সাহায্য নিতে এক সপ্তাহ সময় বেঁধে দেয়। শুক্রবার দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্টে বিচারক বলেন, ‘‘আমি যুক্তি দিয়ে একমত হতে পারছি না আইনজীবী বৃন্দা গ্রোভারের সঙ্গে এবং তিহার জেলের আবেদন বাতিল করছি।’’

  • Nirbhaya Case: মুকেশ সিংয়ের আবেদন খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট, অক্ষয়ের কিউরিটিভ পিটিশনে এখনও মেলেনি রায়

    Nirbhaya Case: মুকেশ সিংয়ের আবেদন খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট, অক্ষয়ের কিউরিটিভ পিটিশনে এখনও মেলেনি রায়

    ফাঁসি থেকে বাঁচতে আর কোনও বিকল্প বাকি থাকল না নির্ভয়া কাণ্ডের অন্যতম অপরাধী মুকেশ কুমার সিংয়ের হাতে। কেননা বুধবার তাঁর সাজা পুনর্বিবেচনায় আবেদন খারিজ করে দিল দেশের সর্বোচ্চ আদালত। দেশের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ মুকেশের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ করে দিলে সেই প্রত্যাখ্যানকে চ্যালেঞ্জ করেই সুপ্রিম কোর্টে একটি আবেদন করে সে। কিন্তু তার সেই আবেদনে আমল দেয়নি শীর্ষ আদালত। ঘাড়ে নি়ঃশ্বাস ফেলছে মৃত্যু পরোয়ানা, তখনও মৃত্যুদণ্ডের থেকে বাঁচার চেষ্টা করছে দিল্লির নির্ভয়া কাণ্ডের (Nirbhaya Gang-Rape Case) ফাঁসির সাজাপ্রাপ্তরা। ফাঁসির সাজা থেকে বাঁচতে মঙ্গলবারই সুপ্রিম কোর্টে কিউরিটিভ পিটিশন দায়ের করে নির্ভয়া মামলার (Nirbhaya Case) তৃতীয় আসামি অক্ষয় কুমার সিং। এখনও পর্যন্ত তার আবেদনে রায়দান করেনি আদালত। এর আগে দেশের সর্বোচ্চ আদালতে কিউরিটিভ পিটিশন দায়ের করেছিল মুকেশ কুমার সিং এবং পবন কুমার গুপ্তাও। যদিও ওই দুই আসামির আবেদন খারিজ করে দেয় আদালত (Supreme Court)।

  • Nirbhaya Case: ক্রমাগত 'মৃত্যুদণ্ড' পিছতে চাইছে অপরাধীরা, আদালতকে বললেন সরকারি আইনজীবী

    Nirbhaya Case: ক্রমাগত 'মৃত্যুদণ্ড' পিছতে চাইছে অপরাধীরা, আদালতকে বললেন সরকারি আইনজীবী

    মৃত্যুদণ্ড কার্যকর সংক্রান্ত সব নথি দেখতে চেয়ে তিহার জেলকে (Tihar Jail) নোটিশ পাঠানো হয়েছে। অপরাধীদের আইনজীবীর তরফে সেই নথি চাওয়া হয়েছে। একই আবেদন করা হয়েছে দিল্লির একটি আদালতে। সেই আবেদনের শুনানিতে আদালত বলেছে, তিহার জেলকে আর কোনও নির্দেশ পাঠানো হবে না। বিচারক অজয় কুমার শুক্রবার বলেছেন, অপরাধীদের (Nirbhya- Convicts) আইনজীবী মৃত্যুদণ্ড (Execution) সংক্রান্ত সব নথির ছবি তুলে রাখতেন পারবেন।

  • Nirbhaya Case: ফাঁসির সাজাপ্রাপ্তদের শেষ ইচ্ছা শোনার অপেক্ষায় দেশ

    Nirbhaya Case: ফাঁসির সাজাপ্রাপ্তদের শেষ ইচ্ছা শোনার অপেক্ষায় দেশ

    আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ভোর ৬টায় ফাঁসির সাজা কার্যকর করা হবে দিল্লি গণধর্ষণ মামলায় (Nirbhaya Case) মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত ৪ আসামির, প্রথা অনুযায়ী তাদের শেষ ইচ্ছা জানতে চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু জানা গেছে, এখনও পর্যন্ত শেষবারের মতো নিজেদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করা বা অন্য কোনও শেষ ইচ্ছার কথা প্রকাশ করেনি তারা। নির্ভয়া কাণ্ডে (Delhi Gangrape Case) মুকেশ সিং, বিনয় কুমার, অক্ষয় সিং এবং পবন গুপ্তাকে ফাঁসির সাজা শোনায় আদালত। তিহার জেলে (Tihar Jail) এখন তাঁদের ফাঁসির প্রস্তুতি চলছে। কিন্তু কারাগার সূত্রে খবর, এখনও পর্যন্ত নিজেদের (Nirbhaya Convicts) শেষ ইচ্ছা সম্বন্ধে কোনও কথাই প্রকাশ করেনি ওই ৪ ফাঁসির সাজাপ্রাপ্ত।

  • নির্ভয়া কাণ্ডের অপরাধীদের ফাঁসির জন্য জহ্লাদ পবনকে চাইল তিহার জেল: পুলিশ

    নির্ভয়া কাণ্ডের অপরাধীদের ফাঁসির জন্য জহ্লাদ পবনকে চাইল তিহার জেল: পুলিশ

    আগামী ১ ফেব্রুয়ারি নির্ভয়া মামলার (Nirbhaya Case) চার অপরাধীর ফাঁসি। ফাঁসির জন্য উত্তরপ্রদেশের জহ্লাদ পবনকে (UP Hangman Pawan) চেয়েছে দিল্লির তিহার জেল কর্তৃপক্ষ। উত্তরপ্রদেশের জেল অধিকর্তা আনন্দ কুমার একথা জানিয়েছেন। তিনি জানান, ৩১ জানুয়ারি ও ১ ফেব্রুয়ারি এই দু'দিনের জন্য পবনকে চাওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। মীরাটের বাসিন্দা পবন আগেই জানিয়েছিলেন, তিনি নির্ভয়া কাণ্ডের অপরাধীদের ফাঁসিতে ঝোলাতে প্রস্তুত। তিনি বলেছিলেন, ‘‘ওই অপরাধীদের ফাঁসিতে ঝোলানো হলে আমি, নির্ভয়ার বাবা-মা ও দেশের সকলে সত্যিই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলব। এই ধরনের মানুষদের ফাঁসিতেই ঝোলানো উচিত।'' গত সপ্তাহে দিল্লির এক আদালত নতুন করে চার অপরাধীর মৃত্যু পরোয়ানা জারি করে। ১ ফেব্রুয়ারি সকাল ৬টায় তাদের ফাঁসি হওয়ার কথা।

  • আফজল গুরুকে ঝোলানো হয়েছিল যেখানে, সেখানেই নির্ভয়াকাণ্ডের আসামীদের 'ফাঁসির মহড়া' সম্পন্ন

    আফজল গুরুকে ঝোলানো হয়েছিল যেখানে, সেখানেই নির্ভয়াকাণ্ডের আসামীদের 'ফাঁসির মহড়া' সম্পন্ন

    মীরাট থেকে আগত পবন জল্লাদ এই চার আসামীকে ফাঁসিতে ঝোলাবেন। আসামীরা সুস্থ মানসিক অবস্থার মধ্যে রয়েছে কিনা তা নিশ্চিত করার জন্য দণ্ডপ্রাপ্তদের সঙ্গে প্রতিদিনই কথোপকথন চালিয়ে যাচ্ছে কারা কর্তৃপক্ষ।

  • তিহার জেলে 'ডামি' দিয়ে প্রস্তুতি, নির্ভয়া কাণ্ডের দোষীদের ফাঁসির তৎপরতা!

    তিহার জেলে 'ডামি' দিয়ে প্রস্তুতি, নির্ভয়া কাণ্ডের দোষীদের ফাঁসির তৎপরতা!

    মঙ্গলবারই দিল্লি আদালতের বিচারপতি নির্ভয়া কাণ্ডে (Nirbhaya Case) দোষী সাব্যস্ত ৪ জনের মৃত্যু পরোয়ানায় স্বাক্ষর করেছেন। তাঁর নির্দেশ অনুযায়ী পবন গুপ্তা, অক্ষয়, বিনয় শর্মা এবং মুকেশ সিংকে ২২ জানুয়ারি সকাল ৭টায় ফাঁসিতে (Nirbhaya Convicts Hanging) ঝোলানো হবে। কিন্তু তার আগে দিল্লির তিহার জেলে শুরু হয়ে গেল ফাঁসির প্রস্তুতি। জেল কর্তৃপক্ষ (Tihar Jail) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে যে ওই ফাঁসি সফল ভাবে কার্যকর করতে "ডামি" বা পুতুল দিয়ে মহড়া দেওয়া হবে।

  • নির্ভয়ায় সাজাপ্রাপ্তদের ফাঁসিতে মেরঠের ফাঁসুড়ে, বিহারের দড়ি

    নির্ভয়ায় সাজাপ্রাপ্তদের ফাঁসিতে মেরঠের ফাঁসুড়ে, বিহারের দড়ি

    ২০১২ নির্ভয়া গণধর্ষণ, পাশবিক নির্যাতন এবং খুনের ঘটনায় (Nirbhaya Rape Case) সাজাপ্রাপ্তদের ফাঁসি কার্যকর করার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে গতমাসেই, মঙ্গলবার দিল্লি আদালত জানিয়ে দিয়েছে ২২ জানুয়ারি সকাল ৭টায় তাদের ফাঁসি দেওয়া হবে তিহার জেলে(Tihar jail)।

'Tihar Jail' - 29 News Result(s)

  • করোনা আতঙ্কে তিহার জেল থেকে ছাড়া হবে ৩০০০ কয়েদিকে

    করোনা আতঙ্কে তিহার জেল থেকে ছাড়া হবে ৩০০০ কয়েদিকে

    এর মধ্যে ১৫০০ কয়েদি রয়েছে যারা আলাদা আলাদা অপরাধে সাজাপ্রাপ্ত। তাদের প্যারোলে ছাড়া হবে। এছাড়া ১৫০০ কয়েদি রয়েছেন বিচারাধীন।

  • টুইটারে 'হিরো' হলেন নির্ভয়ার হয়ে বিনা পারিশ্রমিকে মামলা লড়া আইনজীবী

    টুইটারে 'হিরো' হলেন নির্ভয়ার হয়ে বিনা পারিশ্রমিকে মামলা লড়া আইনজীবী

    গত সাত বছর ধরে আইনের লড়াই চালিয়ে যেতে হয়েছে নির্ভয়ার বাবা-মাকে, দিতে হয়েছে ধৈর্য্যের পরীক্ষাও। অবশেষে ন্যায়বিচার পেলেন নির্ভয়া (Nirbhaya)। ফাঁসির একদিন আগে বৃহস্পতিবারও দিল্লি হাইকোর্ট এবং সুপ্রিম কোর্টও আবেদন করে বাঁচার চেষ্টা করে অপরাধীরা। কিন্তু তাদের সেই চেষ্টা বিফলে যায়। নজিরবিহীনভাবে একসঙ্গে ৪ আসামিকে ফাঁসিতে ঝোলানো হয় দিল্লির তিহার জেলে। এদিকে, শুক্রবার সকাল থেকেই টুইটারের শীর্ষে ট্রেন্ড করছে  #SeemaKushwaha। কে এই সীমা কুশওয়াহা ? ইনি সেই মহিলা আইনজীবী (Seema Kushwaha) যিনি গত ৭ বছর ধরে ন্যায়বিচারের জন্যে আদালতে যুক্তিতর্কের লড়াই করেছেন।

  • দেশের আইন সংশোধন করা উচিত, এতদিন পর ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় বললেন নির্ভয়ার বাবা

    দেশের আইন সংশোধন করা উচিত, এতদিন পর ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় বললেন নির্ভয়ার বাবা

    এতদিন পর স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন তিনি, গত কয়েক বছর সব কাজ শিকেয় তুলে টানা আদালতে চক্কর কেটেছেন, একটাই চাহিদা ছিল, তাঁর মেয়ের (Nirbhaya) মৃত্যুর অপরাধীরা যেন চরম শাস্তি পায়, তিনি বদ্রীনাথ, নির্ভয়ার বাবা। ২০১২ সালের একটি শীতের রাত তাঁর কাছে হয়তো চিরদিন দুঃস্বপ্ন হয়েই থাকবে, তবু এটুকুই শান্তি যে, যে মানুষ রূপী দানবরা তাঁর মেয়ের উপর শারীরিক নির্যাতন চালায় ও মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়, তাঁদের ফাঁসি শেষপর্যন্ত কার্যকর হয়েছে, না শত চেষ্টার পরেও আইনের ফাঁক গলে বাঁচতে পারেনি নির্ভয়া কাণ্ডের অপরাধীরা। শুক্রবার ভোর ৫টা ৩০ মিনিটে দিল্লির তিহার জেলে নির্ভয়া গণধর্ষণ ও হত্যাকাণ্ডের (Nirbhaya case) ৪ আসামিকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে দেন পবন জল্লাদ। এই চরম শাস্তিই তো চেয়েছিল নির্ভয়ার পরিবার। দোষীদের মৃত্যুদণ্ড (Nirbhaya Convicts Hanged) হওয়ায় খুশি নির্ভয়ার মা আশা দেবীও। বিচার বিভাগ ও সরকারকে ধন্যবাদ দিয়েছেন তিনি।

  • মৃত্যু আতঙ্কে রাতভর দু'চোখের পাতা এক করতে পারেনি নির্ভয়া কাণ্ডের সাজাপ্রাপ্তরা

    মৃত্যু আতঙ্কে রাতভর দু'চোখের পাতা এক করতে পারেনি নির্ভয়া কাণ্ডের সাজাপ্রাপ্তরা

    শুক্রবার ভোরের আলো ফুটতে না ফুটতেই যেন সমাপ্তি হল এক অন্ধকারময় অধ্যায়ের (2012 Delhi Rape Case)। ফাঁসি আটকানোর হাজার চেষ্টা সত্ত্বেও শেষ পর্যন্ত চরম সাজাই মেনে নিতে হল নির্ভয়া কাণ্ডের ৪ আসামিকে। দিল্লির এক প্যারামেডিকেল ছাত্রী, যে পরে পরিচিত হয় 'নির্ভয়া' নামে, তাঁকে গণধর্ষণ এবং তারপর নৃশংসভাবে হত্যার অভিযোগে ফাঁসিতে (Nirbhaya case) ঝোলানো হল অক্ষয় ঠাকুর (৩১), পবন গুপ্তা (২৫), বিনয় শর্মা (২৬) ও মুকেশ সিংকে।  দিল্লির তিহার জেলে এই ফাঁসি কার্যকর করা হয়। মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়ায় দীর্ঘ ৭ বছর পর হয়তো কিছুটা হলেও শান্তি পেল অসময়ে চিরঘুমে চলে যাওয়া নির্ভয়ার (Nirbhaya) আত্মা।

  • দীর্ঘ ৭ বছর পর ফাঁসিতে ঝোলানো হল নির্ভয়া কাণ্ডের ৪ আসামিকে

    দীর্ঘ ৭ বছর পর ফাঁসিতে ঝোলানো হল নির্ভয়া কাণ্ডের ৪ আসামিকে

    দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান। হয়তো শেষপর্যন্ত শান্তি পেল নির্ভয়ার আত্মা, বহুদিনের টালবাহানা, দীর্ঘ ৭ বছর ধরে চলা আইনি জটের গেরো পেরিয়ে আজ (শুক্রবার) ভোর সাড়ে ৫টায় ফাঁসি হল নির্ভয়া কাণ্ডের (Nirbhaya case) ৪ অপরাধীর। এই প্রথম দিল্লির তিহার জেলে (Tihar jail) একটি নির্দিষ্ট মামলায় একসঙ্গে ৪ অপরাধীর (Nirbhaya Convicts) ফাঁসি হল, ভারতের ইতিহাসেও এই ঘটনা নজিরবিহীন। মৃত্যুদণ্ডের সাজা কার্যকর করা হল আসামি অক্ষয় ঠাকুর (৩১), পবন গুপ্তা (২৫), বিনয় শর্মা (২৬) ও মুকেশ সিংয়ের বিরুদ্ধে। স্বস্তি পেল এত বছর ধরে আদালতে চক্কর কাটা নির্ভয়ার পরিবার। ২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাতে দিল্লির ২৩ বছর বয়সী এক প্যারা মেডিকেল ছাত্রীকে নির্মমভাবে গণধর্ষণ করে রাজপথে ছুঁড়ে ফেলে দেয় মোট ৬ দুষ্কৃতি। ওই ঘটনায় (2012 Delhi Rape Case) অভিযুক্ত ৬ জনের মধ্যে একজন নাবালক বলে সংশোধনাগার থেকে ৩ বছর পরে ছাড়া পেয়ে যায় । আরেক অভিযুক্ত রাম সিং জেলের মধ্যেই আত্মহত্যা করে। বাকি ৪ আসামিকে মৃত্যুদণ্ডে দণ্ডিত করে আদালত।

  • মানসিক রোগের চিকিৎসা চেয়ে আদালতে নির্ভয়ার অপরাধী! খারিজ হল বিনয় শর্মার আবেদন

    মানসিক রোগের চিকিৎসা চেয়ে আদালতে নির্ভয়ার অপরাধী! খারিজ হল বিনয় শর্মার আবেদন

    মানিস্ক রোগের চিকিৎসা করাতে দিল্লির এক আদালতে দ্বারস্থ হয়েছিল বিনয় শর্মা। নির্ভয়া-কাণ্ডের অন্যতম এই অপরাধীর সেই আবেদন শনিবার খারিজ করল আদালত।

  • জেলখানার দেওয়ালে মাথা ঠুকতে দেখা গেল নির্ভয়া কাণ্ডের দোষী বিনয় শর্মাকে

    জেলখানার দেওয়ালে মাথা ঠুকতে দেখা গেল নির্ভয়া কাণ্ডের দোষী বিনয় শর্মাকে

    রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমাপ্রার্থনা সহ সব রকমের আইনি আবেদন খারিজ হয়ে গেছে তাঁদের, এই মুহূর্তে মৃত্যুর প্রহর গোণা ছাড়া তাদের কাছে আর কাজ নেই। দিল্লি গণধর্ষণ কাণ্ডে (Delhi Gang Rape Case) দোষী সাব্যস্ত ৪ জনেরই ফাঁসি হবে আগামী ৩ মার্চ, জানিয়ে দিয়েছে দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্ট। সোমবার তাঁদের জন্যে একটি নতুন মৃত্যুর পরোয়ানাও জারি করেছে আদালত। ঠিক এই সময় ফের একবার খবরের শিরোনামে এল নির্ভয়া কাণ্ডের (Nirbhaya Case) অন্যতম আসামি বিনয় শর্মা। তিহার জেলের মধ্যে থাকাকালীন গত ১৬ ফেব্রুয়ারি দেওয়ালে মাথা ঠুকে নিজেকে গুরুতর রূপে আহত করার চেষ্টা করে সে, যদিও জেল কর্তৃপক্ষের (Tihar Jail) তৎপরতায় আটকানো হয় তাঁকে (Vinay Sharma)। সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে জেলের দেওয়ালে মাথা ঠোকায় অল্পবিস্তর আহত হলেও বিনয়ের চোট খুব একটা গুরুতর নয়।

  • Nirbhaya: অপরাধীদের নতুন মৃত্যু পরোয়ানার আর্জি খারিজ 

    Nirbhaya: অপরাধীদের নতুন মৃত্যু পরোয়ানার আর্জি খারিজ 

    নির্ভয়া মামলার (Nirbhaya Case) চার অপরাধীর নতুন মৃত্যু পরোয়ানার জন্য তিহার জেল কর্তৃপক্ষের (Tihar Jail Authorities) অনুরোধ শুক্রবার খারিজ করে দিল দিল্লির এক আদালত। ৫ ফেব্রুয়ারি দিল্লি হাইকোর্ট কেন্দ্রের আবেদনের ভিত্তিতে দিল্লি হাইকোর্ট নির্ভয়ার অপরাধীদের আইনি সাহায্য নিতে এক সপ্তাহ সময় বেঁধে দেয়। শুক্রবার দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্টে বিচারক বলেন, ‘‘আমি যুক্তি দিয়ে একমত হতে পারছি না আইনজীবী বৃন্দা গ্রোভারের সঙ্গে এবং তিহার জেলের আবেদন বাতিল করছি।’’

  • Nirbhaya Case: মুকেশ সিংয়ের আবেদন খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট, অক্ষয়ের কিউরিটিভ পিটিশনে এখনও মেলেনি রায়

    Nirbhaya Case: মুকেশ সিংয়ের আবেদন খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট, অক্ষয়ের কিউরিটিভ পিটিশনে এখনও মেলেনি রায়

    ফাঁসি থেকে বাঁচতে আর কোনও বিকল্প বাকি থাকল না নির্ভয়া কাণ্ডের অন্যতম অপরাধী মুকেশ কুমার সিংয়ের হাতে। কেননা বুধবার তাঁর সাজা পুনর্বিবেচনায় আবেদন খারিজ করে দিল দেশের সর্বোচ্চ আদালত। দেশের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ মুকেশের প্রাণভিক্ষার আবেদন খারিজ করে দিলে সেই প্রত্যাখ্যানকে চ্যালেঞ্জ করেই সুপ্রিম কোর্টে একটি আবেদন করে সে। কিন্তু তার সেই আবেদনে আমল দেয়নি শীর্ষ আদালত। ঘাড়ে নি়ঃশ্বাস ফেলছে মৃত্যু পরোয়ানা, তখনও মৃত্যুদণ্ডের থেকে বাঁচার চেষ্টা করছে দিল্লির নির্ভয়া কাণ্ডের (Nirbhaya Gang-Rape Case) ফাঁসির সাজাপ্রাপ্তরা। ফাঁসির সাজা থেকে বাঁচতে মঙ্গলবারই সুপ্রিম কোর্টে কিউরিটিভ পিটিশন দায়ের করে নির্ভয়া মামলার (Nirbhaya Case) তৃতীয় আসামি অক্ষয় কুমার সিং। এখনও পর্যন্ত তার আবেদনে রায়দান করেনি আদালত। এর আগে দেশের সর্বোচ্চ আদালতে কিউরিটিভ পিটিশন দায়ের করেছিল মুকেশ কুমার সিং এবং পবন কুমার গুপ্তাও। যদিও ওই দুই আসামির আবেদন খারিজ করে দেয় আদালত (Supreme Court)।

  • Nirbhaya Case: ক্রমাগত 'মৃত্যুদণ্ড' পিছতে চাইছে অপরাধীরা, আদালতকে বললেন সরকারি আইনজীবী

    Nirbhaya Case: ক্রমাগত 'মৃত্যুদণ্ড' পিছতে চাইছে অপরাধীরা, আদালতকে বললেন সরকারি আইনজীবী

    মৃত্যুদণ্ড কার্যকর সংক্রান্ত সব নথি দেখতে চেয়ে তিহার জেলকে (Tihar Jail) নোটিশ পাঠানো হয়েছে। অপরাধীদের আইনজীবীর তরফে সেই নথি চাওয়া হয়েছে। একই আবেদন করা হয়েছে দিল্লির একটি আদালতে। সেই আবেদনের শুনানিতে আদালত বলেছে, তিহার জেলকে আর কোনও নির্দেশ পাঠানো হবে না। বিচারক অজয় কুমার শুক্রবার বলেছেন, অপরাধীদের (Nirbhya- Convicts) আইনজীবী মৃত্যুদণ্ড (Execution) সংক্রান্ত সব নথির ছবি তুলে রাখতেন পারবেন।

  • Nirbhaya Case: ফাঁসির সাজাপ্রাপ্তদের শেষ ইচ্ছা শোনার অপেক্ষায় দেশ

    Nirbhaya Case: ফাঁসির সাজাপ্রাপ্তদের শেষ ইচ্ছা শোনার অপেক্ষায় দেশ

    আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ভোর ৬টায় ফাঁসির সাজা কার্যকর করা হবে দিল্লি গণধর্ষণ মামলায় (Nirbhaya Case) মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত ৪ আসামির, প্রথা অনুযায়ী তাদের শেষ ইচ্ছা জানতে চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু জানা গেছে, এখনও পর্যন্ত শেষবারের মতো নিজেদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করা বা অন্য কোনও শেষ ইচ্ছার কথা প্রকাশ করেনি তারা। নির্ভয়া কাণ্ডে (Delhi Gangrape Case) মুকেশ সিং, বিনয় কুমার, অক্ষয় সিং এবং পবন গুপ্তাকে ফাঁসির সাজা শোনায় আদালত। তিহার জেলে (Tihar Jail) এখন তাঁদের ফাঁসির প্রস্তুতি চলছে। কিন্তু কারাগার সূত্রে খবর, এখনও পর্যন্ত নিজেদের (Nirbhaya Convicts) শেষ ইচ্ছা সম্বন্ধে কোনও কথাই প্রকাশ করেনি ওই ৪ ফাঁসির সাজাপ্রাপ্ত।

  • নির্ভয়া কাণ্ডের অপরাধীদের ফাঁসির জন্য জহ্লাদ পবনকে চাইল তিহার জেল: পুলিশ

    নির্ভয়া কাণ্ডের অপরাধীদের ফাঁসির জন্য জহ্লাদ পবনকে চাইল তিহার জেল: পুলিশ

    আগামী ১ ফেব্রুয়ারি নির্ভয়া মামলার (Nirbhaya Case) চার অপরাধীর ফাঁসি। ফাঁসির জন্য উত্তরপ্রদেশের জহ্লাদ পবনকে (UP Hangman Pawan) চেয়েছে দিল্লির তিহার জেল কর্তৃপক্ষ। উত্তরপ্রদেশের জেল অধিকর্তা আনন্দ কুমার একথা জানিয়েছেন। তিনি জানান, ৩১ জানুয়ারি ও ১ ফেব্রুয়ারি এই দু'দিনের জন্য পবনকে চাওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। মীরাটের বাসিন্দা পবন আগেই জানিয়েছিলেন, তিনি নির্ভয়া কাণ্ডের অপরাধীদের ফাঁসিতে ঝোলাতে প্রস্তুত। তিনি বলেছিলেন, ‘‘ওই অপরাধীদের ফাঁসিতে ঝোলানো হলে আমি, নির্ভয়ার বাবা-মা ও দেশের সকলে সত্যিই স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলব। এই ধরনের মানুষদের ফাঁসিতেই ঝোলানো উচিত।'' গত সপ্তাহে দিল্লির এক আদালত নতুন করে চার অপরাধীর মৃত্যু পরোয়ানা জারি করে। ১ ফেব্রুয়ারি সকাল ৬টায় তাদের ফাঁসি হওয়ার কথা।

  • আফজল গুরুকে ঝোলানো হয়েছিল যেখানে, সেখানেই নির্ভয়াকাণ্ডের আসামীদের 'ফাঁসির মহড়া' সম্পন্ন

    আফজল গুরুকে ঝোলানো হয়েছিল যেখানে, সেখানেই নির্ভয়াকাণ্ডের আসামীদের 'ফাঁসির মহড়া' সম্পন্ন

    মীরাট থেকে আগত পবন জল্লাদ এই চার আসামীকে ফাঁসিতে ঝোলাবেন। আসামীরা সুস্থ মানসিক অবস্থার মধ্যে রয়েছে কিনা তা নিশ্চিত করার জন্য দণ্ডপ্রাপ্তদের সঙ্গে প্রতিদিনই কথোপকথন চালিয়ে যাচ্ছে কারা কর্তৃপক্ষ।

  • তিহার জেলে 'ডামি' দিয়ে প্রস্তুতি, নির্ভয়া কাণ্ডের দোষীদের ফাঁসির তৎপরতা!

    তিহার জেলে 'ডামি' দিয়ে প্রস্তুতি, নির্ভয়া কাণ্ডের দোষীদের ফাঁসির তৎপরতা!

    মঙ্গলবারই দিল্লি আদালতের বিচারপতি নির্ভয়া কাণ্ডে (Nirbhaya Case) দোষী সাব্যস্ত ৪ জনের মৃত্যু পরোয়ানায় স্বাক্ষর করেছেন। তাঁর নির্দেশ অনুযায়ী পবন গুপ্তা, অক্ষয়, বিনয় শর্মা এবং মুকেশ সিংকে ২২ জানুয়ারি সকাল ৭টায় ফাঁসিতে (Nirbhaya Convicts Hanging) ঝোলানো হবে। কিন্তু তার আগে দিল্লির তিহার জেলে শুরু হয়ে গেল ফাঁসির প্রস্তুতি। জেল কর্তৃপক্ষ (Tihar Jail) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে যে ওই ফাঁসি সফল ভাবে কার্যকর করতে "ডামি" বা পুতুল দিয়ে মহড়া দেওয়া হবে।

  • নির্ভয়ায় সাজাপ্রাপ্তদের ফাঁসিতে মেরঠের ফাঁসুড়ে, বিহারের দড়ি

    নির্ভয়ায় সাজাপ্রাপ্তদের ফাঁসিতে মেরঠের ফাঁসুড়ে, বিহারের দড়ি

    ২০১২ নির্ভয়া গণধর্ষণ, পাশবিক নির্যাতন এবং খুনের ঘটনায় (Nirbhaya Rape Case) সাজাপ্রাপ্তদের ফাঁসি কার্যকর করার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে গতমাসেই, মঙ্গলবার দিল্লি আদালত জানিয়ে দিয়েছে ২২ জানুয়ারি সকাল ৭টায় তাদের ফাঁসি দেওয়া হবে তিহার জেলে(Tihar jail)।

Your search did not match any documents
A few suggestions
  • Make sure all words are spelled correctly
  • Try different keywords
  • Try more general keywords
Check the NDTV Archives:https://archives.ndtv.com

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com