লাদেন-ভক্ত জাকির আজই দেশে ফিরতে পারেন, হাতে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য

2016 সাল থেকেই মালেশিয়ায় রয়েছেন এই ধর্ম প্রচারক।  তাঁকে বাড়ি দিয়েছে সে দেশের সরকার। শুধু তাই নয় সরকারি আধিকারিকরাও তাঁর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখেন।

জাকির নায়েকের ভাষণে উৎসাহিত হয়েছিল আইএসআইএস জঙ্গি সহ বাকিরা ।

New Delhi:

 ভারতে ফিরতে পারেন বির্তকিত ধর্মপ্রচারক জাকির নায়েক।  মালেশিয়ায় থেকে আজই তিনি  এ দেশে ঢুকতে পারেন। সূত্র মারফৎ এমন তথ্যই হাতে এসেছে এনডিটিভির।  

বছর দুয়েক আগে ঢাকার ক্যাফেতে হামলার পর বেশি করে প্রচারের আলোয় আসেন জাকির। অভিযোগ ওঠে তাঁর বক্তব্য শুনেই উৎসাহ পেয়েছিল জঙ্গিরা। তার মধ্যে ছিল এক আইএস জঙ্গিও। জাকিরের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার  তোড়জোড় শুরু হতেই দেশ ছাড়েন তিনি।  আত্মগোপন করতে  মালেশিয়াকেই বেছে নিয়েছিলেন । সেখান থেকে তাঁর এ দেশে ফেরার খবরে চাঞ্চল্য তৈরি হয়েছে। তৎপরতা শুরু হয়েছে সরকারি স্তরেও। 

তবে দেশে ফেরার কথা মানতে চাননি জাকির।তিনি বলেছেন, "এ রকম কোনও সম্ভবনাই নেই। ভারত আমার কাছে এখন মোটেই নিরাপদ নয়, তাই সেখানে ফেরার কোনও পরিকল্পনা আপাতত আমার নেই। কিন্ত যদি কখনও বুঝি সরকার আমার সঙ্গে সঠিক আচরণ করবে তখন নিশ্চয় মাতৃভূমিতে  ফিরে যাব।' 

সেই 2016 সাল থেকেই মালেশিয়ার পুত্ররাজ্যয় রয়েছেন এই ধর্ম প্রচারক। তাঁকে বাড়ি দিয়েছে সেদেশের সরকার। শুধু তাই নয় সরকারি আধিকারিকরাও তাঁর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখেন।  কিন্ত কেন তাঁকে এত খাতির করা হয় ? সে প্রশ্নের জবাব সরকারই দিতে পারবে বলে প্রসঙ্গ  এড়িয়েছেন জাকির ঘনিষ্ঠরা। দীর্ঘ দিন ধরেই ভারতীয় নিরাপত্তা সংস্থাগুলি তাঁকে ফিরিয়ে আনতে মরিয়া।কিন্ত কাজের কাজ হয়নি। মালয়েশিয়ার যুক্তি তাঁর বিরুদ্ধে রেড কর্নার নোটিশ জারি হয়নি বলে গ্রেফতার করা সম্ভব হচ্ছ না।  কিন্ত তিনি যদি ওখানে কোনও গোলমাল করেন  তাহলে আইন মেনে ব্যবস্থা হবে বলে জানিয়েছেন মালেশিয়ার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। 

ঢাকা বিস্ফোরণের সঙ্গে নাম জড়ানোর আগেও জাকিরকে নিয়ে জলঘোলা হয়েছে। একটি ইউটিউব ভিডিওতে তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছে, " লাদেন দুনিয়ার সবচেয়ে বড় জঙ্গি আমেরিকাকে ভয় দেখিয়েছিলেন। আমি তাঁর সঙ্গে আছি ।'  

Newsbeep