কানাডার প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী করোনা-আক্রান্ত, আতঙ্কের আবহে আইসোলশনে প্রধানমন্ত্রীও

যদিও এখনও জাস্টিন ট্রুডোর শরীরে কোনও লক্ষণ ধরা পড়েনি। বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, তাঁর নিয়মিত শারীরিক পরীক্ষা করা হচ্ছে চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে।

কানাডার প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী করোনা-আক্রান্ত, আতঙ্কের আবহে আইসোলশনে প্রধানমন্ত্রীও

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো করোনা আতঙ্কের সম্মুখীন হয়ে আইসোলেশনে

কানাডার (Canada) প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো (Justin Trudeau) করোনা আতঙ্কের সম্মুখীন হয়ে নিজেকে আইসোলেশনে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে বৃহস্পতিবার তাঁর দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে। বুধবার লন্ডন থেকে ফেরার পর তাঁর স্ত্রী সোফি জর্জি ট্রুডোর শরীরে ফ্লুয়ের লক্ষণ দেখা গিয়েছে। তার মধ্যে হালকা জ্বরও রয়েছে। বিবিসি এমনটা জানাচ্ছে। পরে তাঁর শরীরে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব ধরা পড়ে। বৃহস্পতিবার রাতে একথা জানানো হয়েছে তাঁদের দফতর থেকে।

ট্রুডো দম্পতি বাড়িতেই রয়েছেন। যদিও এখনও জাস্টিন ট্রুডোর শরীরে কোনও লক্ষণ ধরা পড়েনি। বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, তাঁর নিয়মিত শারীরিক পরীক্ষা করা হচ্ছে চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে।

তাঁর দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, প্রাদেশিক মন্ত্রীদের সঙ্গে ওটাওয়ায় আগামী দু'দিনে যে বৈঠকে যোগ দেওয়ার কথা প্রধানমন্ত্রীর তা বাতিল করা হয়েছে। তবে তিনি ফোনে ও ‘ভার্চুয়াল' বৈঠকে অংশ নেবেন। পাশাপাশি বিশেষ করোনা বৈঠকেও অংশ নেবেন তিনি।

আর একজন ফেডেরাল নেতা এনডিপি-র জগমিত সিংহ বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন, তিনিও বাড়িতেই থাকছেন কেননা তাঁর শরীরও ভাল নেই। তবে তিনি জানিয়েছেন, চিকিৎসকদের দাবি, তাঁর শারীরিক অসুস্থার লক্ষণ করোনা ভাইরাসের সঙ্গে মেলে না।

তিনি টুইটারে আরও জানান, ‘‘ওঁদের পরামর্শ মেনে আমি যোগাযোগ কমিয়ে দিচ্ছি, যতক্ষণ না সুস্থ বোধ করছি।''
কানাডায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা এই মুহূর্তে ১০৩। 



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)