৬ দিনের বন্দিদশা কাটিয়ে মারা গেল "বিন লাদেন"!

ফের মৃত্যু হল বিন লাদানের! তবে ইনি বিশ্বত্রাস আল কায়দা নেতা ওসামা বিন লাদেন নন...

৬ দিনের বন্দিদশা কাটিয়ে মারা গেল

অবশেষে মৃত বিন লাদেন!

গুয়াহাটি:

ছয় দিন ধরে বন্দি বিন লাদেন। সহ্য হয়? বিশেষ করে যে বরাবর স্বাধীনভাবে ঘুরে-বেরিয়ে অভ্যস্ত! অবশেষে প্রাণের বিনিময়ে মুক্তি পেল সে। নাম শুনে ভাববেন না, ক-বার মরবে আল-কায়দা নেতা বিন লাদেন? ইনিও বিন লাদেন। তবে বিশ্বত্রাস আতঙ্কবাদী নয়। অসমের নেহাতই নিরীহ এক হাতি। খবর, ছুটির দিনে ভোর সাড়ে পাঁচটায় জীবন থেকে ছুটি পায় ৩৫ বছরের বিন লাদেন। ১১ নভেম্বর ঘুমপাড়ানিয়া ওষুধ দিয়ে পুরুষ হাতিটিকে বন্দি করা হয়  রঙজুলি জঙ্গল (Rongjuli forest division) থেকে। নিয়ে আসা হয় ওরাং জাতীয় অভয়ারণ্যে। 

মার্চের মধ্যে বিক্রি হবে এয়ার ইন্ডিয়া ও ভারত পেট্রোলিয়াম: নির্মলা সীতারামন

বিন লাদেনের আসল নাম কৃষ্ণ। কী করে নাম বদলালো? সেও এক গল্প। আল-কায়দা নেতা ওসামা বিন লাদেনের মৃত্যুর পর সবাই কৃষ্ণকে বিন লাদেন বলে ডাকতে শুরু করে। তবে সে কতটা ক্ষতিকারক ছিল মনুষ্য সমাজের পক্ষে কিংবা আদৌ ক্ষতিকর ছিল কিনা, যায়নি। কিন্তু বন্দিদশাই যে মৃত্যুর কারণ, সেটা অনুমান করতে অসুবিধে হয়নি কারোরই। সাধারণত, ৫-৬ বছরের হাতিকে বিশেষ তত্ত্বাবধানে রাখা হয়। সেখানে ৩৫ বছরের পূর্ণবয়স্ক হাতিকে এভাবে কেন বন্দি করা হল, জানতে পুরো বিষয় খতিয়ে দেখছে কেন্দ্রীয় বনবিভাগ। ইতিমধ্যেই অভিজ্ঞ চিকিৎসকের একটি দলকে পাঠানো হয়েছে বিন লাদেনের ময়না তদন্তের জন্য। 



(এনডিটিভি এই খবর সম্পাদনা করেনি, এটি সিন্ডিকেট ফিড থেকে সরাসরি প্রকাশ করা হয়েছে।)