বেইরুটে ভয়াবহ বিস্ফোরণ! মৃত কমপক্ষে ৭৩, "শোকাহত" প্রধানমন্ত্রী মোদি!

লেবাননের রাষ্ট্রপতি মিশেল আউন বলেছেন যে, বন্দরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছাড়াই সার ও বোমাতে ব্যবহৃত ২,৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট ছয় বছর ধরে সংরক্ষণ করা হয়েছিল।

বেইরুটে ভয়াবহ বিস্ফোরণ! মৃত কমপক্ষে ৭৩,

ধ্বংসস্তূপের তলায় চাপা পড়ার আশঙ্কা আরও বহু মানুষের

নয়াদিল্লি:

মঙ্গলবার রাতে ভয়ঙ্কর এক বিস্ফোরণের সাক্ষী লেবাননের বেইরুট শহর! এতে কমপক্ষে ৭৩ জন নিহত এবং ৪,০০০ এরও বেশি মানুষ আহত হয়েছেন এই ভয়াবহ বিস্ফোরণে। ধ্বংসস্তূপের তলায় চাপা পড়ার আশঙ্কা আরও বহু মানুষের। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আজ সকালেই জানিয়েছেন এই ঘটনায় তিনি “হতবাক ও শোকাহত”।

প্রধানমন্ত্রীর অফিস একটি টুইট বার্তায় লিখেছে, “বেইরুট শহরে বিশাল বিস্ফোরণে প্রাণহানি ও ক্ষয়ক্ষতির ঘটনায় হতবাক এবং শোকস্তব্ধ। শোকাহত পরিবার ও আহতদের প্রতি আমাদের সহমর্মিতা জানাই ও প্রার্থনা করি: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।”

গতকাল, লেবাননের রাজধানী বেইরুটে দু'টি বিশাল বিস্ফোরণ ঘটে। ৭০ জনেরও বেশি মানুষের প্রাণ গিয়েছে এবং হাজারে হাজারে মানুষ আহত হয়েছেন। ক্যামেরায় ধরা পড়া দুই বিস্ফোরণের দৃশ্যে দেখা গিয়েছে বহুতলগুলি কাঁপছে এবং ধ্বংসস্তুপের পাশে মুখ থুবড়ে পড়ে রয়েছেন মানুষ। সূত্রের খবর, বেইরুটের কয়েক বছরের সবচেয়ে শক্তিশালী বিস্ফোরণ এইটি। বন্দরের বিস্ফোরণের আওয়াজ সারা দেশ জুড়ে শোনা গিয়েছে এমনকি পূর্ব ভূমধ্যসাগরীয় দ্বীপ সাইপ্রাসের ২৪০ কিলোমিটার (১৫০ মাইল) দূরে নিকোসিয়া পর্যন্ত শোনা গিয়েছে।

বিস্ফোরণের কারণ তক্ষুণি জানা যায় নি তবে জেনারেল সিকিউরিটির প্রধান আব্বাস ইব্রাহিম জানিয়েছেন, নগরের বন্দরে বিস্ফোরক পদার্থ সংরক্ষণ করা হয়েছিল। লেবাননের রাষ্ট্রপতি মিশেল আউন বলেছেন যে, বন্দরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছাড়াই সার ও বোমাতে ব্যবহৃত ২,৭৫০ টন অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট ছয় বছর ধরে সংরক্ষণ করা হয়েছিল।