সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট দিয়ে মালিয়ার দাবিকে অস্বীকার করলেন জেটলি

একাধিক ব্যাঙ্কের 9 হাজার কোটি টাকা  আত্মসাৎ করার অভিযোগ থাকা  বিজয় মালিয়ার  দাবি দেশ ছাড়ার আগে তাঁর সঙ্গে  কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ  জেটলির দেখা  হয়েছিল।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

2014 সাল থেকে মালিয়ার সঙ্গে দেখা করার জন্য আমি কোনও সময় দিইনি, দাবি জেটলির।

লন্ডনের আদালতে দাঁড়িয়ে অপ্রত্যশিতভাবে সাংবাদিকদের সামনে একটি বোমা ফাটালেন পলাতক ভারতীয় ধনকুবের বিজয় মালিয়া। তিনি দাবি করেন, দেশ ছেড়ে চলে আসার আগে ব্যাঙ্কের ঋণ শোধের ফয়সালা সংক্রান্ত প্রস্তাব নিয়ে তিনি কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করেন। যদিও, মালিয়ার এই বক্তব্য সম্পূর্ণ নস্যাৎ করে দিয়েছেন অরুণ জেটলি। তিনি বলেন, ব্যাঙ্কের সঙ্গে অর্থ জালিয়াতি করে দেশ ছেড়ে পালানোর আগে বিজয় মালিয়ার সঙ্গে তাঁর কখনওই কোনওভাবে সাক্ষাৎ হয়নি। 

একাধিক ব্যাঙ্কের 9 হাজার কোটি টাকা  আত্মসাৎ করার অভিযোগ থাকা  বিজয় মালিয়ার  দাবি দেশ ছাড়ার আগে তাঁর সঙ্গে  কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ  জেটলির দেখা  হয়েছিল। ব্যাঙ্ক ঋণ বাকি থাকার ব্যাপারটি  মিটমাট করতে চেয়েছিলেন তিনি।  বিজয় মালিয়ার এমন মন্তব্যে নতুন করে অক্সিজেন পেয়েছে বিরোধী শিবির। এর পাল্টা ফেসবুক পোস্ট করেছেন অর্থমন্ত্রী।

 জেনে নিন কী লেখা ছিল সেই  পোস্টে? 

তথ্য গত ত্রুটিঃ

বিজয় মালিয়া দাবি করেছেন আমার সঙ্গে তাঁর দেখা হয়েছিল। শুধু তাই নয় তাঁর দাবি তিনি রফাও করতে চেয়েছিলেন। এখানে তথ্যগত ত্রুটি আছে। সেই 2014 সাল থেকে এ পর্যন্ত তাঁর  (মালিয়া) সঙ্গে দেখা করার জন্য আমি কোনও সময় দিইনি। তাই তাঁর  সঙ্গে আলাদা করে দেখা করার প্রশ্ন ওঠে না। কিন্তু তিনি রাজ্য সভার সাংসদ। আর মাঝে মধ্যে সভায় অংশ নিতে আসতেন। সেই সুযোগের অপব্যবহার করেছিলেন মালিয়া। আমি সভা থেকে বেরিয়ে আমার ঘরে যাচ্ছিলাম, তখন তাঁর সঙ্গে আমার দেখা হয়। তিনি আমার সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য সময় চান। পাশ দিয়ে যেতে যেতে আমি শুনেছিলাম তিনি বলছেন, আমি রফা কররা  প্রস্তাব দিয়েছি।  আমি তাঁকে স্পষ্ট করে জানিয়েছিলাম, আমার সঙ্গে কথা বলে কোনও সুবিধা হবে না। তাঁর উচিত ব্যাঙ্কের কর্তাদের সঙ্গে  কথা বলা। শুধু তাই নয় মালিয়া যে কাগজ আমায় দিতে চেয়েছিলেন আমি সেটাও গ্রহণ করিনি। এর বাইরে তাঁর সঙ্গে আর কোনও সাক্ষাৎ আমার হয়নি।

অন্যদিকে এই ঘটনা নিয়ে সরব হয়েছে বিরোধীরা। কংগ্রেসের নেতা আনন্দ শর্মা বলেন, "ব্যাঙ্কের টাকা লুঠ করে নিয়ে দেশ ছেড়ে পালিয়েছিল বিজয় মালিয়া। সরকারের কাছেও এই বিষয়ে তথ্য ছিল। তাহলে, সংসদে দাঁড়িয়ে অর্থমন্ত্রী যখন বিজয় মালিয়ার প্রসঙ্গ উত্থাপন করেছিলেন, তখন তাঁর সঙ্গে মালিয়ার দেখা হওয়ার প্রসঙ্গটি চেপে গেলেন কেন"?



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর, আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

পড়ুন | Read In

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................