কী ছিলেন আর কী হলেন! কোলাজ ছবিতে স্মৃতি সরণিতে অমিতাভের সফর

পাশাপাশি এই দুই ছবি যেন নতুন করে মনে করিয়ে দেয় সেই পুরনো প্রবচন—‘দেহ পট সনে নট, সকলই হারায়।’

কী ছিলেন আর কী হলেন! কোলাজ ছবিতে স্মৃতি সরণিতে অমিতাভের সফর

এই ছবিটাই শেয়ার করেছেন অমিতাভ বচ্চন।

হাইলাইটস

  • ‘কভি কভি’ ও ‘গুলাবো সিতাবো’ ছবির কোলাজ শেয়ার করলেন অমিতাভ বচ্চন
  • ‘‘৪৪ বছর পরে’’ লিখেছেন বিগ বি
  • ছবিতে ধরা পড়েছে ৪৪ বছরের ব্যবধানে অমিতাভ বচ্চনের দুই লুক
নয়াদিল্লি:

আবারও ইনস্টাগ্রামে (Instagram) একটি থ্রোব্যাক ছবি শেয়ার করলেন অমিতাভ বচ্চন (Amitabh Bachchan)। ৭৭ বছরের মহাতারকা বৃহস্পতিবার যে ছবি শেয়ার করেছেন তা দেখলে মুহূর্তেই যেন অতীতে পৌঁছে যাওয়া যায়। ‘এখন আর তখন' বিষয়ক এই ছবিতে একদিকে রয়েছে তাঁর ১৯৭৬ সালের ‘কভি কভি' ছবির লুক। অন্যদিকে রয়েছে তাঁর আগামী ছবি ‘গুলাবো সিতাবো' (Gulabo Sitabo) ছবির লুক। পাশাপাশি এই দুই ছবি যেন নতুন করে মনে করিয়ে দেয় সেই পুরনো প্রবচন—‘দেহ পট সনে নট, সকলই হারায়।' ছবিটি শেয়ার করে অমিতাভ লেখেন ‘‘শ্রীনগর, কাশ্মীর... কভি কভি... লিখছিলাম ‘কভি কভি মেরে দি‌ল মে খেয়াল আতা হ্যায়' কবিতাটি।'' সেই সঙ্গে ‘গুলাবো সিতাবো' প্রসঙ্গে তিন‌ি লেখেন, ‘‘লখনউ, মে মাস... ৪৪ বছর পরে (১৯৭৬-২০২০), ‘গুলাবো সিতাবো' এবং ‘বন কে মাদারি কা বান্দর' গানটি। কী ছিলাম আর কী বানিয়ে দিল এখন।''

অজয় দেবগণ শুরু করলেন ‘মিশন ধারাভি', করবেন ৭০০ পরিবারকে সাহায্য

যশ চোপড়া পরিচালিত ‘কভি কভি' ছবিতে অমিত মালহোত্রার ভূমিকায় ছিলেন অমিতাভ বচ্চন। রাখি গুলজার অভিনয় করেছিলেন পূজা খান্নার চরিত্রে। তাঁরা ছবিতে পরস্পরের প্রেমে পড়েছিলেন। কিন্তু পূজার বিয়ে হয়ে শশী কাপুর অভিনীত চরিত্র বিজয় খান্ন‌ার সঙ্গে। এদিকে অমিতাভের বিয়ে হয় অঞ্জু মালহোত্রার (ওয়াহিদা রহমান) সঙ্গে। অনেক পরে পূজা-বিজয়ের ছেলে অঞ্জলির মেয়ের প্রেমে পড়ে। নতুন মোচড় আসে পুরনো সম্পর্কে। বহু পুরস্কার পেয়েছিল সুপারহিট এই ছবি। আর সাহির লুধিয়ানভির লেখা গান ‘কভি কভি মেরে দিল মে' হয়ে তুমুল জনপ্রিয়। সেরা গীতিকারের ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পান তিনি।

অন্নদাতা সলমন খান, ঈদে ৫,০০০ পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন অভিনেতা

এদিকে ‘গুলাবো সিতাবো' ছবিতে বিগ বি অভিনীত চরিত্রের নাম মির্জা। ছবিতে তিনি বাড়িওয়া‌লা। তাঁর ভাড়াটে আয়ুষ্মান খুরানা। চরিত্রটির নাম বাঁকে। দেখে নিন ছবির ট্রেলার:

সুজিত সরকার এই ছবির পরিচালক। এর আগেও তিনি অমিতাভ বচ্চনের সঙ্গে কাজ করেছেন, ‘শুবাইট', ‘পিকু' ও ‘পিঙ্ক'-এ।