দিল্লি হিংসা স্থায়ী হয়েছিল ৩৬ ঘন্টা, শান্তি ফেরানোয় পুলিশকে ধন্যবাদ: অমিত শাহ

গত সপ্তাহ থেকে দিল্লি হিংসা নিয়ে আলোচনার দাবি জানিয়েছে বিরোধীরা, এদিন তারই উত্তর দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

দিল্লি হিংসা নিয়ে আলোচনায় মঙ্গলবার জবাব দেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ

নয়াদিল্লি:

গতমাসে প্রশংসনীয় কাজ করেছে দিল্লি পুলিশ (Delhi Police), শহরের ৪ শতাংশ এলাকা, ১৩ শতাংশ জনসংখ্যা এবং ৩৬ ঘন্টা স্থায়ী ছিল দিল্লিতে হিংসার (Delhi Violence) ঘটনা, বুধবার এমনটাই বললেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) । তিনি আরও বলেন, পুলিশের সঙ্গে লাগাতার আলোচনার মধ্যে দিয়ে, পরিস্থিতির দিকে পর্যবেক্ষণ করছিলেন। অমিত শাহ জানান, ২৪ ফেব্রুয়ারি দুপুর ২টো হিংসার প্রথম খবর আসে, ২৫ ফেব্রুয়ারি রাত ১১টায় শেষ খবর পাওয়া যায়। তাঁর কথায়, “আমি রেকর্ডে বলছি, ২৫ ফেব্রুয়ারির পর, সংঘর্ষের কোনও ঘটনা ঘটেনি। এই সংঘর্ষের ঘটনার রাজনীতিকরণ করার চেষ্টা হয়েছে”। গত সপ্তাহ থেকে দিল্লি হিংসা নিয়ে আলোচনার দাবি জানিয়েছে বিরোধীরা, এদিন তারই উত্তর দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

বিরোধীদের প্রবল কটাক্ষের মধ্যেই তিনি বলেন, “পুলিশ কী করছিল, তা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন সাংসদরা। প্রশ্ন তোলা, বিরোধীদের অধিকার। কিন্তু যখন পুলিশ সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছিল, সংঘর্ষের সঙ্গে লড়াই চালাচ্ছিল, আমাদের বোঝা উচিত”।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সংঘর্ষের ঘটনার ভিডিও চেয়েছে সরকার। তাঁর কথায়, “আমরা হাজারখানেক ভিডিও পেয়েছি। অভিযুক্তদের খুঁজতে আমরা মুখ দেখে চিহ্নিত করছি। এটা একটা সফটওয়ার, ফলে, তা ধর্মের ওপর ভিত্তি করে হতে পারে না”।

তিনি বলেন, সফটওয়ারটি ১,১০০ মানুষকে চিহ্নিত করতে সাহায্য করেছে। তাঁর কথায়, “উত্তরপ্রদেশ থেকে আসা ৩০০ মানুষকে আমরা চিহ্নিত করেছি”।

উত্তরপূর্ব দিল্লির জাফরাবাদে নাগরিকত্ব সংশোধন আইনের পক্ষে ও বিপক্ষে বিক্ষোভকারীদের সংঘর্ষের মধ্যে দিয়ে দিল্লিতে হিংসা ছড়িয়ে পড়ে। দিল্লিতে হিংসায় ৫০ জনের মৃত্যু হয় এবং ২০০ জনের বেশি আহত হন।

সংসদে বেশ কয়েকদিন ধরে বিষয়টি নিয়ে আলোচনার দাবি জানিয়েছে কংগেরেস, তাদের অভিযোগ, দিল্লি পুলিশের নিষ্ক্রিয়তার জন্যই বেশ কিছুদিন ধরে সংঘর্ষ স্থায়ী হয়েছে। তাদের দাবি, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের থেকে নির্দেশ নিচ্ছিল পুলিশ।

Listen to the latest songs, only on JioSaavn.com