This Article is From Feb 28, 2020

CAA কারও নাগরিকত্ব ছিনিয়ে নিতে তৈরিই হয়নি: উড়িষ্যায় দাবি অমিত শাহের

অমিত শাহ এবং কেন্দ্রের বিজেপি সরকার বারেবারে মানুষকে জানাতে চেয়েছেন যে এই আইনটি কেবল প্রতিবেশী দেশগুলিতে যারা ধর্মীয় নিপীড়নের মুখোমুখি হয়েছেন তাদের সাহায্য করতেই তৈরি।

CAA কারও নাগরিকত্ব ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য তৈরিই হয়নি বলে দাবি অমিত শাহের

হাইলাইটস

  • বিরোধীরা মিথ্যা কথা বলছেন! উড়িষ্যায় অভিযোগ অমিত শাহের
  • "নাগরিকত্ব দেওয়ার আইন", দাবি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর
  • ভুবনেশ্বরে এক সমাবেশে ভাষণ দেন অমিত শাহ
নয়াদিল্লি/ভুবনেশ্বর:

বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের (Citizenship Amendment Act) সমালোচনা করতে গিয়ে বিরোধীরা মিথ্যা কথা বলছেন! উড়িষ্যায় এক সমাবেশে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Union Home Minister Amit Shah) শুক্রবার এই অভিযোগ তুলে বলেছেন, যে আইন নিয়ে সারা দেশে মারাত্মক বিক্ষোভ চালাচ্ছে বিরোধীরা তা কারও নাগরিকত্ব ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য তৈরিই হয়নি।

“BSP (বহুজন সমাজ পার্টি), SP (সমাজবাদী পার্টি), কমিউনিস্ট, কংগ্রেস এবং মমতা দিদি CAA-র বিরোধী! কারণ তারা বলছেন যে সংখ্যালঘুরা তাদের নাগরিকত্ব হারাবে। তারা কেন মিথ্যা বলছেন? সিএএ নাগরিকত্ব দেওয়ার আইন, এটা কারও নাগরিকত্ব কেড়ে নিতে তৈরি হয়নি,” ভুবনেশ্বরে এক সমাবেশে অমিত শাহ বলেন।

ধর্মকে এই প্রথমবার ভারতীয় জাতীয়তার পরীক্ষার মাপকাঠি করা হয়েছে। সরকারের দাবি সিএএ পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান থেকে আসা অমুসলিম শরণার্থীদের নাগরিকত্ব পাওয়ার পথ সহজ করে তুলবে।

অমিত শাহ এবং কেন্দ্রের বিজেপি সরকার বারেবারে মানুষকে জানাতে চেয়েছেন যে এই আইনটি কেবল প্রতিবেশী দেশগুলিতে যারা ধর্মীয় নিপীড়নের মুখোমুখি হয়েছেন তাদের সাহায্য করতেই তৈরি।

তবে বিরোধী দলগুলির অভিযোগ, প্রস্তাবিত ন্যাশনাল রেজিস্টার অব সিটিজেনের (এনআরসি) সঙ্গে মিলে সিএএ কেবলমাত্র মুসলিমদেরই লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করে দেশছাড়া করবে যাদের নাগরিকত্ব প্রমাণের জন্য প্রয়োজনীয় দলিল নেই।