Chandrayaan 2: প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বসে চন্দ্রযানের অবতরণ দেখবে ৭০ ছাত্র

সারা দেশের প্রায় ৭০ জন ছাত্র একসঙ্গে সেই ঐতিহাসিক মুহূর্তের সঙ্গী হবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Modi) সঙ্গে।

Chandrayaan 2: প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বসে চন্দ্রযানের অবতরণ দেখবে ৭০ ছাত্র

চন্দ্রযান-২ মিশন সফল হলে আমেরিকা, রাশিয়াও চিনের পর চতুর্থ দেশ হিসেবে এই কৃতিত্ব অর্জন করবে ভারত।

বেঙ্গালুরু:

শনিবার চন্দ্রযান-২ (Chandrayaan 2) ছোঁবে চন্দ্রপৃষ্ঠ। সেই উপলক্ষে সারা দেশের প্রায় ৭০ জন ছাত্র একসঙ্গে সেই ঐতিহাসিক মুহূর্তের সঙ্গী হবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Modi) সঙ্গে। ইসরোর অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতায় প্রত্যেক রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল থেকে বেছে নেওয়া হয়েছে সেরা দুই স্কোরারকে। তারা সবাই বেঙ্গালুরুতে ইসরোর (ISRO) কেন্দ্র থেকে চন্দ্রযান-২-এর চন্দ্রাবতরণের সাক্ষী হবে। ‘লাইভ' দেখবে ওই ঘটনাটি। ইসরোর এক বর্ষীয়ান আধিকারিক সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন, ‘‘সব মিলিয়ে প্রায় ৭০ জন। তারা সবাই প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বসে অবতরণ ‘লাইভ' দেখবে।'' MyGov.in-এর সঙ্গে যৌথভাবে ইসরো আয়োজন করেছি‌ল একটি কুইজ প্রতিযোগিতার। গত ১০ থেকে ২৫ আগস্ট আয়োজিত হয়েছিল ওই কুইজ। মহাকাশ গবেষণা সম্পর্কে সকলকে সচেতন করতেই ওই কুইজের আয়োজন করা হয়েছিল।

ইসরো জানিয়েছে, ১০ মিনিটে সর্বোচ্চ ২০টি প্রশ্নের উত্তর দিতে হত ওই কুইজে।

MyGov.in থেকে জানা যাচ্ছে, কুইজের শর্ত ছিল ‘‘প্রত্যেক রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের দুই সেরা ছাত্রকে (অষ্টম থেকে দশম শ্রেণির মধ্যে) ইসরো আমন্ত্রণ জানাবে বেঙ্গালুরু সেন্টারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ন‌রেন্দ্র মোদির সঙ্গে বসে চন্দ্রযান-২-এর অবতরণ দেখার জন্য।''

Chandrayaan 2: চন্দ্রযান-২ থেকে আলাদা হয়েছে ল্যান্ডার বিক্রম, শুরু অপেক্ষা

আশা করা হচ্ছে, ল্যান্ডার ‘বিক্রম' শনিবার রাত ১.৩০ থেকে ২.৩০-এর মধ্যে চাঁদের মাটি ছোঁবে।

Newsbeep

চন্দ্রযান-২ মিশন সফল হলে আমেরিকা, রাশিয়াও চিনের পর চতুর্থ দেশ হিসেবে চাঁদে সঠিক ভাবে অবতরণের কৃতিত্ব ‌অর্জন করবে ভারত। চাঁদের দক্ষিণ মেরুতে অবতরণ করবে সেটি। চাঁদের এই দিকটি এখনও মা‌নুষের কাছে অনেকটাই অজ্ঞাত রয়েছে।

Chandrayaan 2: কক্ষপথের কৌশলে চূড়ান্ত সাফল্য, ভারতের চাঁদে অবতরণ শুধু সময়ের অপেক্ষা

মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার থেকে ২০ ভাগ কম খরচে ইসরো চন্দ্রাভিযানের পরিকল্পনা করেছে। ১০০০ কোটি টাকা খরচ হয়েছে এই মিশন বাবদ, যা সাম্প্রতিক হলিউড ব্লকবাস্টারের (অ্যাভেঞ্জার্স: এন্ড গেম) তৈরির থেকে কম! চন্দ্রযান-২ সম্পর্কে ইসরোর চেয়ারম্যান কে সিভান জানিয়েছেন, চন্দ্রপৃষ্ঠে অবতরণের পরে চাঁদের মাটিতে প্রাকৃতিক সম্পদের সন্ধান করবে সেটি। খুঁজে দেখবে চাঁদে জলের অস্তিত্ব। এবং অবশ্যই ‘হাই রেজলিউশন' ছবি তুলে আনবে।