লকডাউনের মধ্যেই শ্রীনগরে ৪ বিদেশি পর্যটককে ঘিরে বিতর্ক, শুরু তদন্ত

শ্রীনগরের বাসিন্দা এক ৬০ বছরের বৃদ্ধার শরীরে নোভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তিনি সম্প্রতি সৌদি আরব থেকে তীর্থযাত্রা সেরে ফিরেছিলেন।

লকডাউনের মধ্যেই শ্রীনগরে ৪ বিদেশি পর্যটককে ঘিরে বিতর্ক, শুরু তদন্ত

জানা গিয়েছে, ওই পর্যটকদের বৃহস্পতিবার ফেরত পাঠানো হয়েছে।

হাইলাইটস

  • চারজন বিদেশি পর্যটকের শ্রীনগরে আসা নিয়ে বিতর্ক
  • বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে
  • বৃহস্পতিবারই ফেরত পাঠানো হয়েছে তাঁদের
শ্রীনগর:

জম্মু ও কাশ্মীরে প্রথম করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে সম্প্রতি। এই পরিস্থিতিতে লকডাউন থাকা সত্ত্বেও চারজন বিদেশি পর্যটকের এখানে আসা নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হল। ওই চারজনের মধ্যে দু'জন ইতালির বাসিন্দা। বুধবার তাঁরা শ্রীনগরে আসেন। প্রসঙ্গত, কাল থেকেই এখানে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। শোনা যাচ্ছে, ওই পর্যটকরা জম্মু ও কাশ্মীরে আসার আগে যথেচ্ছ ভাবে ঘুরে বেড়িয়েছেন দেশের বিভিন্ন প্রান্তে। তার মধ্যে রয়েছে রাজধানী দিল্লিও। সরকারি সূত্র জানাচ্ছে, চারজন পর্যটককেই বৃহস্পতিবার ফেরত পাঠানো হয়েছে। বুধবার শ্রীনগরের বাসিন্দা এক ৬০ বছরের বৃদ্ধার শরীরে নোভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তিনি সম্প্রতি সৌদি আরব থেকে তীর্থযাত্রা সেরে ফিরেছিলেন বলে জানা গিয়েছে।

বাড়ছে আতঙ্ক, দেশে ১৬৯ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত, জানাল স্বাস্থ্যমন্ত্রক

শ্রীনগরের খন্নর এলাকার বাসিন্দা ওই মহিলা বহু মানুষের সংস্পর্শে এসেছেন বলে জানা গিয়েছে। প্রশাসনের তরফে সকলকে জানানো হয়েছে, ওই মহিলার সংস্পর্শে যাঁরাই এসেছেন, তাঁরা যেন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে এসে পরীক্ষা করান।

শ্রীনগরের সমস্ত দোকানবাজার বন্ধ রয়েছে বুধবার থেকেই। বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও আধা সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে রাজ্যজুড়ে।

করোনা আক্রান্ত সন্দেহে দিল্লির হাসপাতালে ভর্তি এক রোগীর ৭ম তলা থেকে মরণঝাঁপ

রাজ্য সরকার এর আগেই সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হোটেল, রেস্তোরাঁ, ক্লাব, জিম ইত্যাদি বন্ধ করে দিয়েছে। ২০টির বেশে জেলায় জারি করা হয়েছে ১৪৪ ধারা।

এমনিতেই গত ৫ আগস্ট সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করে দেওয়ার পর থেকেই লকডাউনের পরিস্থিতি রয়েছে জম্মু ও কাশ্মীরে। তবে এখন অবশ্য সেই কারণে জারি করা প্রায় সব নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হয়েছে। তবে এখনও ইন্টারনেট পরিষেবা চালু হয়নি। এই অবস্থায় করোনা ভাইরাসের কারণে নতুন করে জারি হওয়া লকডাউন পরিস্থিতিতে ৩জি/৪জি ইন্টারনেট পরিষেবা স্বাভাবিক করার আর্জি জানাচ্ছেন রাজ্যবাসী।