This Article is From Oct 03, 2018

যাত্রীদের জন্য ভারতেও কি চলবে হাইপারলুপ ক্যাপসুল? জেনে নিন

5 টনের এই ক্যাপসুলে আছে 72 টি সেন্সর, 75,000 রাইভেট এবং 7,200 বর্গ মিটার ফাইবার। HyperloopTT এর "Vibranium"- বিশেষভাবে তৈরি দ্বৈত স্তর স্মার্ট যৌগিক উপাদান দিয়ে তৈরি হয়েছে ক্যাপসুলটি।

যাত্রীদের জন্য ভারতেও কি চলবে হাইপারলুপ ক্যাপসুল? জেনে নিন

HyperloopTT তার প্রথম পরিবহন ক্যাপসুলের উন্মোচন করল স্পেনের পুয়ের্তো দে সান্তা মারিয়াতে

সান ফ্রান্সিসকো:

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হাইপারলুপ পরিবহন প্রযুক্তি বা HyperloopTT তার প্রথম পরিবহন ক্যাপসুলের উন্মোচন করল স্পেনের পুয়ের্তো দে সান্তা মারিয়াতে। 2019 সালে যাত্রীদের পরিবহনের জন্য প্রস্তুত হবে এই ক্যাপসুলটি।

32 মিটার লম্বা "Quintero One" যাত্রী ক্যাপসুলটি ফ্রান্সের HyperloopTT-র গবেষণা ও উন্নয়ন কেন্দ্রকে হস্তান্তরিত করা হবে প্রথমে। প্রথম বাণিজ্যিক ব্যবহারের আগে আরও কিছু মেরামত্র জন্য সেখানে কাজ করা হবে।

"2019 সালে এই ক্যাপসুলটি সম্পূর্ণরূপে ব্যবহারযোগ্য হবে এবং যাত্রীদের জন্য প্রস্তুত করা হবে," বলেন HyperloopTT-এর চেয়ারম্যান ও সহ-প্রতিষ্ঠাতা বিবপ গ্রেস্তা।

গ্রেস্তা বলেন, “সরকারের নিরাপত্তা সংক্রান্ত নির্দেশিকা এবং বীমা কাঠামোর প্রধান সমস্যাগুলির সমাধান করার পথে এগিয়ে গিয়েছি আমরা। হাইপারলুপকে বিশ্বের সামনে হাজির করার মুহূর্তের খুব কাছাকাছি রয়েছি আমরা।"

5 টনের এই ক্যাপসুলে আছে 72 টি সেন্সর, 75,000 রাইভেট এবং 7,200 বর্গ মিটার ফাইবার। HyperloopTT এর "Vibranium"- বিশেষভাবে তৈরি দ্বৈত স্তর স্মার্ট যৌগিক উপাদান দিয়ে তৈরি হয়েছে ক্যাপসুলটি।

HyperloopTT এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও ডার্ক আহলবোর্ন বলেন, "এই ক্যাপসুল তৈরিতে সেরা নকশা নির্মাতা, প্রকৌশলী ও উদ্ভাবনী শক্তির মানুষদের নিয়োগ করা হয়, এক বছরের সময় লেগেছে নির্মাণে।"

মে মাসে HyperloopTT অন্ধ্র প্রদেশে হাইপারলুপ পরিবহন ব্যবস্থা চালু করার জন্য প্রস্তাব দিয়েছিল।  700-800 কিলোমিটার দীর্ঘ ইন্টিগ্রেটেড পাবলিক ট্রানজিট সিস্টেম-এর অংশ হিসেবে অনন্তপুর, অমরাবতী, বিজয়ওয়াড়া এবং বিশাখাপত্তনমকে সংযুক্ত করার প্রস্তাব ছিল।

মহারাষ্ট্র সরকারও মুম্বাই-পুণ হাইপারলুপ নির্মাণের জন্য রিচার্ড ব্রান্সনের নেতৃত্বে ভার্জিন গ্রুপের সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।

HyperloopTT চীনে প্রথম হাইপারলুপ ব্যবস্থা নির্মাণ করতে চলেছে। গুইঝোউ প্রদেশে টেস্ট ট্র্যাক চালু করার জন্য দেশের সঙ্গে একটি চুক্তি করেছে এই সংস্থা।