পুজোয় বৃষ্টি-ভোগান্তির সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেরী করে এ রাজ্য থেকে বিদায় নেবে বর্ষা

সাধারণত সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম ১ বা ২ দিনের মধ্যেই রাজ্য থেকে বর্ষা বিদায় নেয়। এবার সেপ্টেম্বর শেষ হয়ে গেলেও বর্ষার পাততাড়ি গোটানোর কোনও আশা দেখাই যাচ্ছে না।

পুজোয় বৃষ্টি-ভোগান্তির সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেরী করে এ রাজ্য থেকে বিদায় নেবে বর্ষা
কলকাতা:

পুজো শুরু হতে আর বাকি ঠিক পাঁচটা দিন। নীল আকাশে পেঁজা তুলো নেই…দিগন্ত উজাড় করা সাদা কাশফুল নেই….আছে কেবলই মন খারাপ করা অঝোর বৃষ্টি! কখনও মুষলধারে কখনও বা একনাগাড়ে বৃষ্টিপাতের জেরে শেষ মুহূর্তের পুজো প্যান্ডেলের প্রস্তুতি এবং সাজসজ্জা নিয়ে চিন্তিত কুমোরটুলি ও প্যান্ডেল শিল্পীরা। আবহাওয়া দফতর বলছে, এত তাড়াতাড়ি রেহাই মেলার সুযোগই নেই। সাধারণত সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম ১ বা ২ দিনের মধ্যেই রাজ্য থেকে বর্ষা বিদায় নেয়। এবার সেপ্টেম্বর শেষ হয়ে গেলেও বর্ষার পাততাড়ি গোটানোর কোনও আশা দেখাই যাচ্ছে না। আবহাওয়ার নিয়ম অনুযায়ী, রাজস্থান থেকে প্রথম বর্ষা বিদায় নেয়। এবার এখনও রাজস্থানে বহাল রয়েছে তা। সুতরাং এই রাজ্য থেকে কবে বর্ষা বিদায় নেবে তা বলা যাচ্ছে না।

‘বৃষ্টি-অসুরের' চোখরাঙানি! দেবীপক্ষের সূচনাতেও রেহাই নেই বৃষ্টির হাত থেকে

এবার সেপ্টেম্বর মাসে যা বৃষ্টি হয়েছে দেশে, তা অনেক রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে। অন্য অনেক বারের থেকে সারা দেশে ৪৮% বেশি বৃষ্টি হয়েছে এবার। অর্থাৎ, সব মিলিয়ে বোঝা যাচ্ছে পুজোয় এবার বৃষ্টির সম্ভাবনা ষোলআনা। সমাজ সেবী সংঘের সাধারণ সম্পাদক অরিজিৎ মৈত্র জানিয়েছেন, অবিরাম বৃষ্টিপাতের কারণে প্যান্ডেলের কাজ থামিয়ে রেখেছেন তাঁরা। “বৃষ্টির কারণে আমাদের শ্রমিকরা কাজ শেষ করতে পারছেন না। আমরা মায়ে'র কাছে প্রার্থনা করছি যাতে সময় মতো প্যান্ডেল প্রস্তুতি শেষ করতে পারি,” বলেন অরিজিৎ। 

পুজোয় ‘ভিলেন' বৃষ্টি! দেখুন ষষ্ঠী থেকে দশমী কোন দিন কেমন বৃষ্টিতে পণ্ড হতে পারে উৎসব -

কলকাতায় অবশ্য ইতিমধ্যেই অনেক প্যান্ডেল উদ্বোধন হয়ে গিয়েছে। যাঁদের শেষ মুহূর্তের কাজ বাকি সেই শিল্পীরা বর্ষার দাপটকে সামাল দেওয়ার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করছেন। কাজ থামিয়ে রাখা সম্পর্কে শিল্পী বসন্ত দাস বলেন, “আমরা প্রচুর সমস্যার মুখোমুখি হয়েছি। বৃষ্টির কারণে আমরা অসম্পূর্ণ কাজ শেষ করতে পারছি না।"

বসন্ত বলেন, “যদিও সাজানোর কাজের অংশগুলি আমরা একটি বাড়ির ভেতরে তৈরি করছি। তবে ওসব তো প্যান্ডেলে বাইরেই লাগানো হবে। তাই এরম বৃষ্টি হতে থাকলে তা স্বাভাবিকভাবেই আমাদের কাজের ক্ষেত্রে বড় বাধা তৈরি করছে।"