This Article is From Jan 13, 2019

প্রেমিকের সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়লেন স্ত্রী, জানুন তারপর কী করলেন স্বামী

পুলিশের দাবি, ললিত জেরায় স্বীকার করে নিয়েছে যে সেই মুকেশকে খুন করেছে। একদিন স্ত্রী ও মুকেশকে অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে দেখেও ফেলে ললিত।

প্রেমিকের সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়লেন স্ত্রী, জানুন তারপর কী করলেন স্বামী

পুলিশ অপরাধী ও তার ভাইপোকে গ্রেফতার করেছে

গাজিয়াবাদ:

গাজিয়াবাদের মোহন নগর এলাকা থেকে সম্প্রতি প্লাস্টিকের ব্যাগে ভরা অবস্থায় এক ব্যক্তির দেহ উদ্ধার করা হয়েছিল। শনিবার সেই খুনের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে অভিযুক্ত দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করল শাহিবাবাদ থানার পুলিশ।

মাটি খোঁড়ার কাঁটা দিয়ে পিটিয়ে প্রতিবেশী যুবকের প্রাণ নিল ট্রাক খালাসি

মৃত ব্যক্তির নাম মুকেশ। তিনি প্রতাপ বিহার কলোনিতে থাকতেন। পুলিশ অফিসার শ্লোক কুমার জানান, বুধবার শিল্পনগরী এলাকা থেকে ওই ব্যক্তির দেহ উদ্ধার করা হয়।

তদন্তে পুলিশ জানতে পারে মুকেশের দুই প্রতিবেশী ললিত ও তার ভাইপো রবি মিলে তাকে খুন করেছে। ওই দু'জনকে প্রতাপ বিহার থেকে শনিবার ধরে পুলিশ। মিস্টার কুমার বলেন, সম্ভবত ললিতের স্ত্রীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে গিয়েছিল মুকেশ।

কুম্ভমেলায় এই প্রথমবার থাকছে রূপান্তরকামীদের 'কিন্নর আখড়া'

পুলিশের দাবি, ললিত জেরায় স্বীকার করে নিয়েছে যে সেই মুকেশকে খুন করেছে। ললিত পুলিশকে জানিয়েছে, মুকেশের সঙ্গে স্ত্রীর অবৈধ সম্পর্ক নিয়ে তাদের স্বামী স্ত্রীর মধ্যে মাঝেমধ্যেই অশান্তি হত। একদিন স্ত্রী ও মুকেশকে অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে দেখেও ফেলে ললিত।

তারপরেই ললিত ভাইপো রবিকে সঙ্গে নিয়ে মুকেশকে খুনের ছক কষে। তারা বৃহস্পতিবার মোহন নগরে মুকেশের সঙ্গে দেখা করে। মিস্টার কুমার জানান, সেখানেই লোনি রোডে মুকেশের গলায় দড়ি পেঁচিয়ে ধরে ললিত।

অপরাধের সময়ে ব্যবহৃত একটি গাড়ি ও একটি বাইক বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ।

আরও খবর দেখুন এখানে