রাজভবনের চা-চক্রে অনুপস্থিত মুখ্যমন্ত্রী! ফের "অপমানিত" হয়ে টুইট রাজ্যপালের

সেদিন সকালে ব্যারাকপুরে গান্ধিঘাটের অনুষ্ঠানেও রাজ্যে অবাধ ও শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণ নিয়ে সরব হয়েছিলেন রাজ্যপাল

রাজভবনের চা-চক্রে অনুপস্থিত মুখ্যমন্ত্রী! ফের
কলকাতা:

স্বাধীনতা দিবসের (Independence Day tea party) দিন সন্ধ্যায় রাজভবনে আয়োজিত চা চক্রে ছিলেন না মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata)। আর এই অনুপস্থিতিকে কটাক্ষ করে ফের সরব হলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় (Governor Jagdeep Dhankhar)। শনিবার রাতের দিকে তিনি সেই অনুষ্ঠানের একাধিক ছবি টুইট করেন। সেই ছবিতে একটা ফাঁকা চেয়ারের প্রসঙ্গ উল্লেখ করেন রাজ্যপাল। ছবিতে দেখা গিয়েছে, সেই চেয়ারে মুখ্যমন্ত্রীর নাম উল্লেখ করা। সেই ফাঁকা চেয়ার প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে রাজ্যপাল বলেন, "এই ফাঁকা চেয়ার মুখ্যমন্ত্রীর অনুপস্থিতির চিহ্ন বহন করছে। এই অনুপস্থিতি মোটেও রাজ্যের ইতিবাচক সংস্কৃতির সৌজন্য বহন করে না। আর পিছনে কোনও যুক্তি নেই। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ও অন্য সরকারি আধিকারিকদের রাজভবনের অনুষ্ঠানে অনুপস্থিতি আমাকে অবাক করেছে। স্বাধীনতা দিবসে স্বাধীনতা সংগ্রামীদের স্মরণে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে রাজ্য সরকারের এই ভূমিকায় আমি বাকরুদ্ধ।"

যদিও, শনিবার সকালে রেড রোডের অনুষ্ঠানের পর রাজভবনে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর সঙ্গে ছিলেন রাজ্য পুলিশের ডিজি, কলকাতা পুলিশের কমিশনার-সহ অন্যরা। কোভিড-১৯ সংক্রমণ এবং নিয়ন্ত্রণবিধি মেনে তিনি সন্ধ্যায় আসতে পারবেন না। তাই সকালে এই ঝটিকা সফর করে গেলেন। সংবাদমাধ্যমকে এমনটাই জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু তারপরেও শনিবার সন্ধ্যার অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রীর অনুপস্থিতি নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করলেন রাজ্যপাল।

সেদিন সকালে ব্যারাকপুরে গান্ধিঘাটের অনুষ্ঠানেও রাজ্যে অবাধ ও শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণ নিয়ে সরব হয়েছিলেন রাজ্যপাল। এই সমালোচনার পাল্টা জবাব দিয়েছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী ব্রাত্য বসুও।

Newsbeep