প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে ওঠা যৌন হেনস্থার অভিযোগ, মামলা শুনবে তিন বিচারপতির বেঞ্চ

প্রধান বিচারপতি (Chief Justice Of India) রঞ্জন গগৈয়ের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ (Sexual Harassment Allegations) আগেই উঠেছে

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

এক আইনজীবী দাবি করেছেন প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে।


নিউ দিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আগেই উঠেছে
  2. তিন সদস্যের বেঞ্চের নেতৃত্বে থাকবেন বিচারপতি এস এ বোবদে
  3. তাঁর সঙ্গে থাকবেন বিচারপতিএন ভি রামানা এবং ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায়

প্রধান বিচারপতি (Chief Justice Of India) রঞ্জন গগৈয়ের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ (Sexual Harassment Allegations) আগেই উঠেছে। এবার এই মামলার বিচার করতে তিন বিচারপতিকে নিয়ে একটি প্যানেল গঠন করল শীর্ষ আদালত। জানা গিয়েছে মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি ছাড়া অন্য বিচারপতিরা একযোগে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বেঞ্চের নেতৃত্বে থাকবেন বিচারপতি এস এ বোবদে (Justice SA Bobde)। তাঁর সঙ্গে থাকবেন বিচারপতি এন ভি  রামানা এবং বিচারপতি ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায়। সংবাদসংস্থা পিটিআইকে বিচারপতি বোবদে  জানিয়েছেন অভিজ্ঞতার দিক থেকে এন ভি রামানা আমার পরেই তাই তাঁকে এই বেঞ্চে রাখা হয়েছে। আর মহিলা সংক্রান্ত অভিযোগ বলে ইন্দিরা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও সামিল করা হয়েছে।

মমতার বায়োপিকের ট্রেলার প্রদর্শনের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করল কমিশন

আগেই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন প্রধান বিচারপতি। তাঁর মনে হয়েছে এমন অভিযোগ আসলে বিচার ব্যবস্থাকেই সঙ্কটে ফেলে দেয়। গত শনিবার জরুরি ভিত্তিতে সুপ্রিম কোর্ট এই মামলা শোনে। তাতে প্রধান বিচারপতি বলেন, এ ধরনের অভিযোগ অবিশ্বাস্য এটি অস্বীকার করতেও যে স্তরে নামতে হবে সেখানে নামা আমার পক্ষে সম্ভব নয়। তবে ওই শুনানি নিয়ে প্রশ্ন তোলে সুপ্রিম কোর্টের দুটো আইনজীবী সংগঠন তারা দাবি করে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিক সুপ্রিম কোর্টের ‘ফুল কোর্ট'।  

সেই মতো মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতিকে বাদ দিয়ে বাকিরা এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেন। তিন বিচারপতিকে নিয়ে প্যানেল গঠনের প্রস্তাব আনেন বিচারপতি বোবদে। বাকিরা তাতে সম্মতি দিয়েছেন। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিরা  ঘরোয়া আলাপচারিতায় প্রধান বিচারপতির পাশে থাকার ইঙ্গিত দিয়েছেন।

এক আইনজীবী দাবি করেছেন প্রধান বিচারপতির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে। তিনি যাতে ইস্তফা দিতে বাধ্য হন তা নিশ্চিত করতেই যৌন হেনস্থার মিথ্যে অভিযোগ প্রকাশ্যে নিয়ে আসা হয়েছে। তাঁর আরও দাবি মহিলার বিরুদ্ধে সওয়াল করতে এবং সাংবাদিক সম্মেলন করে বিষয়টি প্রচার করার জন্য তাঁকে দেড় কোটি টাকা দিতে চাওয়া  হয়েছিল। আদালত জানিয়েছে বুধবার ওই আইনজীবীকে সুপ্রিম কোর্টে হাজির হতে হবে এবং এ ব্যাপারে যে সমস্ত তথ্য আছে তা জমা দিতে হবে।

প্রথম থেকেই এ ব্যাপারে কড়া মনোভাব দেখিয়ে আসছেন প্রধান বিচারপতি। তিনি বলেছেন আগামী কয়েকদিনের মধ্যে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ মামলার শুনানি হতে চলেছে তাই তার আগে এ ধরনের মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে। তবে তিনি যে নিজের কাজ করে যাবেন তা স্পষ্ট জানিয়েছেন প্রধান বিচারপতি। পাশাপাশি তাঁর অভিযোগ যে মহিলার কথা বলা হচ্ছে তার নামেই বেশ কিছু মামলা রয়েছে মিথ্যে।  

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................