চিনের সঙ্গে সীমান্ত সংঘাতে মন ভাল নেই প্রধানমন্ত্রী মোদির: ডোনাল্ড ট্রাম্প

ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ‘‘আমি প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে কথা বলেছি। চিনের সঙ্গে যাই হয়ে থাকুক, ওঁর মেজাজ ভাল নেই।’’

ভারত ও চিনের মধ্যে মধ্যস্থতা করতে চেয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

ওয়াশিংটন:

ভারত ও চিন (China) সীমান্তে অচলাবস্থা অব্যাহত রয়েছে। এরই মধ্যে মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump) দু'দেশের মধ্যে মধ্যস্থতার বিষয়ে বারবার কথা বলতে চেয়েছেন। এবার তিনি জানালেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Narendra Modi) মেজাজ ঠিক নেই। হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে ট্রাম্পকে ভারত ও চিনের মধ্যে চলমান বিবাদের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘‘দুই দেশের মধ্যে বড় বিবাদ রয়েছে। আমি আপনাদের প্রধানমন্ত্রীকে পছন্দ করি। উনি খুব ভাল মানুষ।'' ডোনাল্ড ট্রাম্প আরও বলেন, ‘‘ভারত ও চিনের মধ্যে বড় বিবাদ চলছে। ভারত খুশি নয়। আবার সম্ভবত চিনও খুশি নয়। আমি প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে কথা বলেছি। চিনের সঙ্গে যাই হয়ে থাকুক, ওঁর মেজাজ ভাল নেই।''

লাদাখের কোন কোন অঞ্চল নিয়ে মতানৈক্য ভারত-চিনের, চিনে নিন ছবিতে

এর আগে গত বুধবার মার্কিন রাষ্ট্রপতি ভারত ও চিনের মধ্যে মধ্যস্থতা করার প্রস্তাব জানিয়ে টুইট করেছিলেন। তিনি লেখেন, দুই দেশকেই আমেরিকা জানিয়েছে যে, সীমান্ত নিয়ে তাদের মধ্যে যে বিরোধ চলছে সে বিষয়ে তারা মধ্যস্থতা করতে প্রস্তুত, ইচ্ছুক এবং সক্ষম।

"দ্বিপাক্ষিক ইস্যু আমরাই মেটাবো!" চিন নিয়ে ট্রাম্পের মধ্যস্থতা ফেরাল দিল্লি

রবিবার ভারত জানিয়েছিল, যে তারা চিনের সঙ্গে এই বিরোধটি শান্তিপূর্ণ উপায়ে সমাধান করতে চায়। চিনের পক্ষ থেকেও আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের কথা বলা হয়েছে। চিনের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান বুধবার জানান, ভারত ও চিনের কাছে সমস্ত বিকল্পই মজুত রয়েছে। এবং এর মাধ্যমে বিষয়টির সমাধান করা যেতে পারে।

প্রসঙ্গত, করোনা ভাইরাস নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প ‌লাগাতার আক্রমণ করে চলেছেন চিনকে। বৃহস্পতিবারও তিনি একটি টুইটে এই ভাইরাসকে ‘‘চিনের তরফ থেকে বিশ্বকে অত্যন্ত খারাপ উপহার'' বলে বর্ণনা করেছেন। সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাস ছড়ানোর জন্য তিনি চিনকেই দায়ী করেছেন।