This Article is From Feb 07, 2020

ট্যাক্সিতে উঠে CAA বিরোধী কথা বলায় যাত্রীকে সোজা পুলিশের হাতে তুলে দিলেন উবর চালক!

Anti CAA Protest Mumbai: যাত্রীর সিএএ-বিরোধী কথা শুনে মাঝপথে ট্যাক্সি থামিয়ে দেন উবর চালক, এটিএম থেকে টাকা তোলার অজুহাতে দু'জন পুলিশকে নিয়ে ফেরেন তিনি

ট্যাক্সিতে উঠে CAA বিরোধী কথা বলায় যাত্রীকে সোজা পুলিশের হাতে তুলে দিলেন উবর চালক!

Anti CAA Protest Mumbai: সিএএ বিরোধী প্রতিবাদে কবি তথা সমাজকর্মী বাপ্পাদিত্য সরকার (ফাইল চিত্র)

হাইলাইটস

  • গন্তব্যে নয়, উবর বাপ্পাদিত্য সরকার নামে এক কবিকে নিয়ে গেল সোজা থানায়
  • উবর চালকের অভিযোগ, ট্যাক্সিতে বসে দেশ বিরোধী কথা বলছিলেন ওই কবি
  • পুলিশ ওই কবিকে থানায় আটকে রেখে দীর্ঘক্ষণ জেরা করে বলে জানা গেছে
মুম্বই:

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে কথা বলায় এবার ট্যাক্সিতে তোলা এক যাত্রীকে সটান পুলিশের হাতে তুলে দিলেন মুম্বইয়ের এক উবর চালক। জানা গেছে, বাপ্পাদিত্য সরকার নামে ওই যাত্রী নিজের ফোনে কোনও একজনের সঙ্গে সিএএ (Citizenship Amendment Act) বিরোধী কথাবার্তা বলছিলেন। সেই সব কথা শুনে ওই উবর চালক মাঝপথেই গাড়ি থামিয়ে দেন। তাঁর গাড়িতে বসে থাকা যাত্রীকে (Bappadittya Sarkar) বলেন. এটিএম থেকে টাকা তুলে নিয়ে আসছেন তিনি (Mumbai Uber Driver)। কিন্তু কিছুক্ষণ পর যখন ওই উবর চালক ফিরে আসেন তখন তাঁর সঙ্গে ছিলেন দুই পুলিশ কর্মী। তাঁর গাড়ির সওয়ারি সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে (Anti CAA Protest Mumbai) কথা বলছেন এই অভিযোগ করে বাপ্পাদিত্য সরকারকে ওই দুই পুলিশ কর্মীর হাতে তুলে দেন তিনি। ট্যাক্সি থেকে নামিয়ে দুই পুলিশ কর্মী ওই কবি তথা সমাজকর্মীকে থানায় নিয়ে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

কবি বাপ্পাদিত্য সরকারকে যেভাবে "ভয় দেখানো হয়েছে" তা যথেষ্টই উদ্বেগের বলে মন্তব্য করেন আরেক সমাজকর্মী কবিতা কৃষ্ণন।

শাহিনবাগে শিশুমৃত্যু নিয়ে প্রধান বিচারপতিকে পিটিশন বারো বছরের মেয়ের

এক টুইটে বাপ্পাদিত্য সরকার জানান, বুধবার রাত সাড়ে দশটা নাগাদ তিনি জুহু থেকে কুর্লায় যাওয়ার জন্যে একটি উবর ক্যাবে ওঠেন। ট্যাক্সিতে বসেই তিনি তাঁর বন্ধুর (মোবাইল ফোনে) সঙ্গে দিল্লির শাহিনবাগের প্রতিবাদে "লাল সালাম" স্লোগান ওঠা নিয়ে মানুষের অস্বস্তির বিষয়ে আলোচনা করছিলেন।

তিনি জানান, ট্যাক্সিতে তাঁর কথোপকথন শুনে পুলিশ ডেকে আনেন ওই উবর চালক। পুলিশ তাঁকে নানা বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে। বাপাদিত্য সরকার তাঁদের জানান যে তিনি জয়পুর থেকে এসেছেন এবং দিনের শুরুতে "মুম্বই বাগ"-এর সিএএবিরোধী বিরোধী বিক্ষোভেও যোগ দিয়েছিলেন। পাশাপাশি স্লোগান দেওয়ার জন্যে তিনি একটি যন্ত্র সঙ্গে রেখেছিলেন বলেও পুলিশকে জানান তিনি। 

কিন্তু উবর চালক বাপ্পাদিত্য সরকারকে গ্রেফতার করার জন্যে পুলিশকে বারবার অনুরোধ করতে থাকেন। 

"উনি বলছিলেন যে উনি একজন বামপন্থী, উনি দেশকে জ্বালিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করছিলেন এবং মুম্বইয়ে শাহিনবাগের আদলে আরও একটি আন্দোলন শুরুর কথা বলছিলেন", পুলিশের কাছে অভিযোগ জানান ওই উবর চালক। এমনকি ওই চালক এও দাবি করেন যে তিনি যাত্রীর কথোপকথনও রেকর্ড করেছেন।

ওই চালক আরও বলেন, "আপনার মতো লোকেরা দেশকে ধ্বংস করে দেবেন আর আপনি আশা করেন যে আমরা আপনার দিকে তাকিয়ে চুপচাপ বসে থাকব। আপনার কৃতজ্ঞ হওয়া উচিত যে আমি আপনাকে অন্য কোথাও না নিয়ে গিয়ে বরং থানায় নিয়ে এসেছি।"

CAA, NRC, NPR যেন "ব্ল্যাক ম্যাজিক", বিজেপির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে লড়ার আহ্বান মুখ্যমন্ত্রীর

এরপর দীর্ঘক্ষণ বাপ্পাদিত্য সরকারকে থানায় আটকে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে রাত ১টা নাগাদ তাঁর এক পরিচিত থানায় এসে তাঁকে ছাড়িয়ে নিয়ে যান। তবে এই ঘটনার পর যেভাবে মতপ্রকাশের স্বাধীনতাও হরণ হচ্ছে তা নিয়ে উদ্বেগে রয়েছেন সবাই।

ঘটনাটি সম্বন্ধে বাপ্পাদিত্য সরকার 'উবার ইন্ডিয়া সাপোর্ট'-এর টুইটার হ্যান্ডেলে জানালে তারা জানায়, "আমরা ঘটনাটিকে অগ্রাধিকার দিয়ে খতিয়ে দেখছি । দয়া করে আপনি কোথা থেকে উঠেছিলেন উবরে এই সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য শেয়ার করুন"।