প্লাস্টিক বর্জ্যের বিরুদ্ধে জন আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী মোদির

Man Ki Bat: স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে, একবার ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিক এড়িয়ে চলার জন্য সাধারণ মানুষের কাছে আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী মোদি

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
প্লাস্টিক বর্জ্যের বিরুদ্ধে জন আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান প্রধানমন্ত্রী মোদির

প্রতি মাসে রেডিওতে মন কি বাত (Man Ki Bat) অনুষ্ঠানে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী মোদি (ফাইল)


নয়াদিল্লি: 

মহাত্মা গান্ধির ১৫০ তম জন্মবার্ষিকিতে দেশকে প্লাস্টিকমুক্ত করে তোলার আহ্বান জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Modi)। পাশাপাশি দিওয়ালির আগে, প্লাস্টিকের নষ্ট করার নিরাপদ উপায় তৈরির জন্য পুরসভা, এনজিও এবং কর্পোরেট সেক্টরগুলির কাছে আহ্বান জানান তিনি। স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে, একবার ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিক এড়িয়ে চলার জন্য সাধারণ মানুষের কাছে আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি । রবিবার তাঁর মন কি বাত (Man Ki Bat)  অনুষ্ঠানে দেশবাসীকে “স্বচ্ছতা হি সেবা” প্রচারে অংশ নেওয়ার জন্য দেশবাসীর কাছে আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। চলতি বছরের ১১ সেপ্টেম্বর শুরু হতে চলেছে এই প্রচার।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “চলতি বছরের ২ অক্টোবর, যখন আমরা বাপুর ১৫০ তম জন্মবার্ষিকি পালন করব, সেই সময় খোলা জায়গায় মলত্যাগ থেকে মুক্ত ভারতই নয়, তারসঙ্গে প্লাস্টিকের বিরুদ্ধে নতুন আন্দোলনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন হবে, যা দেশজুড়ে করবেন দেশবাসী”।তিনি বলেন, সমাজের সমস্ত স্তরের মানুষ এবার গান্ধি জয়ন্তীকে “ভারতমাতাকে প্লাস্টিকমুক্ত করার” দিন হিসেবে পালন করবেন।

সমস্ত পুরসভা, পুরনিগম, জেলা প্রশাসন, পঞ্চায়েত, সরকার ও অ-সরকারি সংস্থাগুলিকে প্লাস্টিক বর্জ্যের যথাযথ সংগ্রহের ব্যবস্থা করার আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমি কর্পোরেট সেক্টরের কাছে আবেদন করব, জড়ো হওয়া সমস্ত প্লাস্টিকের সঠিকভাবে নষ্ট করার উপায় বের করুন। এটাকে পুনর্ব্যবহারযোগ্যও করে তোলা যায়, জ্বালানিও করে ফেলা যায়। এভাবেই দিওয়ালির আগেই আমরা প্লাস্টিকের নিরাপদ নিষ্পত্তি করতে পারব”।

চলতি বছরের ২৭ অক্টোবর দিওয়ালি উৎসব রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেন, চ্যালেঞ্জটি জিততে এটিকে গ্রহণ করতে হবে এবং “গান্ধিজীর থেকেও বড় অনুপ্রেরণা আর কী হতে পারে”?

এবারের স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে, একবার ব্যবহারযোগ্য প্লাস্টিক নষ্ট করতে দিতে আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং মুদি দোকানদারদের, গ্রাহকদের পরিবেশবান্ধব ব্যাগ দেওয়ার আহ্বান জানান।

তাঁর কথায়, “এই প্রচার সাধারণ মানুষকে উৎসাহ দিয়েছে...আমার অনেক ব্যবসায়ী ভাই, বোন দোকানে প্লাকার্ড ঝুলিয়েছেন, সেখানে পরিস্কার করে উল্লেখ করে দিয়েছেন, ক্রেতাদের নিজেদের ব্যাগ আনতে হবে। এর ফলে যেমন আর্থিক লাভ, তেমনই একজন পরিবেশ রক্ষার কাজও করতে পারেন”।



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................