রাজ্যে আক্রান্ত দিলীপ ঘোষ, হিমন্ত বিশ্ব শর্মার কনভয়

Lok Sabha Election 2019: আক্রমণ হলেও দিলীপ বা হিমন্ত কেউ আক্রান্ত হননি।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS

গত দশ বছর ধরে পূর্ব মেদিনীপুরের দুটি আসন তৃণমূলের দখলে  রয়েছে।


কলকাতা: 

হাইলাইটস

  1. সংঘর্ষ ঘিরে উতপ্ত পূর্ব মেদিনীপুর, একে অপরকে বিঁধল তৃণমূল ও বিজেপি
  2. বিজেপির দাবি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাদের রোড শো চলাকালীন আক্রমণ করেছে তৃণমূল
  3. অভিযোগ অস্বীকার করে তৃণমূলের দাবি বিজেপি তাদেরই নিশানা করেছে

লোকসভা নির্বাচনের (General Election 2019) ষষ্ঠ দফার ভোটের আগেই উত্তপ্ত হয়ে উঠল পূর্ব মেদিনীপুর। একে অপরের বিরুদ্ধে  আক্রমণের অভিযোগে সরব  তৃণমূল এবং বিজেপি। বিজেপির দাবি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাদের রোড শো চলাকালীন আক্রমণ করেছে তৃণমূল। তখন  রোড শো  করছিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ এবং  অসমের মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা। কাঁথি লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী দেবাশিস সামন্তর সমর্থনে রোড শো চলাকালীন তেখালি ব্রিজের উপর হামলা হয়। বেশ কয়েকটি গাড়ির সামনের কাচে ভাঙচুর চালান হয়েছে। এরপর খেজুরির  কাছে হেরিয়ায় ফের একবার আক্রমণ হয় বলে বিজেপির দাবি।  বিজেপির অভিযোগ অস্বীকার করে তৃণমূলের দাবি বিজেপি তাদেরই নিশানা  করেছে। আর তাতে কয়েকজন আক্রান্ত হয়েছে  বলে দাবি বাংলার শাসক শিবির।  আক্রমণ হলেও দিলীপ বা হিমন্ত কেউ আক্রান্ত হননি। গোলমাল শুরু হওয়ার পর তাদের সেখান থেকে বের করে  নিয়ে যান কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা। 

মোদীকে নিশানা করতে গিয়ে মমতা সমস্ত সীমা অতিক্রম করে গিয়েছেনঃ সুষমা

এই কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী শিশির অধিকারী বলেন, ‘বিজেপি অকারণে উত্তেজনা ছড়িয়ে রাজনৈতিক ফয়দা তোলার চেষ্টা করছে। রোড শো করার অনুমতি ছিল না বিজেপির কাছে।' পাল্টা  দিলীপ বলেছেন, ‘বিজেপির কোনও কর্মী আহত হলে আমি ধর্নায় বসে যাব।' গত দশ বছর ধরে পূর্ব মেদিনীপুরের দুটি আসন তৃণমূলের দখলে  রয়েছে।  ২০০৯ সালে কাঁথি থেকে জেতেন শিশির এবং তাঁর ছেলে  শুভেন্দু  অধিকারী জিতে আসেন তমলুক লোকসভা কেন্দ্র থেকে। পরের বারও জেতেন দুজনেই।  এরই মাঝে  ২০১৬   সালের বিধানসভা নির্বাচনে জিতে রাজ্যের মন্ত্রী হন শুভেন্দু। এবার এই আসন থেকে প্রার্থী হয়েছেন তাঁর ভাই দিব্যেন্দু অধিকারী।                



পশ্চিমবঙ্গের খবর, কলকাতার খবর , আর রাজনীতি, ব্যবসা, প্রযুক্তি, বলিউড আর ক্রিকেটের সকল বাংলা শিরোনাম পড়তে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................