অলোক বার্মা সংক্রান্ত প্যানেলে থাকতে চান নি বিচারপতি একে সিক্রি: সূত্র

কমনওয়েলথভুক্ত ৫৩ টি দেশের মধ্যে বিবাদ মেটাতে গঠিত লন্ডনের কমনওয়েলথ সেক্রেকটারিয়েট আরবিটারি ট্রাইবুনালের প্রেসিডেন্ট/সদস্যপদে ফেরালেন বিচারপতি একে সিক্রি।

 Share
EMAIL
PRINT
COMMENTS
অলোক বার্মা সংক্রান্ত প্যানেলে থাকতে চান নি বিচারপতি একে সিক্রি: সূত্র

অলোক বার্মাকে নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে গঠিত প্যানেলে বিচারপতি একে সিক্রিকে নিয়োগ করেন প্রধানবিচারপতি রঞ্জন গগৈ


নিউ দিল্লি: 

হাইলাইটস

  1. সিবিআই প্রধানকে সরানো নিয়ে গঠিত প্যানেলে থাকতে চান নি বিচারপতি সিক্রি
  2. সূত্রের খবর, বাকি দুই সদস্যকে তাঁর অনিচ্ছার কথা জানিয়েছিলেন তিনি
  3. জানা গেছে, তিনি বলেন, এটা পুরোপুরি একটি “এক্সিকিউটিভ ফাংশন”

অবসরের পর কাজে যোগ দেওয়ার প্রস্তাব ফেরালেন বিচারপতি একে সিক্রি। সূত্র মারফত এডিটিভি জানতে পেরেছে, সিবিআই প্রধান পদ থেকে অলোক বার্মাকে সরাতে গঠিত তিন সদস্যের কমিটিতে থাকতে চান নি সুপ্রিম কোর্টের এই বিচারপতি। নিজের অনিচ্ছার বিষয়টি তিনি কমিটির বাকি দুই সদস্য, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং কংগ্রেস নেতা তথা বিরোধীদের প্রতিনিধি মল্লিকার্জুন খাড়গের কাছে প্রকাশ করেন।

তাঁর অন্তভুর্ক্তি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল বিরোধীরা। তাদের প্রশ্ন, স্বার্থের সংঘাত হতে পারে জেনেও, কেন তিনি প্যানেলে অন্তর্ভুক্ত হয়েছিলেন।

বিচারপতি একে সিক্রির ঘনিষ্ঠের কথায়, “ভবিষ্যতে কোনও বিচারপতিই এইভাবে নিয়োগের সঙ্গে যুক্ত হতে চাইবেন না।এই পদ্ধতি থেকে সমস্ত বিচারপতিরাই নিজেদের মুক্তি চাইবেন”।সুপ্রিম কোর্টের রায়ে শর্তসাপেক্ষে সিবিআই প্রধান পদে ফিরে এসেছিলেন অলোক বার্মা।তাঁকে নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে বিচারপতি একে সিক্রির ভোটই ছিল নির্ণায়ক।

চার্জশিটে ভারত-বিরোধী শ্লোগানের উল্লেখ, কী প্রতিক্রিয়া কানহাইয়া কুমারের

কমনওয়েলথভুক্ত ৫৩ টি দেশের মধ্যে বিবাদ মেটাতে গঠিত লন্ডনের কমনওয়েলথ সেক্রেকটারিয়েট আরবিটারি ট্রাইবুনালের প্রেসিডেন্ট/সদস্যপদে ফেরালেন বিচারপতি একে সিক্রি।৬ মার্চ অবসরের পর কাজে যোগ দেওয়ার কথা তাঁর।সূত্রের খবর, কেন্দ্রীয় সরকারকে তিনি জানিয়েছেন, তিনি “দুঃখ পেয়েছেন”, জানিয়ে তাঁর প্রার্থীপদ প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।সূ্ত্রের খবর, তিনি এও জানিয়ে দিয়েছেন, এটি কোনও পারিশ্রমিকভুক্ত কাজ নয়।

বিচারপতি ঘনিষ্ঠের কথায়, “গতমাসে এর জন্য তাঁর কাছে গিয়েছিল সরকার।তিনি সম্মতি দিয়েছিলেন।এই পদে বছরে দু-তিনটে শুনানিতে উপস্থিত থাকতে হত এবং কোনও পারিশ্রমিক ছাড়া”।

বুলন্দশহরের সংঘর্ষের ঘটনায় তিন জনের বিরুদ্ধে ন্যাশনাল সিকিউটি অ্যাক্টে মামলা দায়ের

অলোক বার্মাকে সরানোর জন্য গঠিত প্যানেলে থাকা বিচারপতিকে এই পদের প্রস্তাব দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন উঠছিল।কমিটিতে ভিন্ন মত দিয়েছিলেন কংগ্রেস নেতা মল্লিকার্জুন খাড়গে।তাঁর যুক্তি, সেন্ট্রাল ভিজিল্যান্স কমিশনের রিপোর্টে অলোক বার্মার বিরুদ্ধে ওঠা দূর্নীতির অভিযোগ প্রমাণ হয় নি।

অলোক বার্মাকে নিয়ে তাঁর বেঞ্চই রায় দিয়েছিল। সেই কারণে প্যানেল থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ।তাঁর জায়গায় কমিটিতে আসেন তাঁরই মনোনীত বিচারপতি একে সিক্রি।

একটি নিউজ ওয়েবসাইটের একটি আর্টিকেল ট্যুইট করেছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী।

 

 

 

 

কংগ্রেস সভাপতির অভিযোগ, রাফাল নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দেওয়ায় ১৫ মিনিটের জন্যও অলোক বার্মাকে সিবিআইয়ে চান নি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

 

NDTV Beeps - your daily newsletter

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................

................................ Advertisement ................................