সমস্ত সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়েই দুর্গাপুজোর আয়োজন করা হবে, বলছেন উদ্যোক্তারা

Durga Puja: কলকাতার দুর্গাপুজোর আয়োজনকারীরা আশাবাদী যে, করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও সবরকম সুরক্ষা ব্যবস্থা বহাল রেখে পুজো করা যাবে

সমস্ত সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়েই দুর্গাপুজোর আয়োজন করা হবে, বলছেন উদ্যোক্তারা

Durga Puja Festival: কলকাতার দুর্গাপুজোর আয়োজকরা আশাবাদী যে এবারও পুজো করা সম্ভব হবে

হাইলাইটস

  • করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও দুর্গাপুজো করা যেতে পারে
  • মুখ্যমন্ত্রীর দফতরকে একগুচ্ছ সুপারিশ জমা দিল পুজো কমিটিগুলো
  • দর্শনার্থীদের মধ্যে রাখতে হবে সামাজিক দূরত্ব, পড়তে হবে মাস্ক
কলকাতা:

দুর্গাপুজো (Durga Puja) আর কলকাতা (Kolkata), এ যেন একে অপরের পরিপূরক। কিন্তু এখন তো গোটা বিশ্বের বাতাসে সংক্রমণের আশঙ্কা, সব জায়গার মতো এদেশেও এখন শুধুই ধাওয়া করে বেড়াচ্ছে মৃত্যুভয়। করোনা ভাইরাস, এই একটি মারণ ভাইরাস যেন বদলে দিয়েছে সারা বিশ্বের ছবি। তাই জুলাইয়ের মাঝামাঝিতেও কলকাতায় নেই পুজো প্রস্তুতির তৎপরতা, সব জায়গাতেই যেন ভয়ঙ্কর অসুখের মোড়কে এক অনিশ্চয়তা ঘুরে বেড়াচ্ছে। তবে কলকাতার দুর্গাপুজো আয়োজক কমিটিগুলো চায়, করোনা সংক্রান্ত সবরকম সতর্কতা অবলম্বন করে মায়ের আরাধনার আয়োজন করতে। শহরের ৩৫০ টি পুজো কমিটিকে নিয়ে ইতিমধ্যেই কলকাতায় তৈরি হয়েছে একটি বৃহত্তর কমিটি। তাঁরাই বলেছে যে, করোনা আবহের মধ্যেও কিছু নিরাপত্তা ব্যবস্থা জারি রেখে পুজো করা সম্ভব। ইতিমধ্যেই দুর্গাপুজোর আয়োজকদের নিয়ে তৈরি ওই ফোরাম একটি সুপারিশ তালিকা জমা দিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) কার্যালয়ে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা মৃত্যুর নয়া রেকর্ড, একদিনে মৃত ৩৬ জন রোগী

নগরীর দুর্গা পূজা কমিটিগুলোকে নিয়ে তৈরি ওই ফোরামের সুপারিশ অনুযায়ী, পুজোর দেখতে আসা দর্শনার্থীদের প্রত্যেককে থার্মাল স্ক্রিনিং করা হবে, প্রত্যেক দর্শনার্থীদের মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক, একেকবারে ২৫ জনের বেশি মানুষকে কোনও পুজো প্যান্ডেলেই ঢুকতে দেওয়া হবে না। পুজো উদ্যোক্তাদের তরফে পুজো প্যান্ডেল ও আশেপাশের এলাকা নিয়মিত জীবাণুমুক্ত করতে হবে। পাশাপাশি যে সুপারিশটিতে জোর দেওয়া হয়েছে তা হল, দুর্গা প্রতিমা যদি বড় আকারে তৈরি করে খোলামেলা প্যান্ডেল করা হয় তবে দর্শনার্থীরা প্যান্ডেলে না ঢুকেই ঠাকুর দর্শন করতে পারবেন। 

কোভিড- ১৯ মোকাবিলায় রাজ্যের স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে চূড়ান্ত অব্যবস্থা: বিজেপি

Newsbeep

এর আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন যে, প্রত্যেকেই যদি নিজেদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেয় তবে দুর্গাপুজো আয়োজন করা যাবে। তিনি একথাও বলেন যে, যথাযথ সুরক্ষা নিয়ে এবছরও দুর্গাপুজো আয়োজন করা সম্ভব। নবান্ন সভাঘর থেকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, "সবাইকে আগামী কয়েকদিন সচেতন থাকতে হবে। সামনেই পুজো আসছে। ভাল করে করতে হবে তো। সংক্রমণ কমাতে এখন থেকেই ক্লাবগুলি ভূমিকা নিক।"

এরপরেই করোনা পরিস্থিতিতেও কীভাবে সবরকম সুরক্ষাবিধি মেনে দুর্গাপুজো আয়োজন করা যায় সেসম্পর্কে বিস্তারিত সুপারিশ মুখ্যমন্ত্রীর দফতরে জমা দিল কলকাতার পুজো কমিটিগুলো নিয়ে তৈরি ফোরাম।